Advertisements

কোন ঘটনা থেকে ভুল বোঝাবুঝি? কেন ভেঙে যায় নুসরত-মিমির বন্ধুত্ব!

Nirajana Nag

Nirajana Nag

Follow

বিনোদন জগতের নায়িকারা কখনো বন্ধু হতে পারে না। একথা ভুল প্রমাণ করে দিয়েছিলেন নুসরত জাহান (Nusrat Jahan) এবং মিমি চক্রবর্তী (Mimi Chakraborty)। সহকর্মী থেকে ‘বোনুয়া’ হয়ে উঠেছিলেন তাঁরা। প্রায় একই সময়ে বড়পর্দায় পা রাখা এই দুই নায়িকার গলায় গলায় বন্ধুত্ব এক সময় ছিল টক অফ দ্য টাউন। একই সঙ্গে একই রাজনৈতিক দলের হয়ে ভোটে দাঁড়িয়ে সাংসদও হন দুজনে। নুসরত বিদেশে কোথাও শুটিং করতে গেলে সারপ্রাইজ দিতে পৌঁছে যেতেন মিমি। এমনকি নিখিল জৈনের সঙ্গে নুসরতের বিয়েতেও সবসময় সঙ্গে দেখা গিয়েছিল তাঁর বোনুয়াকে।

কিন্তু এই গলায় গলায় বন্ধুত্বে ছেদ পড়েছে বহুদিন। দুজনের কথা হয় এখনো। তবে তাঁদের মধ্যে দূরত্ব যে বেড়েছে তা স্পষ্ট সকলের কাছেই। ঠিক কী কারণে বন্ধুত্বে ফাটল ধরল তাঁদের? শোনা যায়, নিজেদের প্রযোজনা সংস্থার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে নাকি মিমিকে আমন্ত্রণই জানাননি যশ নুসরত। অন্যদিকে অভিনেত্রীর দাবি ছিল, আমন্ত্রণ জানানো হলেও মিমিই আসেননি। তবে গুঞ্জন বলে, আসল ঘটনা অন্য।

নুসরত মিমির বন্ধুত্বে ভাঙনের সূত্রপাত বছর কয়েক আগে। নিখিল জৈনের সঙ্গে বিয়ে অস্বীকার, যশ দাশগুপ্তের সঙ্গে প্রেম, অভিনেতার সন্তানের মা হওয়া, নুসরতের জীবনে এত সব ঘটনার কারণেই নাকি দূরে সরে গিয়েছিলেন মিমি। এমনকি নুসরতের প্রেগনেন্সির সময়েও দেখা মেলেনি তাঁর। সে সময়ে এক সাক্ষাৎকারে অভিনেত্রী দাবি করেছিলেন, হঠাৎ করে কোনো সাহসী পদক্ষেপ তিনি নিতে পারবেন না।

নুসরত অবশ্য পুরনো ভুল বোঝাবুঝি মেটাতে চেয়েছেন। আবারও বন্ধুত্বের হাতও নাকি বাড়িয়েছেন। কিন্তু উলটো দিক থেকে আসেনি সাড়া। এদিকে এক সাক্ষাৎকারে মিমি বলেন, তিনি মুখের উপরে সত্যি কথা বলে দেন। ছোট থেকেই এই স্বভাব রয়েছে তাঁর। কিন্তু সত্যি কথা বলা আর বিশেষ করে মুখের উপরে সত্যি বলা সহজ নয়। অনেকেই বিষয়টা মেনে নিতে পারেন না। অভিনেত্রী বলেন, এমন অনেক বন্ধুবান্ধব আত্মীয়স্বজন হয় যারা বলেন যে মুখের উপরেই সত্যি কথা বলে দিতে। কিন্তু সত্যিটা শুনলে তারা আর মানতে পারে না।

Nirajana Nag

আমি নীরাজনা নাগ। HoopHaap-এর একজন সাংবাদিক। বিগত চার বছর ধরে এই পেশার সঙ্গে যুক্ত রয়েছি। নিজের লেখা...

Trending

Video

Shorts

whatsapp [#128] Created with Sketch.

Join

Follow