whatsapp channel

Kajol: পূজামণ্ডপে দুর্ঘটনার শিকার হলেন কাজল, ভাইরাল হয়ে গেল ভিডিও

পুজো (Durga Puja) আসছে, পুজো আসছে করতে করতে চলে এলো মহানবমী। আর এক দিন পরেই এই বিরাট উৎসবের পরিসমাপ্তি ঘটবে। কলকাতার পাশাপাশি স্বপ্ন নগরী মুম্বইতেও ধুমধাম করে পুজো সম্পন্ন হয়।…

Avatar

Nirajana Nag

পুজো (Durga Puja) আসছে, পুজো আসছে করতে করতে চলে এলো মহানবমী। আর এক দিন পরেই এই বিরাট উৎসবের পরিসমাপ্তি ঘটবে। কলকাতার পাশাপাশি স্বপ্ন নগরী মুম্বইতেও ধুমধাম করে পুজো সম্পন্ন হয়। আসলে বলিউডে বাঙালির সংখ্যা কম নেই। অভিনেতা অভিনেত্রী অর্থাৎ অভিনয় জগতের সঙ্গে যুক্ত ক্যামেরার সামনের মানুষজন যেমন রয়েছে, তেমনি আছে ক্যামেরার পেছনের লোকজন এবং গায়ক গায়িকা রাও। প্রতি বছরই বেশ ধুমধাম করে মুম্বইতে পুজো হয়। এখানকার জনপ্রিয় পুজো গুলির মধ্যে অন্যতম তনুজা, কুমার শানু, অভিজিৎ ভট্টাচার্যের পুজো। কিন্তু এ বছরের পুজোয় বড় বিপদ এড়ালেন কাজল (Kajol)।

কাজলের মা তনুজা বহু বছর ধরেই বলিউডে দুর্গাপুজো করে আসছেন। এই পুজো উপলক্ষে লাখ লাখ মানুষের সমাগম হয় এখানে। কাজল এবং তাঁর বোন তনিশা মুখার্জিও এই পুজোয় যোগ দেন একেবারে ঘরের মেয়ে হিসেবে। তারকা তকমা ঝেড়ে ফেলে এই কদিন বাড়ির পুজোয় হাত লাগান তাঁরা। সাধারণ মানুষদের জন্য ভোগ পরিবেশন থেকে শুরু করে পুজোর সব দায় দায়িত্ব সামলান নিজেরাই। কিন্তু এই করতে গিয়ে হঠাৎ বড়সড় বিপদে পড়লেন কাজল।

সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও বেশ ভাইরাল হয়েছে। সেখানে দেখা যায়, পুজোর মণ্ডপে হাতে ফোনের দিকে তাকিয়ে কাজ করতে করতে হাঁটছেন কাজল। অন্যমনস্ক থাকায় এবং চোখ ফোনের দিকে থাকায় পায়ের দিকে লক্ষ্য করেননা তিনি। হঠাৎ করেই মঞ্চ থেকে পড়ে গিয়ে বড় চোট লাগিয়ে বসতেন তিনি। তবে ভাগ্যক্রমে সেখানে উপস্থিত থাকা লোকজন ধরে ফেলেন তাঁকে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যাওয়া এই ভিডিওটি দেখে অনেকেই নানান মন্তব্য করছেন। একজন লিখেছেন, খুব বড় বিপদ ঘটতে পারত। ভাগ্যক্রমে বেঁচে গিয়েছেন কাজল। আর একজন আবার লিখেছেন, এর আগেও এভাবে পড়ে গিয়েছিলেন কাজল। মোটেই সতর্ক থাকেন না তিনি। এবারে তাঁর সাবধানে থাকা উচিত বলে মন্তব্য করেছেন অনেকেই

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Viral Bhayani (@viralbhayani)

Avatar

আমি নীরাজনা নাগ। HoopHaap-এর একজন সাংবাদিক। বিগত চার বছর ধরে এই পেশার সঙ্গে যুক্ত রয়েছি। নিজের লেখার মাধ্যমে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাঠকদের কাছে পৌঁছে দিতে চাই