whatsapp channel

Lifestyle: তুলসী গাছে এই পরিবর্তন আসলে সতর্ক হন, সংসারে পড়তে পারে বড় প্রভাব

হিন্দু ধর্মে তুলসী গাছের (Tulsi Plant) মাহাত্ম্য অপরিসীম। বাড়ির উঠোনে, নয়তো ছাদে কিংবা ফ্ল্যাটের এক চিলতে ব্যালকনিতে হলেও তুলসী গাছ রাখতে ভোলে না কেউ। হিন্দু ধর্ম এবং শাস্ত্রে তুলসীকে অত্যন্ত…

Avatar

Nirajana Nag

হিন্দু ধর্মে তুলসী গাছের (Tulsi Plant) মাহাত্ম্য অপরিসীম। বাড়ির উঠোনে, নয়তো ছাদে কিংবা ফ্ল্যাটের এক চিলতে ব্যালকনিতে হলেও তুলসী গাছ রাখতে ভোলে না কেউ। হিন্দু ধর্ম এবং শাস্ত্রে তুলসীকে অত্যন্ত পবিত্র গাছ হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। মনে করা হয়, এই গাছে স্বয়ং নারায়ণের বাস। তাই তুলসী গাছে নিয়মিত প্রদীপ দেখানোর পাশাপাশি এই গাছের বিশেষ যত্নও নিতে হয়। শাস্ত্রে তুলসী গাছের যত্ন সম্পর্কে কিছু গুরুত্বপূর্ণ কথা বলা হয়েছে।

তুলসী গাছকে খুবই পবিত্র বলে মানা হয়। ভক্তি ভরে নিয়মিত এই গাছকে পুজো করা হয়। শাস্ত্র মতে, তুলসী গাছে দেবী লক্ষ্মীর বাস। মনে করা হয়, রবিবার ছাড়া তুলসী গাছে নিয়মিত জল দিয়ে পুজো করলে সংসারে সমৃদ্ধি বজায় থাকে। তুলসী গাছ কীভাবে রাখা উচিত তা নিয়েও কিছু নিয়ম রয়েছে। তুলসী গাছ সরাসরি কখনোই মাটিতে রাখা উচিত নয়। ভিন্ন টব কিংবা মঞ্চ তৈরি করে রাখা উচিত তুলসী গাছ। গাছের আশেপাশে যেন কোনো নোংরা, জঞ্জাল, জুতো ঝাঁটা রাখার জায়গা না থাকে। নয়তো বড় অমঙ্গল ঘনিয়ে আসতে পারে সংসারে।

Lifestyle: তুলসী গাছে এই পরিবর্তন আসলে সতর্ক হন, সংসারে পড়তে পারে বড় প্রভাব

জ্যোতিষ মতে মানা হয়, সংসারে সুসময় আসার আগে তুলসী গাছ তার সংকেত দেয়। তুলসী গাছে হঠাৎ একসঙ্গে অনেকগুলি সবুজ, কচি পাতা এলে বুঝতে হবে যে বাড়িতে খুব তাড়াতাড়ি কোনো ভালো খবর আসতে চলেছে। জ্যোতিষ মতে বলা হয়, তুলসী গাছের গোড়ার কাছে যদি ছোট দূর্বা ঘাস জন্মায় তাহলে সেটি সম্পদ বৃদ্ধির লক্ষণ হিসেবে মনে করা হয়।

তুলসী গাছে সময়ের আগে মঞ্জরী দেখা দিলে সংসারে ধন সম্পদ বৃদ্ধির সংকেত বলে মানা হয়। ভগবান বিষ্ণু এবং মা লক্ষ্মীর উদ্দেশে অর্পণ করা উচিত এই মঞ্জরী। জ্যোতিষ বিশেষজ্ঞরা বলছেন, স্নান করে শুদ্ধ বস্ত্রে তুলসী গাছে আসা নতুন মঞ্জরী শ্রী বিষ্ণু এবং মা লক্ষ্মীকে নিবেদন করলে সংসারে তাঁদের কৃপা দৃষ্টি পড়ে। সংসারের জন্য তা শুভ বলেও মানা হয়ে থাকে।

Disclaimer: বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ এবং মতামতের ভিত্তিতে লেখা হয়েছে প্রতিবেদনটি। ব্যক্তিবিশেষে এর ফল হতে পারে ভিন্ন।

Avatar

আমি নীরাজনা নাগ। HoopHaap-এর একজন সাংবাদিক। বিগত চার বছর ধরে এই পেশার সঙ্গে যুক্ত রয়েছি। নিজের লেখার মাধ্যমে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাঠকদের কাছে পৌঁছে দিতে চাই