whatsapp channel

Sweta Bhattacharya: অতীতের কীর্তি নিয়ে শ্বেতাকে খোঁচা নিন্দুকদের! যোগ্য জবাব দিলেন অভিনেত্রী

ইংরেজি ক্যালেন্ডার অনুযায়ী এখন প্রেমের মধুমাস। পৃথিবীজুড়ে চলছে 'ভ্যালেন্টাইন্স উইক'। প্রেম দিবসের আগে আরো একাধিক দিবস পালন করার রীতি রয়েছে পাশ্চাত্য দেশগুলিতে। তবে সেই রীতিকে এখন আপন করে নিয়েছে বাঙালিও।…

Avatar

Debaprasad Mukherjee

ইংরেজি ক্যালেন্ডার অনুযায়ী এখন প্রেমের মধুমাস। পৃথিবীজুড়ে চলছে ‘ভ্যালেন্টাইন্স উইক’। প্রেম দিবসের আগে আরো একাধিক দিবস পালন করার রীতি রয়েছে পাশ্চাত্য দেশগুলিতে। তবে সেই রীতিকে এখন আপন করে নিয়েছে বাঙালিও। আর এই ভালোবাসার মরশুমের রেশ দেখা যাচ্ছে টলিপাড়াতেও। কাপল হোক বা দম্পতি, তারকাদের মধ্যে এখন প্রেম বিনিময়ের হিড়িক বিদ্যমান। আর এই তালিকায় রয়েছে অভিনেতা রুবেল দাস (Rubel Das) ও শ্বেতা ভট্টাচার্যের (Sweta Bhattacharya) নামও।

এই জুটি বিগত কয়েকমাস ধরেই চর্চায় আছেন। কারণ, তাদের প্রেমের কাহিনী কারো অজানা নয়। খুল্লামখুল্লা সম্পর্কে রয়েছেন দুজন। তবে তাদের প্রেম নিয়ে এবার ভক্তদের মাথাব্যথা বাড়তে দেখা গেল সোশ্যাল মিডিয়ায়। পোস্টের কমেন্ট বক্সে বিতর্কের সূত্রপাত ঘটালেন অনুরাগীদের একাংশ। তাদেরকে ছেড়ে কথা বললেন না এই দুজনের শুভাকাঙ্ক্ষীরাও। শেষমেষ ড্যামেজ কন্ট্রোলে নামলেন খোদ অভিনেত্রী। জানিয়ে দিলেন তাদের সম্পর্কের গভীরতা। ঠিক কি ঘটেছে প্রেম দিবসের আগে? দেখুন।

‘ভ্যালেন্টাইন্স উইক’ অনুযায়ী ১১ ই ফেব্রুয়ারি ছিল ‘প্রমিস ডে’ অর্থাৎ একে অপরের প্রতি প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হওয়ার দিন। আর এই বিশেষ দিনটি নিজেদের মতো পালন করতে গিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় তাদের একটি ছবি পোস্ট করে দুজন দুজনের পাশে থাকার অঙ্গীকার রাখেন অভিনেতা রুবেল দাস। তিনি লেখেন, ‘পাশে থাকার অঙ্গীকার’; প্রিয় মানুষ সেই পোস্টে লেখেন, ‘থাকবে চিরদিন এই ভালোবাসা’। এই পোস্টের কমেন্ট বক্সে অনেকেই আক্রমণাত্মক ভঙ্গিমায় শ্বেতা ভট্টাচার্যের অতীতের সম্পর্কের কথা টেনে আনেন। আবার অনেকেই তাদের সম্পর্ক ভেঙে যাওয়ার কথাও লেখেন কমেন্ট বক্সে। এসব দেখে তাদের শুভাকাঙ্ক্ষীরাও ছেড়ে কথা বলেননি। এই নিয়ে তৈরি হয় বিবাদের বাতাবরণ।

শেষমেষ ড্যামেজ কন্ট্রোল করতে আসরে নামেন খোদ শ্বেতা ভট্টাচার্য। তিনি সব অভিযোগ স্বীকার করে লেখেন, ‘যা যা বলা হয়েছে সব সত্যি। এই কথাগুলোই তিনি বলেছিলেন। কিন্তু যখন দেখলেন, যার উপরে ভরসা করে কথাগুলো বলেছেন সেই মাঝপথে হাতটা ছেড়ে দিয়ে অন্য হাত ধরে তখন তো আর জোর করে সম্পর্কে থাকা যায় না।’ রুবেলের সঙ্গে সম্পর্কের কথা বলতে গিয়ে শ্বেতা লেখেন, ‘বাবা মা-ও বলেছিলেন, রুবেল তাঁর জন্য উপযুক্ত। তাই আর দুবার ভাবিনি আমি। যদি এই সম্পর্কটাও দু বছর পর ভেঙে যায় তাহলে সেটা ভবিতব্য বলেই মেনে নেব’।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Rubel Das (@rubel.official)

Avatar

Hoophaap-এর সম্পাদক দেবপ্রসাদ বিগত কয়েক বছর যাবৎ সাংবাদিকতার সঙ্গে যুক্ত। ডিজিটাল মিডিয়ার হাত ধরেই সাংবাদিকতায় হাতেখড়ি। রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা, লাইফস্টাইল, প্রযুক্তি প্রভৃতি সব ধরণের খবরের উপস্থাপনার কাজে যথেষ্ট সাবলীল। নিউজ ডেস্ক ছাড়াও রয়েছে ভিডিও এডিটিং এবং ক্যামেরার পিছনে বিচিত্র অভিজ্ঞতা