Finance News

DA Update: বছর শেষে মন ভাঙার খবর সরকারি কর্মীদের জন্য, ডিএ বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত থেকে সরে এলো সরকার

দেশের কেন্দ্র ও বিভিন্ন রাজ্য সরকারের অধীনস্থ একাধিক সেক্টরে লক্ষাধিক কর্মী নিযুক্ত আছেন। আর সরকার সেক্টর অনুযায়ী বেতনের পাশাপাশি আরো একাধিক ভাতা প্রদান করে থাকে কর্মীদের। আর সেইসব ভাতার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল মহার্ঘভাতা বা DA। কেন্দ্রের বেতন কমিশন অনুযায়ী এই ভাতা পরিবর্তিত হয়। আর কেন্দ্রের দেখানো এই পথেই দেশের সমস্ত রাজ্যও হাঁটে। অর্থাৎ কেন্দ্র সরকারের মতোই একইভাবে রাজ্য সরকারি কর্মীদের DA পরিবর্তন করে দেশের রাজ্যগুলি।

চলতি বছরের শুরুতেই কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীদের জন্য এসেছিল বড়সড় সুখবর। বছরের শুরুতে ও বছরের মাঝামাঝি সময়ে খুশির জোয়ারে ভেসেছিলেন এইসব কর্মচারীরা। কারণ জানুয়ারিতেই কেন্দ্র সরকারের কর্মীদের মহার্ঘভাতা ৪ শতাংশ হারে বেড়েছিল। ফলে একলাফে ৩৮ শতাংশ থেকে বেড়ে সেটি হয়েছিল ৪২ শতাংশ। তারপর বছরের দ্বিতীয় মহার্ঘভাতা বৃদ্ধি পায় ৩ শতাংশ হারে। জুলেই থেকে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের ডিএ বেড়ে হয় ৪৫ শতাংশ। আবার নতুন বছরে তাদের ডিএ বৃদ্ধির সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানা যাচ্ছে।

তবে নতুন বছর শুরুর আগেই খারাপ খবর এল রাজ্য সরকারের অধীনস্থ একটি বিশেষ দফতরের কর্মীদের জন্য। এবার কেরালার বিদ্যুৎ দফতরের কর্মীদের ডিএ বৃদ্ধি নিয়ে যা সিদ্ধান্ত নেওয়া হল, তাতে মোটেই খুশি হবেন না তারা কেউই। কারণ সেই রাজ্যের বিদ্যুৎ দফতরের আর্থিক অবস্থা খারাপ হওয়ার কারণে সেই দফতরে কর্মরত কর্মীদের ডিএ বৃদ্ধি স্থগিত রাখা হল। সম্প্রতি, কেরল রাজ্য বিদ্যুৎ বণ্টন বোর্ড জানিয়েছে যে এই আবহে কর্মচারী এবং পেনশনভোগীদের ডিএ এবং ডিআর বাড়বে না। এছাড়াও গত বছর থেকে তিন দফায় যে গ্র্যাচুইটি ও ভাতা দেওয়া হয় কর্মীদের, তা এবার হবে না।

প্রসঙ্গত, এর আগে ২০২১ সালেই শেষবার কেরল বিদ্যুৎ বণ্টন বোর্ডের কর্মীদের বেতন বৃদ্ধি ঘটেছিল। সেই সময় একলাফে অনেকটা বেড়েছিল তাদের বেতন। তবে এবছর কিন্তু তেমনটা ঘটছে না। কারণ সরকার সাফ জানিয়ে দিয়েছেন যে গত জানুয়ারি, জুলাই, চলতি বছরের জানুয়ারির মহার্ঘ ভাতা বৃদ্ধি এবং গ্র্যাচুইটি থেকে কর্মীরা বঞ্চিত হবেন। তাই বছর শেষে এই খবরে যে মন ভাঙতে পারে কেরালার বিদ্যুৎ দফতরের কর্মীদের, তা ফলাও করে বলাই যায়।