Hoop Story

ফুলবাগান মেট্রো স্টেশনের প্রবেশপথে বাংলা উধাও, অস্পষ্ট হরফে ক্ষুব্ধ শহরবাসী

কলকাতা শহরের বুকে মেট্রো রেল চলেছে সেই আশির দশক থেকেই। বাঙালির মনে প্রাণে মেট্রোর সঙ্গে সম্পর্কিত হয়ে পড়েছিল। ১৯৯৫ সালে মহাত্মা গান্ধী রোড মেট্রো স্টেশনের উদ্বোধনের পর থেকে মাটির ওপর দিয়েই প্রতিটা নতুন করে স্টেশন বানানো হয়েছিল। কিন্তু ঠিক ২৫ বছর পরে ফুলবাগান স্টেশন মাটির নিচে তৈরি করা হয়। কিন্তু এই স্টেশনে প্রবেশের মুখে ফুলবাগান কথাটিকে ইংরেজি এবং হিন্দি ভাষায় লেখা হয়েছে। বাদ পড়েছে বাংলায় লেখা ‘ফুলবাগান’ কথাটি। কলকাতা শহর জুড়ে থাকা বাঙ্গালীদের একাংশের মনে বাংলা ভাষার অস্তিত্ব নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে! তবে কি বাংলা ভাষা ব্রাত্য?

আগে প্রতিটা স্টেশনেই বাংলা, হিন্দি, ইংরেজি তিনটি ভাষাতেই স্টেশনের নাম পরিষ্কারভাবে লেখা থাকতো। যেখানে বাংলা ভাষাভাষী মানুষের সংখ্যা বেশি সেখানে তো এমনটা হওয়াটাই স্বাভাবিক। তবে ফুলবাগান এর ক্ষেত্রে কেনই বা এমন বিচ্যুতি ঘটলো? তবে মেট্রোরেলের কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে জানানো হচ্ছে, তারা নিয়ম করেই তিনটি ভাষাতে স্টেশনের নাম লিখিয়েছে। এরপরও যদি কারোর কোন অভিযোগ থাকে তাহলে তাদেরকে লিখিত ভাবে জানাতে হবে।

তবে এইবারই প্রথম নয়, এর আগেও জলের ভেন্ডিং মেশিনে বাংলা হরফকে বাদ দিয়ে হিন্দি হরফকেই বেশি গুরুত্ব দেওয়া হয়েছিল। এইসব দেখে অনেকেরই কপালে ভাঁজ পড়েছে, তবে কি কেন্দ্রীয় প্রকল্প এর চাপে পড়ে বাংলার জায়গায় হিন্দি ভাষাকে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে? প্রশ্নচিহ্ন রয়েই গেল।

whatsapp logo