whatsapp channel

Srabanti Chatterjee: ছেলে আমার থেকেও স্মার্ট: শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়

2020 সাল থেকে ব্যক্তিগত জীবনের কারণে লাগাতার ট্রোল হয়ে চলেছেন শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায় (Srabanti Chatterjee)। ট্রোলারদের ইন্ধনের যোগান দিয়েছেন তাঁর তৃতীয় স্বামী রোশন সিং (Roshan Singh)। কিন্তু শ্রাবন্তীর পাশে দাঁড়িয়েছেন তাঁর…

Avatar

Nilanjana Pande

2020 সাল থেকে ব্যক্তিগত জীবনের কারণে লাগাতার ট্রোল হয়ে চলেছেন শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায় (Srabanti Chatterjee)। ট্রোলারদের ইন্ধনের যোগান দিয়েছেন তাঁর তৃতীয় স্বামী রোশন সিং (Roshan Singh)। কিন্তু শ্রাবন্তীর পাশে দাঁড়িয়েছেন তাঁর পুত্র অভিমন্যু চট্টোপাধ্যায় (Abhimanyu Chatterjee)। এবার এই প্রসঙ্গে মুখ খুললেন শ্রাবন্তী।

শ্রাবন্তীর মতে, তাঁকে নিয়ে যাঁরা মিম বানান, কন্টেন্ট তৈরি করেন, তাঁদেরও সংসার চালাতে হবে। তবে তিনি ইদানিং এইসব নেতিবাচক কমেন্ট এড়িয়ে যান। মিমারদের ভিউয়ারস বাড়ছে বলে তাঁদের ‘অল দ্য বেস্ট’ জানিয়ে দিলেন শ্রাবন্তী। তাঁর মতে, তিনি প্রতিবাদ করলে এই ধরনের সমালোচনা আরও বাড়বে। তবে শ্রাবন্তী মনে করেন, নেতিবাচকতা বেশিদিন থাকে না। কারণ ইতিবাচকতা স্থায়ী হয়। তিনি জানালেন, একটাই জীবন। ফলে তিনি নিজের মতো করে জীবনে বাঁচেন। শ্রাবন্তীর মতে, নারী-পুরুষ একে অপরের পরিপূরক। কিন্তু পৃথিবী জুড়ে মেয়েরা সফট টার্গেট। কারণ মেয়েরাই মেয়েদের বিরুদ্ধে কথা বলছেন। ফলে ছেলেরা মেয়েদের বলার সুযোগ পাচ্ছেন। তবে মজা করে শ্রাবন্তী বলেন, তাঁর নাম আছে বলেই বদনাম আছে।

শ্রাবন্তীর পুত্র অভিমন্যু এই ধরনের ট্রোলকে পাত্তা দেন না। তাঁর তুলনায় তাঁর ছেলে অনেক বেশি স্মার্ট বলে জানালেন শ্রাবন্তী। ফলে ছেলেকে তাঁর কিছু বোঝানোর দরকার নেই। তবে শ্রাবন্তীর মতে, সব মানুষ তাঁকে ঘৃণা করেন না। কিছু মানুষ তাঁকে ভালোবাসেন ও সমর্থন করেন। তাঁর আপকামিং ফিল্ম ‘কাবেরী অন্তর্ধান’ নিয়ে যথেষ্ট উচ্ছ্বসিত শ্রাবন্তী। প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় (Prosenjit Chatterjee), কৌশিক গাঙ্গুলী (Koushik Ganguly), চূর্ণী গাঙ্গুলী (Churni Ganguly)-র মতো অভিনেতা-অভিনেত্রীদের সাথে কাজ করতে পেরে নিজেকে যথেষ্ট ভাগ্যবতী মনে করেন তিনি।

1975 সালে নকশাল আন্দোলনের প্রেক্ষাপটে তৈরি ‘কাবেরী অন্তর্ধান’ একটি সাসপেন্স থ্রিলার। একসময় প্রসেনজিৎ-এর মেয়ের চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন শ্রাবন্তী। তখন তিনি যথেষ্ট ছোট। এতদিন পর তাঁর সাথে আবারও কাজ করতে গিয়ে নার্ভাস ছিলেন শ্রাবন্তী। এই ফিল্মে অভিনয়ের ক্ষেত্রে প্রসেস গাইডেন্স পেয়েছেন শ্রাবন্তী। শৈশবে কৌশিক গাঙ্গুলীর সাথেও কাজ করেছিলেন তিনি। এত বছর পর আবারও তাঁর সাথে কাজ করতে পেরে ভালো লাগছে শ্রাবন্তীর। কাবেরীর চরিত্র ও লুক নিয়ে যথেষ্ট পরীক্ষা-নিরীক্ষা করেছেন কৌশিকবাবু। এমনকি শ্রাবন্তীকে রীতিমত ওয়ার্কশপ করতে হয়েছে। ‘কাবেরী অন্তর্ধান’-এর অধিকাংশ শুটিং হয়েছে নর্থ বেঙ্গলে। আপাতত এই ফিল্ম মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছেন শ্রাবন্তী।