Hoop Life

Lifestyle: ভুলেও যেসব জায়গায় রাখবেন না তুলসী গাছ, বাড়িতে হবেনা লক্ষ্মীর বাস

সনাতন হিন্দু ধর্মে বিভিন্ন গাছ, পশু পাখিকে বিশেষ গুরুত্ব আরোপ করা হয়। বট, অশ্বত্থ প্রভৃতি গাছকে দেবতা হিসেবে পুজো করা হয়। তেমনই একটি গাছ হল তুলসী। ভগবান বিষ্ণুর ঘনিষ্ঠ বলে ধরা হয় তুলসীকে। তাই বিষ্ণুর পায়ে তুলসী দিয়ে পুজো করা হয়। অন্যদিকে তুলসীগাছে রোজ জল দিলেও বাড়িতে বিষ্ণুর বাস হয় বলে মনে করেন অনেকেই।

তবে এই তুলসীগাছ যেমন বাড়ির সুখ ফিরিয়ে আনে, তেমনই আবার বেনিয়ম হলেই তুলসীর প্রভাবে বাড়িতে ঘটতে পারে নানা বিঘ্ন বিপত্তি। বাস্তুশাস্ত্রে তুলসীর পরিচর্যা নিয়ে নানা নিয়ম বর্ণিত আছে। বাস্তুবিদদের মতে ভুল পদ্ধতিতে তুলসীর উপাসনা করলেই ঘোর বিপত্তি হতে পারে ঘরে। তাই এই প্রতিবেদনে দেখে নিন বাড়িতে তুলসী রাখার নিয়ম।

■ কোথায় তুলসীগাছ রাখবেন না?

(১) পূর্ব দিকে: বাস্তুশাস্ত্র মতে তুলসী গাছকে কখনো পূর্বদিকে রাখা উচিত নয়। এতে বাড়িতে নেতিবাচক শক্তির প্রভাব বৃদ্ধি পায়। ব্যবসা ও কর্মক্ষেত্রে চরম ক্ষতি হতে পারে। এছাড়াও গাছকে দক্ষিণ দিকে বা দক্ষিণ পশ্চিম দিকে রাখা উচিত নয়। এতেও নেতিবাচক প্রভাব বাড়ে।

(২) অপরিচ্ছন্ন জায়গায়: ময়লা, আবর্জনার স্তুপ কিংবা অপরিস্কার জায়গায় তুলসী গাছ রাখা উচিত নয়। বাস্তুশাস্ত্র মতে তুলসীর যত্নে জেমন সুফল মেলে তেমনই তুলসীর অযত্নে ততটাই কুফল প্রাপ্তি ঘটে।

(৩) রাস্তার ধারে: রাস্তার ধারে বা দরজার পাশে কখনোই তুলসীর গাছ রাখবেন না। এতে পায়ের ধুলো ও জল পাবে তুলসী। ফলেস সেই বাড়ির উপর পড়তে পারে বিষ্ণুর রোষানল। বাড়িতে চরম ক্ষতি হতে পারে।

■ কোথায় তুলসী গাছ রাখবেন?

তুলসী গাছ সবসময় বাড়ির উত্তর দিকে রাখা উচিত। এতে বাড়িতে ইতিবাচক প্রভাব বৃদ্ধি পায়। সুখ ও সমৃদ্ধি বজায় থাকে পরিবারে। তবে উত্তর দিকে জায়গা না থাকলে সেক্ষেত্রে ছাদের উপর তুলসী রাখতে পারেন। তবে সরাসরি রোদ পেতে দেবেন না গাছটিকে। প্রতিদিন জল দিয়ে পরিচর্যা করুন। এতে বাড়ির উপর বিষ্ণুর কৃপা বজায় থাকবে।

 

Disclaimer: প্রতিবেদনটি তথ্য ও অনুমানের উপর লিখিত। বাস্তব জীবনে ব্যক্তিবিশেষে এর প্রভাব ভিন্ন হতে পারে।