whatsapp channel

Mamata Banerjee: ‘ভুল কিছু বললেই শুরু হয়ে যায়’, দিদি নাম্বার ওয়ানে ট্রোলিং নিয়ে নালিশ মুখ্যমন্ত্রীর

রবিবার আক্ষরিক অর্থেই গোটা বাংলার নজর ছিল জি বাংলার পর্দায়। কারণ এদিন প্রথম বার কোনো নন ফিকশন শোতে হাজির মন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। এদিন নিজের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে…

Avatar

Nirajana Nag

রবিবার আক্ষরিক অর্থেই গোটা বাংলার নজর ছিল জি বাংলার পর্দায়। কারণ এদিন প্রথম বার কোনো নন ফিকশন শোতে হাজির মন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। এদিন নিজের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে বহু অজানা কথা শেয়ার করুন মুখ্যমন্ত্রী! সেই সঙ্গে মুখ খোলেন সোশ্যাল মিডিয়ার ট্রোলিং এর ব্যাপারেও।

নেট দুনিয়ায় ট্রোলিং এর হাত থেকে রেহাই নেই কারোরই। এমনকি স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়েরও নয়। এদিন তিনি বলেন, রাজনীতির সঙ্গে তাঁর যোগ অনেক ছোটবেলা থেকে। তবে তাঁর রাজনীতি এখনকার রাজনীতির মতো নয়। তিনি রাজনীতির মধ্যে দিয়ে মানুষের উপকার করতে চান। সব জায়গাতেই খারাপ ভালো মিশিয়ে লোক আছে। ভালোটা বেছে নিতে হবে। এরপরেই তিনি বলেন, মানুষ ভালো থাকলেই তিনি ভালো থাকেন। কিন্তু যেভাবে কুৎসা, অপপ্রচার চালানো হচ্ছে তাতে নিজেদের সংস্কৃতি নষ্ট হচ্ছে।

ট্রোলিং নিয়ে এদিন স্পষ্ট কথা বলতে শোনা যায় মুখ্যমন্ত্রীকে। তিনি বলেন, অজান্তে তাঁর মুখ দিয়ে একটি ভুল কথা বেরিয়ে গেলে সোশ্যাল মিডিয়ায় যা চলে সেটা তাঁর পছন্দ নয়। সোশ্যাল মিডিয়ায় সবটা সত্যি হয় না। তিনি আরো বলেন, কেউ বয়স জিজ্ঞাসা করলে তাঁর খারাপ লাগে। বয়স দিয়ে কী হবে? মন ভালো থাকলেই মাথা ভালো থাকবে। নিজের ছোটবেলার অনেক অজানা গল্পও এদিন শেয়ার করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। জানান, কীভাবে তাঁর জন্মদিন ভুল প্রচার হয়েছে। ছোট থেকে স্ট্রাগলের কথাও জানান তিনি।

তাঁকে বলতে শোনা যায়, অনেক ছোটবেলায় বাবাকে হারিয়ে ছিলেন তিনি। গোটা সংসারের দায়িত্ব এসে পড়েছিল তাঁর কাঁধে। মুখ্যমন্ত্রী জানান, তখন তাঁর বয়স মাত্র ১০-১১ বছর। রাত তিনটের সময়ে উঠে রান্নাবান্না সেরে রেখে তারপর স্কুলে যেতেন তিনি। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় খানিক আক্ষেপ করেই বলেন, ‘আমার ছোটবেলাটা হারিয়ে গিয়েছে’। উল্লেখ্য, গত ২১ ফেব্রুয়ারি হাওড়ার ডুমুরজলা স্টেডিয়ামে শুটিং হয় দিদি নাম্বার ওয়ান শোয়ের এই বিশেষ পর্বের। শোয়ের এই বিশেষ পর্বে এদিন দেখা মিলেছে ডোনা গঙ্গোপাধ্যায়, শ্রীরাধা বন্দ্যোপাধ্যায়, অরুন্ধতী হোমচৌধুরীর। এছাড়াও এসেছিলেন মন্ত্রী ইন্দ্রনীল সেন, রূপঙ্কর বাগচী, অদিতি মুন্সি প্রমুখ।

Avatar

আমি নীরাজনা নাগ। HoopHaap-এর একজন সাংবাদিক। বিগত চার বছর ধরে এই পেশার সঙ্গে যুক্ত রয়েছি। নিজের লেখার মাধ্যমে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাঠকদের কাছে পৌঁছে দিতে চাই