Hoop PlusBollywood

মৃত্যুর ছয় মাস পরেও সুশান্তের মামলা এগিয়ে কতদূর! অবশেষে মুখ খুললেন সিবিআই

Advertisements

১৪ জুন অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত মুম্বাইয়ের বান্দ্রার ফ্ল্যাটে আত্মঘাতী হন। অভিনেতার আত্মহত্যার পর পুরো পরিবার শোকে ভেঙে পড়েছেন। তাঁর মৃত্যুর পর থেকেই অভিনেতার পরিবারের সবাই ন্যায় বিচার চেয়ে এসেছেন মোদী সরকারের কাছে। অভিনেতার বাবা বার বার দাবি করেছেন, তার ছেলে কোনোভাবে সুইসাইড করতে পারেনা। তাকে খুন করা হয়েছে। এই মামলা খতিয়ে দেখা হোক। এরপরই শুরু হয় সিবিআই তদন্ত।

ভাইয়ের মৃত্যুর বিচারপর্বের আগে তাঁর দিদি শ্বেতা সিং কীর্তি নানা ক্যাম্পেনও শুরু করে দিয়েছেন। এই ক্যম্পেনের মূল উদ্দেশ্য হল, ভাইয়ের যে স্বপ্নগুলো অধরা ছিল,সেই ইচ্ছা পূরণ করা। তাঁর দিদি শ্বেতা ফের একবার প্রয়াত আদরের ভাইয়ের স্মৃতির উদ্দেশে শুরু করলেন নতুন সোশ্যাল মিডিয়া ক্যাম্পেন। এছাড়া সুশান্তের অনুরাগীরা সোশ্যাল মিডিয়ায় অভিনেতার নানান কাজ দিয়ে নিত্যদিন স্মরণ করেন কারণ তারা মনে করেন সুশান্তকে এই ভাবে ভোলা যাবেনা। নিত্যদিন তাই নানান ভাবে মনে করে থাকেন।

অভিনেতা নেই আমাদের মধ্যে। দেখতে দেখতে ৬ মাস অতিবাহিত হয়ে গিয়েছে। আজ বছরের শেষ দিন কিন্তু এখনো অভিনেতার মৃত্য জট খোলেনি৷ প্রথমে এই মামলা মহারাষ্ট্র সরকার দেখলেও এই মুহূর্তে মামলার তদন্ত ভার রয়েছে সিবিআই -এর হাতে। মামলাটি হাতে নেওয়ার ১৪৫ পর অবশেষে সুশান্ত মামলার গতিপ্রকৃতি নিয়ে মুখ খুললেন সিবিআই I তাঁরা জানান পুরো ঘটনাটি বেশ গুরুত্বের সঙ্গে খতিয়ে দেখা হচ্ছে। মামলার সঙ্গে যুক্ত কোনও ঘটনা ছেড়ে দেওয়া হবেনা বলে জানাল কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা।

প্রসঙ্গত, সুশান্তের মৃত্যুর পর বলিউডে মাদক কারবার নিয়ে সামনে আসে। আর সেখান থেকেই সুশান্ত বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তী ও তাঁর ভাইকে গ্রেপ্তার করা হয়। ২৮ দিন জেলে থাকার পর অভিনেত্রী রিয়া জামিন পান। এছাড়া এই মামলার তদন্তে সিবিআই জানিয়েছে, তথ্য বিশ্লেষণের জন্য নাকি উন্নত মানের ফরেন্সিক সরঞ্জাম ব্যবহার করা হচ্ছে বলে। এই মামলা তদন্তের সিবিআই টিমের নেতৃত্বে থাকা নূপুর প্রসাদের চিঠি এবার নিজের টুইটে তুলে ধরেছেন রাজ্যসভার সাংসদ বিজেপি নেতা সুব্রহ্মণ্যম স্বামী।  তিনি জানান, “সিবিআই বৈজ্ঞানিক কৌশল ব্যবহার করে নিখুঁত ও পেশাদারিত্বের সঙ্গে তদন্ত চালাচ্ছে। এই তদন্তের সময় , সমস্ত দিক অনুসন্ধান করা হচ্ছে এবং এখনও কোনও দিকই খারিজ করা হয়নি।” এদিকে গত অক্টোবরে AIIMS-এর রিপোর্ট প্রকাশ্যে আসতে জানা যায়, সুশান্তকে খুন করা হয়নি, তিনি আত্মহত্যা করছেন। তাহলে নতুন বছরে কি এই খুনের জট খুলবে? নাকি এটি রহস্যই থেকে যাবে।