whatsapp channel

Vastu Tips: প্রতিদিন ঝাড়ু দেওয়ার সময়ে করুন এই ছোট্ট কাজ, সংসারে সর্বদা বজায় থাকবে সুখ সমৃদ্ধি

বাস্তুশাস্ত্রে (Vastu) প্রতিটি জিনিসেরই ইতিবাচক এবং নেতিবাচক দিকের ব্যাপারে উল্লেখ করা হয়েছে। বাস্তুশাস্ত্র মতে, অনেক জিনিসের মধ্যেই নানান গুণ থাকে, যেগুলি সংসারের জন্য কখনো শুভ কখনো আবার অশুভ প্রভাব ডেকে…

Avatar

Nirajana Nag

বাস্তুশাস্ত্রে (Vastu) প্রতিটি জিনিসেরই ইতিবাচক এবং নেতিবাচক দিকের ব্যাপারে উল্লেখ করা হয়েছে। বাস্তুশাস্ত্র মতে, অনেক জিনিসের মধ্যেই নানান গুণ থাকে, যেগুলি সংসারের জন্য কখনো শুভ কখনো আবার অশুভ প্রভাব ডেকে আনে। প্রত্যেক বাড়িতে একাধিক প্রয়োজনে ঝাঁটা (Broomstick) রাখা হয়ে থাকে। কিন্তু জানলে অবাক হবেন, বাস্তু শাস্ত্রে ঝাঁটার গুরুত্বের কথাও বলা হয়েছে। ঝাড়ু সংক্রান্ত কিছু বিষয় মাথায় রাখলে সংসারে যেমন ইতিবাচক প্রভাব পড়বে, তেমনি অনেক সমস্যা থেকেও মুক্তি পাওয়া যাবে।

বাস্তুশাস্ত্রে ঝাড়ু সংক্রান্ত বেশ কিছু নিয়মের উল্লেখ রয়েছে। বিশেষজ্ঞরা বলেন, ঝাড়ু নিয়ে কিছু প্রতিকার করলে এবং কিছু নিয়ম মেনে চললে অনেক সমস্যার সমাধান হয়। এমনকি স্বাস্থ্য সংক্রান্ত সমস্যার সমাধানও হয়। মানসিক চাপ থেকে মুক্তি পাওয়া যায় কিছু নিয়ম মেনে চললে। জ্যোতিষ মতে, স্বাস্থ্য সম্পর্কিত সমস্যা থাকলে সকালে ঝাড়ু দেওয়ার সময়ে মায়ের ভক্তির কথা চিন্তা করা উচিত মনে মনে। তবে ঝাড়ু দেওয়ার সময়ে মনে রাখতে হবে, পায়ের নীচে যেন ঝাড়ু না থাকে। এই প্রতিকার করলে স্বাস্থ্য সংক্রান্ত সমস্যা দূর হয়। পাশাপাশি সংসারে সুখ সমৃদ্ধির দেখাও মিলবে।

Vastu Tips: প্রতিদিন ঝাড়ু দেওয়ার সময়ে করুন এই ছোট্ট কাজ, সংসারে সর্বদা বজায় থাকবে সুখ সমৃদ্ধি

মানসিক চাপের সমস্যা থাকলে ঝাড়ু দেওয়ার সমস্যায় দিকের বিশেষ নজর রাখতে হবে। ঝাড়ু দেওয়া হয়ে গেলে দক্ষিণ বা পশ্চিম দিকের মাঝখানে রাখতে হবে ঝাড়ু। বাস্তু মতে এভাবে মানসিক চাপ দূর করা সম্ভব। বাস্তুশাস্ত্রে আরো বলা হয়েছে, ভাঙা ঝাড়ু কখনোই ব্যবহার করা উচিত নয়।

বাস্তুশাস্ত্র বলে, ঝাড়ু কখনোই দাঁড় করিয়ে রাখা উচিত নয়। ঝাড়ু সবসময় মেঝেতে শুইয়ে রাখতে হয়। মনে করা হয়, এতে দেবী লক্ষ্মীর আশীর্বাদ বজায় থাকে সংসারে। আর্থিক সঙ্কট থেকেও মুক্তি পাওয়া যায়। বাস্তুশাস্ত্রে আরো বলা হয়, শনিবার নতুন ঝাড়ু কেনা শুভ। জীবন থেকে অনেক সমস্যাই দূর হয় এতে।

Disclaimer: বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ এবং মতামতের ভিত্তিতে লেখা হয়েছে প্রতিবেদনটি। ব্যক্তিবিশেষে এর ফল হতে পারে ভিন্ন।

Avatar

আমি নীরাজনা নাগ। HoopHaap-এর একজন সাংবাদিক। বিগত চার বছর ধরে এই পেশার সঙ্গে যুক্ত রয়েছি। নিজের লেখার মাধ্যমে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাঠকদের কাছে পৌঁছে দিতে চাই