Hoop News

School Rule: এই বয়সের আগে বাচ্চাকে ভর্তি করা যাবেনা স্কুলে! বিরাট ঘোষণা মমতা সরকারের

শিক্ষা হল জাতির মেরুদন্ড। তাই শিক্ষা যেমন সকলের অধিকার, তেমনই সকলের কাছে আবশ্যক একটি বিষয়। তাই ছাত্রছাত্রীরা হল দেশের ভবিষ্যৎ। দেশের শিল্প থেকে প্রযুক্তি, বিজ্ঞান থেকে গবেষণা, সবকিছুর আগামীর পথ তৈরি হয় পড়ুয়াদের মাধ্যমেই। তবুও এখনো আমাদের দেশের অনেক জায়গাতেই শিক্ষার আলোটুকু পৌঁছায় নি। কোথাও আবার শিক্ষার আলো পৌঁছালেও প্রবেশ করেনি উন্নত প্রযুক্তি ও পদ্ধতি। আর সেই কারণে রাজ্যের এমন সব এলাকাতেও শিক্ষার সবটুকু সুবিধা পৌঁছে দিতে উদ্যোগী হয়েছে পশ্চিমবঙ্গের রাজ্য সরকার।

আর সেই শিক্ষার প্রধান আলয় হল স্কুল। স্কুলকে শিক্ষার মন্দির বলে থাকেন অনেকেই। তাই শিশুর জন্মের পর তাকে পুষ্টিকর খাবার দেওয়ার পাশাপাশি থাকে সঠিক সময়ে স্কুলে পাঠানো অভিভাবকদের একান্ত কর্তব্য। তাই শিশুর কথা ফুটলেই এখন তাকে স্কুলে পাঠানোর তোড়জোড় শুরু হয়ে যায়। এক্ষেত্রে কেউ যেমন খুব ছোট্ট বয়স থেকে স্কুলের চৌহদ্দিতে পা রাখে, তেমনই আবার কেউ কেউ অনেক বয়স অবধি স্কুল বিমুখ থাকে। তবে এবার এই সমস্যার সমাধান খুঁজতে উদ্যোগী হল পশ্চিমবঙ্গের রাজ্য সরকার।

স্কুলে ভর্তি করার জন্য এবার থেকে বয়সসীমা বেঁধে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিচ্ছে মমতা সরকার। জানা গেছে, এবার থেকে এই নির্দিষ্ট বয়সের আগে স্কুলে ভর্তি করা যাবেনা। তাছাড়াও বয়স অনুযায়ী সেই শিশুর কোন শ্রেণীতে পড়া উচিৎ, তাও ঠিক করলো সরকার। তাই এবার থেকে শিশুকে স্কুলে পাঠাবর আগে সরকারের এই নিয়মটি অবশ্যই মনে রাখতে হবে সকলকে। সম্প্রতি, রাজ্যের শিক্ষা দফতরের তরফে একটি নোটিস জারি করা হয়েছে। এই নোটিসে দ্বিতীয় থেকে নবম শ্রেণি পর্যন্ত ভর্তির বয়সসীমা নির্ধারণ করা হয়েছে। একনজরে দেখে নিন সেই নির্দিষ্ট বয়সসীমার তালিকা।

● প্রথম শ্রেণি – ৬ থেকে ৭ বছর
● দ্বিতীয় শ্রেণি – ৭ থেকে ৮ বছর
● তৃতীয় শ্রেণি – ৮ থেকে ৯ বছর
● চতুর্থ শ্রেণি – ৯ থেকে ১০ বছর
● পঞ্চম শ্রেণি – ১০ থেকে ১১বছর
● ষষ্ঠ শ্রেণি – ১১ থেকে ১২ বছর
● সপ্তম শ্রেণি – ১২ থেকে ১৩ বছর
● অষ্টম শ্রেণি – ১৩ থেকে ১৪বছর