Hoop VideoHoop Viral

Short Film: সুন্দরী ইন্স্যুরেন্স এজেন্টের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ হয়ে ফেঁসে গেল যুবক, শরীর গরম করবে এই শর্টফিল্ম

যেখানেই নিষিদ্ধতা, সেখানেই মানুষের আগ্রহ বেশি, আর সেখানেই ভিড় জমান সবরকম বয়সের মানুষ। পুরুষ হোক বা মহিলা, নিষিদ্ধতা নিয়ে আগ্রহ কমবেশি সকলেরই। আর মানুষের এই ধর্মকেই কাজে লাগিয়ে জনপ্রিয়তা লাভ করেছে বেশ কিছু ওটিটি ও ওয়েব প্ল্যাটফর্ম। যেখানে প্রায় প্রতিদিনই মুক্তি পায় ‘হট’ এবং ‘বোল্ড’ দৃশ্য দিয়ে সাজানো আজকালকার প্রায় সব ওয়েবসিরিজ ও শর্ট ফিল্ম। সেই কারণেই সম্প্রতি গোপনে জনপ্রিয়তা লাভ করছে বেশিরভাগ ‘ইরোটিক’ ওয়েব কন্টেন্ট। এগুলি এমন গল্প ও দৃশ্যপট দিয়ে সাজানো হয়, যা মানুষের একান্ত সময়ের সঙ্গী হতে পারে।

হিন্দি ও ইংরেজিতে এই ধরণের কন্টেন্ট ও একদিন আগে থেকেই হয়ে আসছে। বাংলায় শর্ট ফিল্ম মূলত কিছু ড্রামা বা শিক্ষণীয় সামাজিক বিষয়কে ঘিরে তৈরি হয় বহুকাল থেকেই। তবে আজকাল দর্শকদের চাহিদায় বাংলার মতো আঞ্চলিক ভাষাতেও এই ধরণের কন্টেন্ট তৈরি করা হয়ে থাকে। আর এই ধরনের কন্টেন্টের চাহিদা আজকাল তুঙ্গে। তার কারণ হল গরমাগরম সব দৃশ্যাবলী দিয়ে সাজানো হয় এইসব সিরিজ ও শর্ট ফিল্ম। আর এবার এমনই একটি শর্ট ফিল্ম ব্যাপকভাবে হিট হল সামাজিক মাধ্যমে।

আর এবার ইউটিউবে এমনই একটি হিন্দি শর্ট ফিল্মকে ঘিরে শোরগোল পড়ল দর্শকদের মধ্যে। ‘শিকারি’ নামের এই শর্ট ফিল্মে দেখানো হয়েছে অতিরিক্ত শারীরিক খিদে এবং তার ভয়ঙ্কর পরিণতিকে। সিরিজের শুরুতেই এক কামুক ব্যাচেলর ব্যক্তিকে দেখা যায়, যে কর্পোরেট অফিসের বড় পদে কর্মরত। অন্যদিকে সে নিজের শরীরের খিদে মেটানোর জন্য প্রতিদিন কল গার্লদের বাড়িতে ডাকে। এমনই একদিন কোনো কলগার্ল তার বাড়িতে আসতে রাজি হয়না। কিন্তু একজন অপরিচিত মহিলা ইন্স্যুরেন্স এজেন্টকে সে বাড়িতে পেয়ে যায় এবং সুযোগের সদ্ব্যবহার করতে চায়।

সিরিজের ক্লাইম্যাক্সের আগে দেখা যায় যে ওই মহিলা তার সঙ্গে সব কাজ সেরে তার সব টাকা নিয়ে চম্পট দেয়। আর এই মোড় থেকেই ক্লাইম্যাক্স টানা হয় শর্ট ফিল্মের। অসম শারীরিক খিদেড পরিণতিটিও সামাজিক শিক্ষা হিসেবে দেখানো হয়েছে এই স্বল্পদৈর্ঘ্যের ছবিতে। ইউটিউবে ‘অরিজিনাল ফিল্মস স্টুডিও’ নামের একটি জনপ্রিয় চ্যানেল থেকে পোস্ট করা হয়েছে এই শর্ট ফিল্মটি। ইতিমধ্যে কোটি কোটি বেশি দর্শক এই ফিল্মটিকে উপভোগ করেছেন।