Hoop VideoHoop Viral

একই তোয়ালেতে শরীর জড়িয়ে ঘনিষ্ঠ হলেন নিরাহুয়া-অঞ্জনা, ভিডিও ভাইরাল

বাংলা, হিন্দি ও দক্ষিণী ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির পাশাপাশি এখন গোটা দেশের নজর কাড়ছে ভোজপুরী ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি। ছবিতে অভিনয়, থেকে গানের সাহসী দৃশ্য, সবকিছুতেই বেশ উন্নতি করেছে ভোজপুরী বিনোদন নির্মাতারা। প্রায়ই নানা ভোজপুরী গান, নাচ ও ছবি ভাইরাল হয় সামাজিক মাধ্যমে। বলা বাহুল্য, প্রতিদিন অন্তত একটি করে ভোজপুরি গান ইউটিউবে আপলোড করা হয়। এর মধ্যে কিছু গান শুরু থেকেই জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। পবন সিং, নিরাহুয়া, খেসারি লাল যাদব, রিতেশ পান্ডে, শিল্পী রাজ এবং রাকেশ মিশ্রের মতো কণ্ঠশিল্পীদের ফ্যান ফলোয়িং প্রচুর। ফলে তাঁদের গানগুলোও বেশ জনপ্রিয়।

শুধুমাত্র স্থানীয় দর্শক নয়, গোটা দেশব্যাপী দর্শক রয়েছে এই ভোজপুরী গান ও নাচের। এর কারণ অনেকগুলিই রয়েছে। প্রথমত, ভোজপুরী গানের মধ্যে দুঃখ থাকলেও সেই দুঃখ থেকে বেরিয়ে এসে জীবনকে উপভোগ করার মতো বিষয়বস্তু থাকে। এসবের পাশাপাশি ভোজপুরী গানের লিরিক্স হয় খুবই জীবন্ত এবং চটুল। শারীরিক আবেদন ও উন্মুক্ত যৌনতার বিশদ বর্ণনা থাকে এইসব গানে। এর উপর বাড়তি পাওনা হিসেবে দর্শকদের কাছে এই গানে রয়েছে খোলামেলা দৃশ্যের মিউজিক ভিডিও। যত বেশি শারীরিক আবেদন, তত বেশি সেই ভিডিও ভাইরাল হয় সামাজিক মাধ্যমে।

আর এবার এমনই একটি ভোজপুরী গানের ভিডিওর ভিউ ছাড়িয়ে গেল লক্ষের গন্ডি। ভাইরাল হওয়া এই গানে অঞ্জনা সিং (Anjana Singh) ও দীনেশ লাল যাদব (Dinesh Lal Yadav) ওরফে নিরাহুয়াকে দেখা গিয়েছে। ভিডিওর পরতে পরতে রয়েছে যৌনতা ভরা দৃশ্য। শুরুতেই দেখা যাচ্ছে শাড়ি পরে ঘরে বসে আছেন নায়িকা। নায়কের এন্ট্রি হতেই বেডরুমে গিয়ে নাইটি পরেন নায়িকা। তারপর আবার সেই নাইটি খুলে নায়কের গায়ে ছুঁড়ে শরীরে একটি তোয়ালে জড়িয়ে নায়কের সামনে এলেন তিনি। তারপর বিছানায় রোমান্স করতে দেখা যায় দুজনকে। আবার এক তোয়ালের মধ্যে দুজনকে বন্দি হয়ে দেখা গেছে একে অপরকে আদরে ভরিয়ে দিতে। তাই শুরু থেকে শেষ অব্দি ভিডিওটি দেখে আপনার শরীর গরম হতে বাধ্য।

ভিডিওটি ইউটিউবে ‘সুহাগ বালি রাতি পুরা করবা রাজা’ নামে ভাইরাল হয়েছে। এটি ‘হাতকড়ি’ ছবির গান। গানটি গেয়েছেন দীনেশ লাল যাদব, কল্পনা সিং, ইন্দু সোনালী ও খেসারি লাল যাদব। ওয়েভ মিউজিক নামের একটি চ্যানেল থেকে ভিডিওটি পোস্ট করা হয়েছে। ভিডিওটি ইতিমধ্যে লক্ষাধিক মানুষ দেখে ফেলেছেন। হাজার হাজার লাইক ও কমেন্টের বন্যা বয়ে গেছে ভিডিওটি থেকে।