whatsapp channel

Ushasi Roy: হাতে শাঁখা-পলা, সিঁথিতে সিঁদুর, নিখিলের সঙ্গে লুকিয়ে বিয়ে ঊষসীর!

চোখে জল, মুখে হাসি নিয়ে মা দুর্গাকে বিদায় জানাচ্ছে আপামর বাঙালি। আবার এক বছরের অপেক্ষা নিয়ে মাকে বরণ করে সিঁদুর খেলায় মেতে উঠছেন বিবাহিতা রমণীরা। আনন্দে যোগ দিচ্ছেন অবিবাহিতারাও। নানান…

Avatar

Nirajana Nag

চোখে জল, মুখে হাসি নিয়ে মা দুর্গাকে বিদায় জানাচ্ছে আপামর বাঙালি। আবার এক বছরের অপেক্ষা নিয়ে মাকে বরণ করে সিঁদুর খেলায় মেতে উঠছেন বিবাহিতা রমণীরা। আনন্দে যোগ দিচ্ছেন অবিবাহিতারাও। নানান মণ্ডপে সিঁদুর খেলায় যোগ দেন তারকারাও। আমজনতার মধ্যে মিশে গিয়ে সিঁদুরে গাল রাঙিয়ে তোলেন তাঁরা। সে সব ছবি জায়গা পায় সোশ্যাল মিডিয়ার পাতায়। অভিনেত্রী ঊষসী রায়ও (Ushasi Roy) সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন সিঁদুর খেলার ছবি। আর সেই ছবিতেই নজর আটকেছে নেট নাগরিকদের।

ছোটপর্দার পর এখন ওয়েব সিরিজের পরিচিত মুখ হয়ে উঠেছেন ঊষসী। বিশেষ করে সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁর জনপ্রিয়তা চোখ টানার মতোই। তবে আরো একটি কারণে বেশ চর্চায় থাকেন ঊষসী। নামী ব্যবসায়ী নিখিল জৈনের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক নিয়ে এক সময় ব্যাপক চর্চা হয়েছিল। টলিউড অভিনেত্রী নুসরত জাহানের প্রাক্তন সঙ্গী নিখিলের সঙ্গে বেশ কয়েক বার ঊষসী ফ্রেমবন্দি হওয়ায় সন্দেহ জেগে উঠেছিল নেটিজেনদের মনে। মাঝে সেসব থিতিয়ে গেলেও ঊষসীর নতুন পোস্ট আবারো উসকে দিয়েছে গুঞ্জন।

পোস্টে অভিনেত্রীকে পাওয়া গেল লাল এবং ঘিয়ে রঙের শাড়ি, লাল স্লিভলেস ব্লাউজ, মানানসই গয়নায়। তবে সবথেকে বেশি নজর কাড়ল ঊষসীর হাতের শাঁখা পলা এবং সিঁথি ভরা সিঁদুর। ছবিগুলি দেখেই নেটিজেনদের প্রশ্ন, বিয়েটা কি করেই ফেললেন ঊষসী? লুকিয়ে লুকিয়েই কি চার হাত এক হয়ে গেল নিখিল ঊষসীর?

আজ্ঞে না। এমন কিছুই হয়নি। আসলে একটি শুটের জন্যই এমন নববধূর মতো সাজ ঊষসীর। পুরনো সেই শুটের ছবি শেয়ার করেই শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ঊষসী। অভিনেত্রী নিজেও অবশ্য নিখিলের সঙ্গে তাঁর নাম জড়ানোর ব্যাপারে ওয়াকিবহালকিবহাল। কিন্তু তিনি বরাবর বলে এসেছেন, নিখিল তাঁর শুধুই ভালো বন্ধু। তবে তিনি অবশ্য সিঙ্গেল নন। নামটা যদিও বলতে চাননি অভিনেত্রী। বলেছেন, ঠিক সময় বলে তিনি নিজেই সবটা প্রকাশ্যে আনবেন।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Ushasi(ঊষসী)Ray (@ushasi)

Avatar

আমি নীরাজনা নাগ। HoopHaap-এর একজন সাংবাদিক। বিগত চার বছর ধরে এই পেশার সঙ্গে যুক্ত রয়েছি। নিজের লেখার মাধ্যমে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাঠকদের কাছে পৌঁছে দিতে চাই