Hoop Life

ফ্যাশন ট্রেন্ডে ভেসে পায়ে কালো সুতো বাঁধছেন? নিজেই নিজের ক্ষতি করছেন না তো?

Advertisements

পায়ে কালো সুতো (Black Thread) তো অনেককেই বাঁধতে দেখেছেন। বাচ্চা থেকে যুবতী এখন সকলেই পায়ে বেঁধে থাকেন কালো সুতো। এটাই যেন একটা ফ্যাশন হয়ে দাঁড়িয়েছে বর্তমানে। মূলত অশুভ শক্তিকে দূরে সরানোর জন্যই পায়ে কালো সুতো বাঁধা হয়ে থাকে। কিন্তু এটা সকলের জন্যই কি এটা কার্যকরী? পায়ে কালো সুতো বাঁধা আদৌ কতটা শুভ নাকি অশুভ? জানতে হলে প্রতিবেদনটি পুরোটা পড়ুন।

জ্যোতিষ শাস্ত্র বলে, কালো সুতো যেন তেন ভাবে বাঁধলেই হয় না। এর কিছু নিয়ম রয়েছে। সে সব নিয়ম মেনেই বাঁধতে হয় কালো সুতো। অন্যথায় অশুভ প্রভাব এসে পড়ে। তবে সকলের পক্ষে কালো সুতো বাঁধা ঠিক নয়। জ্যোতিষ শাস্ত্র বলে, মকর, তুলা এবং কুম্ভ রাশির জাতক জাতিকাদের জন্য কালো শুভ রঙ। তাই এদের জন্য পায়ে কালো সুতো বাঁধা শুভ। কালো পোশাকও পরতে পারেন তারা।

ফ্যাশন ট্রেন্ডে ভেসে পায়ে কালো সুতো বাঁধছেন? নিজেই নিজের ক্ষতি করছেন না তো?

কিন্তু বৃশ্চিক এবং মেষ রাশির জন্য কালো অশুভ একটি রঙ। জ্যোতিষ শাস্ত্র বলে, মঙ্গল গ্রহ বৃশ্চিক এবং মেষ রাশিকে শাসন করে। কালো তাই তাদের জন্য শুভ রঙ বলে গণ্য করা হয় না। এই রাশির জাতক জাতিকারা পায়ে কালো সুতো বাঁধলে তাদের পক্ষে তা অশুভ ইঙ্গিত বয়ে আনে। এমনকি এও বলা হয়েছে, কালো সুতো পরলে প্রাণের ঝুঁকির সম্ভাবনাও থেকে যায়।

জ্যোতিষ শাস্ত্র মতে, ব্রাহ্ম মুহূর্ত শুভ সময়। এই সময়ে কালো সুতো বাঁধা অত্যন্ত শুভ। রুদ্র গায়ত্রী মন্ত্র জপ করে বা বংশের কুল দেবতার নাম নিয়ে কালো সুতো বাঁধতে হয়। সুতো খোলার আগে চারটি গিঁট বেঁধে নিতে হবে। শনি গ্রহের প্রতীক কালো। তাই শনিবার কালো সুতো বাঁধলে সবথেকে ভালো। নিয়ম মেনে কালো সুতো বাঁধলে উপকার পাওয়া যায় বলে মত জ্যোতিষবিদদের।

Disclaimer: বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ এবং মতামতের ভিত্তিতে লেখা হয়েছে প্রতিবেদনটি। ব্যক্তিবিশেষে এর ফল হতে পারে ভিন্ন।

Nirajana Nag

আমি নীরাজনা নাগ। HoopHaap-এর একজন সাংবাদিক। বিগত চার বছর ধরে এই পেশার সঙ্গে যুক্ত রয়েছি। নিজের লেখার মাধ্যমে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাঠকদের কাছে পৌঁছে দিতে চাই