whatsapp channel

একনজরে দেখে নিন আজ রাজ্যে সোনা রুপোর দাম

২০২০ সালে করোনার জন্য সারা পৃথিবীর অর্থনীতিতে বেশ ভালোরকম প্রভাব পড়েছিল। এখন ২০২১ সালের মার্চ মাস। করোনা এখনো আছে তবে ভ্যাক্সিন বেরিয়ে গিয়েছে। গত অগাস্ট মাস থেকে এই মার্চ মাসে…

Avatar

HoopHaap Digital Media

২০২০ সালে করোনার জন্য সারা পৃথিবীর অর্থনীতিতে বেশ ভালোরকম প্রভাব পড়েছিল। এখন ২০২১ সালের মার্চ মাস। করোনা এখনো আছে তবে ভ্যাক্সিন বেরিয়ে গিয়েছে। গত অগাস্ট মাস থেকে এই মার্চ মাসে সোনার দাম প্রায় ১১ হাজার টাকা কমেছে। গত বছর করোনার প্রভাবে সময় সোনার দাম প্রতি দশ গ্রামে ৫৭,০০৮ টাকা পর্যন্ত পৌঁছে গিয়েছিল। গত সপ্তাহের পুরো সময় জুড়েই সোনার দাম ওঠা-নামা করেছিল। আন্তর্জাতিক মূল্যের জন্যই ভারতে সোনা রুপোর এই ওঠা-নামা। সোনার দাম কর ও শুল্ক ও বিভিন্ন গহনার দোকানে মেকিং চার্জের কারণে বিভিন্ন রাজ্যে হেরফের হয়।

নতুন বছর পড়তেই ২২ ক্যারেট সোনার দাম ৫০ হাজার টাকা থেকে অনেকটা কমায় সারা দেশজুড়েই কেনাকাটা ও চাহিদা বেড়েছে। আর সোনার দাম দিন দিন কমাতে বাঙালি হৃদয় একটু হলেও স্বস্তি হয়েছে। এখন সোনার দোকানের বিক্রেতারা বলছেন সাধারণ মানুষ এই দামে বেশ খুশি। বাড়ির মেয়ের বিয়ের জন্য মনের মতো সোনার গহনা বানাচ্ছেন। সমগ্র মার্চ মাস জুড়েই সোনা ও রূপোর দামে ওঠা-নামা থাকবে বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। চৈত্র মাসে বিয়ে না হলেও সামনে বৈশাখ মাস আর সেই সময় বাঙালির বিয়ের মরসুম। অনেকেই এই চৈত্র মাস থেকে গয়না কিনে রাখার পরিকল্পনা করে রাখছেন।

বিশ্ব বাজারে এখন সোনা বেশ দুর্বল। তার রেশ ধরে টানা তিনদিন ভারতীয় বাজারে সেভাবে জোর পেল না হলুদ ধাতু। চৈত্র মাসে প্রথম থেকে সোনার দাম বেশ কম থাকলেও মঙ্গলবার এমসিএক্স সূচকে ১০ গ্রাম সোনার দাম মাত্র ০.১ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪৬,৪৬৪ টাকা। গত দু’দিন অবশ্য কমেছিল সোনার দাম বেশ কমই ছিল। অন্যদিকে এক কিলোগ্রাম রুপোর দাম ও ০.২ শতাংশ বেড়ে হয়েছে ৬৬,৩০০ টাকা।

বিশ্ব বাজারে পড়েছে হলুদ ধাতুর দর। এক আউন্স স্পট গোল্ডের দাম ০.৩ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ১,৭২৮.১৫ ডলার। অন্যান্য মূল্যবান ধাতুর মধ্যে দাম পড়েছে রুপো এবং হিরে। ১৩ই এপ্রিল কলকাতায় মঙ্গলবার সোনার দাম ২২ ক্যারেট সোনার দাম ৪৫,৮৬০ টাকা আর ২৪ ক্যারেটে ৪৮,৫৬০ টাকা হয়েছে। আগের বছরের তুলনায় অনেকটাই সোনার দাম কম আছে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

Avatar

Leave a Comment