Advertisements

Lokkhir Bhandar: আর ১০০০-১২০০ টাকা নয়, নির্বাচনের পরেই এক ধাক্কায় বাড়ছে লক্ষ্মীর ভাণ্ডারের টাকা!

Nirajana Nag

Nirajana Nag

Follow
Advertisements

গত বিধানসভা নির্বাচনে জেতার পরেই লক্ষ্মীর ভাণ্ডার (Lokkhir Bhandar) প্রকল্প শুরু করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নতুন সরকার গঠন করেই মহিলাদের আর্থিক ভাবে বলীয়ান করতে এই প্রকল্পের সূচনা করেন তিনি, যা পরবর্তীকালে মাস্টারস্ট্রোক হয়ে ওঠে রাজ্য সরকারের। রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের অনেকের মতেই, এবারের লোকসভা নির্বাচনে বাংলায় সবুজ ঝড়ের নেপথ্যে অনেকটাই অবদান রয়েছে লক্ষ্মী ভাণ্ডারের। এই প্রকল্পের কারণেই রাজ্যের মহিলা ভোটের সিংহভাগটা পেয়েছে ঘাসফুল শিবির। তাই এবার নির্বাচনের পরে সরকার এই প্রকল্পকে ঢালাও ভাবে সাজাতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

লক্ষ্মীর ভাণ্ডারেই বাজিমাত

পরিবারের মহিলাদের আর্থিক ভাবে স্বাধীন করে তুলতে লক্ষ্মীর ভাণ্ডার প্রকল্পের অবতারণা করা হয়েছিল। বিগত দু বছর ধরে গোটা রাজ্যের বহু মহিলা এই প্রকল্পের জোরে লাভবান হয়েছেন। এই প্রকল্পে মাসে ৫০০ টাকা করে পেতেন জেনারেল কাস্টের মহিলারা। আর তফসিলি জাতি এবং উপজাতি ভুক্ত মহিলাদের জন্য ১০০০ টাকা করে দেওয়া হত লক্ষ্মীর ভাণ্ডার প্রকল্পে। তবে এই টাকার পরিমাণ সম্প্রতি ১০০০ টাকা থেকে বাড়িয়ে করা হয়েছে ১২০০ টাকা। আর যারা ৫০০ টাকা করে পেতেন তারা পাচ্ছেন ১০০০ টাকা। তবে এবার শোনা যাচ্ছে, আরো বাড়তে চলেছে প্রকল্পের টাকা।

আরও বাড়ছে ভাণ্ডারের টাকা!

লোকসভা নির্বাচন শুরুর আগে আগেই লক্ষ্মীর ভাণ্ডার প্রকল্পের টাকার পরিমাণ বাড়ানো হয়েছিল। সেই সঙ্গে এই প্রকল্প নিয়ে প্রচারও বাড়ানো হয়েছিল সরকারের তরফে। তার ইতিবাচক ফলাফলই ভোটের ফলাফলে দেখা গিয়েছে বলে মত বিশেষজ্ঞদের। আর এবার শোনা যাচ্ছে, নির্বাচনের পর আরো বাড়ানো হবে টাকার পরিমাণ।

গুঞ্জন বলছে, এবার জেনারেল কাস্টের মহিলারা ১০০০ টাকার পরিবর্তে পাবেন ১৫০০ টাকা এবং তফসিলি জাতি এবং উপজাতি ভুক্ত মহিলারা পাবেন ১২০০ টাকার পরিবর্তে ২০০০ টাকা। না, এ বিষয়ে এখনো কোনো সরকারি ঘোষণা করা হয়নি ঠিকই, তবে রাজ্যের মহিলারা স্পষ্টতই আশাবাদী এই প্রকল্প নিয়ে।

Nirajana Nag
Nirajana Nag

আমি নীরাজনা নাগ। HoopHaap-এর একজন সাংবাদিক। বিগত চার বছর ধরে এই পেশার সঙ্গে যুক্ত রয়েছি। নিজের লেখা...

Trending

Video

Shorts

whatsapp [#128] Created with Sketch.

Join

Follow