whatsapp channel

Lifestyle: মেয়েদের শরীরের এই ৬ স্পর্শকাতর জায়গায় ভুলেও হাত দেবেন না, হতে পারে অঘটন

নারী শরীর সব সময়ের জন্যে স্পর্শ কাতর। তাকে ছুঁতে গেলে অনুমতি নিতে হয়। বিনা অনুমতিতে নারী শরীর স্পর্শ মানে পাপ। যদিও এই সব পাপের কথা আজকাল অনেকেই ভাবেন না। সেই…

Avatar

নারী শরীর সব সময়ের জন্যে স্পর্শ কাতর। তাকে ছুঁতে গেলে অনুমতি নিতে হয়। বিনা অনুমতিতে নারী শরীর স্পর্শ মানে পাপ। যদিও এই সব পাপের কথা আজকাল অনেকেই ভাবেন না। সেই জন্যেই হয়তো কন্যা সন্তান হলে কেউ কেউ মন খারাপ করেন, পড়াশুনো কম করলে পিটিয়ে দেন, কেউ কেউ বিয়ে দিতে হবে এই ভেবে মানসিক অত্যাচার করেন, আবার কিছু পুরুষ আছে যারা মেয়েদের সবসময়ের জন্য খাদ্য বস্তু ভাবে। কিন্তু, যারা মেয়েদের সন্মান করেন এবং যেই জাতি বা সম্প্রদায় মেয়েদের সন্মান করে তাদের শিক্ষা, রুচি এবং ভবিষ্যৎ আরো উজ্জ্বল হয়। HoopHaap.Com আজকে কয়েকটি বিষয়ে আলোকপাত করবে যেগুলি আপনার ঘরের সোনার কানে দিয়ে রাখুন, যাতে সে সেফ থাকে।

মেয়েদের শরীরের এই এই অংশে বিনা অনুমতিতে হাত দেওয়া উচিত নয়….

১) মাথার চুল – মেয়েরা লক্ষ্মী দেবীর স্বরূপ হন। তাই তার চুল ধরে টানা বা চুল স্পর্শ করা উচিত নয়।

২) কান – কানে আচমকা হাত বা ঠোঁট স্পর্শ করল উত্তেজনা বেড়ে যায়। তাই একদমই নয়।

৩) ঘাড় – কানের মতন ঘাড়েও উত্তেজনা চরম থাকে। অনুমতি ছাড়া এইসব জায়গায় ঠোঁট বা হাত স্পর্শ করা উচিত নয়।

৪) কোমর – কোমরের দিকে মেয়েদের ক্যতুকুতু থাকে। আচমকা হাত দিলে উত্তেজিত হয়ে যায় কেউ, আবার কেউ হেসে ফেলে।

৫) থাই – থাই প্রায় গোপন পার্টের কাছাকাছি অংশ। কোনো মেয়ের থাই স্পর্শ করা মানে তাকে বাজে ইঙ্গিত দেওয়া।

৬) বাকি গোপন পার্ট – বিবাহিত না হওয়া পর্যন্ত বা অনুমতি না নেওয়া পর্যন্ত কোনো পুরুষের উচিত নয় মেয়েদের এই বিশেষ স্পর্শকাতর স্থান স্পর্শ করার।

Disclaimer : প্রতিবেদনটি সামাজিক দ্বায়িত্ব বোধের উপর বিচার করে পরিবেশিত হয়েছে। মহিলাদের শরীর বিনা অনুমতিতে স্পর্শ হল আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।