Advertisements

দুর্নীতির অভিযোগ, ‘এ আর পোষাচ্ছে না’, নিজের দলের বিরুদ্ধেই বিষ্ফোরক তৃণমূল বিধায়ক মদন মিত্র

Nirajana Nag

Nirajana Nag

Follow

রাজ্য রাজনীতির ‘কালারফুল বয়’ মদন মিত্র (Madan Mitra)। স্পষ্ট কথা স্পষ্ট ভাবে বলতেই পছন্দ করেন তিনি। কামারহাটির তৃণমূল বিধায়ক তিনি। কামারহাটি পুরসভাও রয়েছে সবুজ শিবিরের দখলে। আর এবার নিজের দলের বিরুদ্ধেই মুখ খুললেন তিনি। এর আগেও তৃণমূলের বিরুদ্ধে সরব হতে দেখা গিয়েছিল মদন মিত্রকে। এবার ফের দুর্নীতির অভিযোগ করলেন তিনি।

স্থানীয় পুরসভার অব্যবস্থা, এলাকার আবর্জনাময় অবস্থা দেখে রীতিমতো বিরক্ত তিনি। সম্প্রতি এক সংবাদ মাধ্যমের সঙ্গে সাক্ষাৎকারে মদন মিত্র বলেন, গোটা কামারহাটি এলাকায় আর হাঁটাচলা করার উপায় নেই। সর্বত্র আবর্জনায় ভরে গিয়েছে। পুকুর বুজিয়ে বাড়ি হচ্ছে। তৈরি হচ্ছে অবৈধ বহুতল। প্রতিদিন অভিযোগ পেতে পেতে রীতিমতো বিরক্ত মদন মিত্র। ক্ষুব্ধ হয়ে তিনি বলে ওঠেন, ‘এ আর পোষাচ্ছে না’।

উল্লেখ্য, সদ্য শেষ হয়েছে লোকসভা নির্বাচন। সেখানে কামারহাটি পুরসভার চেয়ারম্যানের ওয়ার্ডে পিছিয়ে রয়েছে তৃণমূল। এছাড়াও ৩৫ টি ওয়ার্ডের মধ্যে আরো কয়েকটি ওয়ার্ডেও পিছিয়ে সবুজ শিবির। এর জন্য দুর্নীতিই দায়ী বলে মন্তব্য করেন মদন মিত্র। তিনি আরো বলেন, তাঁর কাছে মূলত দু রকম অভিযোগ আসছে। পুকুর বুজিয়ে বাড়ি তৈরি হচ্ছে আর চার তলার বাড়ির অনুমোদন করিয়ে অবৈধ ভাবে তৈরি হচ্ছে ছয় তলা বাড়ি।

এদিকে বিধায়ক মদন মিত্রের অভিযোগের পালটা উত্তর দিয়ে কামারহাটি পুরসভার চেয়ারম্যান বলেন, বাড়ি বাড়ি আবর্জনা সংগ্রহ করার গাড়ি রয়েছে, কর্মী হয়েছে। আবর্জনা জমার কথা নয়। তবে বিধায়ক যখন বলেছেন তখন কাউন্সিলরদের সঙ্গে কথা বলার কথা জানিয়েছেন তিনি। পাশাপাশি পুকুর বুজিয়ে বাড়ি তৈরির বিষয়ে খানিক কটাক্ষের সুরে পুরসভার চেয়ারম্যান বলেন, কোথায় প্ল্যান দাবা বাড়ি হচ্ছে তা বিধায়ক জানেন। পুরসভার তরফে নোটিসও দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি থানাতেও অভিযোগ জানানো হয়েছে বলে জানান চেয়ারম্যান। মদনের বক্তব্য নিয়ে অবশ্য কটাক্ষ করতে ছাড়েনি বিজেপি। বিজেপি নেতা সজল ঘোষ বলেন, মদন মিত্র মানুষের কথাই বলেছেন। কিন্তু তিনি ভোল বদলাতে বেশি সময় নেন না। তাই তাঁর কথায় গুরুত্ব দেওয়া যায় না।

Nirajana Nag

আমি নীরাজনা নাগ। HoopHaap-এর একজন সাংবাদিক। বিগত চার বছর ধরে এই পেশার সঙ্গে যুক্ত রয়েছি। নিজের লেখা...

Trending

Video

Shorts

whatsapp [#128] Created with Sketch.

Join

Follow