Hoop Life

Lifestyle: দাঁতের মাঝে ফাঁক নিয়ে চিন্তিত! জানেন কি এখানেই লুকিয়ে আছে আপনার ভাগ্যের চাকা

মুখের শ্রী লুকিয়ে থাকে দাঁতের গঠনে- অনেকেই মুখমণ্ডলের সৌন্দর্য নিয়ে এমন মত পোষণ করে থাকেন। তাই অনেকের দাঁত উঁচু বা নিচু হলে সকলের সামনে আসতে কুণ্ঠাবোধ করেন। অনেকেরই আবার দাঁতের ফাঁক থাকে। এই নিয়েও লজ্জিত থাকেন তারা। কলেজ, অফিস বা বন্ধুমহলে হাসি পেলেও মন খুলে হাসতে পারেন না তারা। তবে এবার এই ভাবনায় বদলের দিন এসে গেছে। দাঁতের মাঝের শূন্যতায় লুকিয়ে রয়েছে ভাগ্যের চাকা, এমনটাই উল্লেখিত রয়েছে সমুদ্রশাস্ত্রে। সমুদ্রশাস্ত্র মতে, যাদের দাঁতের মাঝে ফাঁকা থাকে, তারা নাকি জীবনে অনেক ভাগ্যবান/ভাগ্যবতী হয়ে থাকেন। এইসব মানুষদের ভবিষ্যৎ নিয়েও লেখা আছে সমুদ্রশাস্ত্রে। দাঁতের ফাঁকে ভাগ্যের বদল কিভাবে হয়? দেখুন বিস্তারিত।

(১) বুদ্ধির প্রখরতা: সমুদ্র শাস্ত্র মতে যাদের দাঁতের মধ্যে ফাঁক আছে, তারা খুবই বুদ্ধিমান/বুদ্ধিমতী হয়ে থাকেন। জীবনে পদে পদে তারা নিজেদের বুদ্ধিমত্তার ছাপ ছেড়ে যান। তাই দাঁতের ফাঁক নিয়ে উদ্বিগ্ন হতে বারণ করা হয়েছে সমুদ্র শাস্ত্রে।

(২) সফলতা: সমুদ্র শাস্ত্রে বলা আছে যে যাদের দাঁতের মাঝে ফাঁক রয়েছে, তারা জীবনের সবদিক থেকেই সফলতাকে ছুঁয়ে দেখেন। শিক্ষাক্ষেত্র থেকে কর্মক্ষেত্র, সব দিকেই সফলতা তাদের পদচুম্বন করে।এই ধরনের লোকেরা খুব প্রাণবন্ত হন। সহজে হাল ছেড়ে দেন না। তাঁরা জানেন কীভাবে কঠিন লড়াই জিততে হয়।

(৩) শারীরিক সক্ষমতা: সমুদ্র শাস্ত্র মতে, যেসব মানুষের দাঁতের মাঝে ফাঁকা থাকে, তারা শারীরিকভাবে সক্ষম হন। অনেক কাজ করার ক্ষমতা থাকে তাদের। সহজেই ক্লান্তি বা অক্ষমতা তাদের স্পর্শ করতে পারে না।

(৪) উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ: ভবিষ্যৎ নিয়ে সকলেরই চিন্তা থাকে মনের মধ্যে। তবে সমুদ্রশাস্ত্রে বলা আছে, যাদের দাঁতের মাঝে ফাঁকা থাকে, তাদের ভবিষ্যৎ খুবই উজ্জ্বল হয়। এইসব মানুষরা খুবই বিচক্ষণ হয়ে থাকেন।

প্রসঙ্গত, সমুদ্রশাস্ত্র হল এমনই এক প্রাচীন শাস্ত্র, যার চর্চা হয়ে আসছে আজও। এই বিশেষ শাস্ত্রে মানুষের দেহের নানান অঙ্গ সম্পর্কে নানা কথা বলা হয়েছে। এই শাস্ত্রে নানান অঙ্গের আকার ও আকৃতি নিয়ে নানান তথ্যও উপলব্ধ রয়েছে।

Disclaimer: প্রতিবেদনটি সম্পূর্ন তথ্যভিত্তিক। যেকোনো সমস্যায় আগে বিশেষজ্ঞর পরামর্শ নিন।