Hoop PlusTollywood

Mimi Chakraborty: দাবায় কোণঠাসা রানি কি হাল ছেড়ে দেয়? উত্তর দেবেন মিমি

‘যাহা বলিব সত্য বলিব’, আদালতে দাঁড়িয়ে বারবার ধর্মগ্রন্থ ছুঁয়ে এই কথা বলার পর ঘটে যায় বিভিন্ন অঘটন। কিন্তু এই অঘটনের ফলে সবচেয়ে বেশি সমস্যার সম্মুখীন হয় সমাজ। তা সরৈর্ব সত্য। কিন্তু এই সত্যের ঝড়ে নারীর অস্তিত্ব রক্ষা কঠিন হয়ে পড়ে। সত্য ঘটনা অবলম্বনে তৈরি ওয়েব সিরিজ ‘যাহা বলিব সত্য বলিব’-র ঘোষণা হয়ে গিয়েছিল হইচই-এর জন্মদিনে। এবার মুক্তি পেল ‘যাহা বলেন সত্য বলিব’-র টিজার। সপ্তাহান্তের শনিবারকে টার্গেট করা হয়েছিল টিজার মুক্তির জন্য। অবশ্যই তা ছিল হইচই-এর বিশেষ ছক যাতে বাড়ে টিজারের ভিউ।

‘যাহা বলিব সত্য বলিব’-য় মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করছেন মিমি চক্রবর্তী (Mimi Chakraborty), টোটা রায়চৌধুরী (Tota Roychowdhury)। ওয়েব সিরিজটি পরিচালনা করেছেন চন্দ্রাশিস রায় (Chandrashish Roy)। ওয়েব সিরিজের প্রেক্ষাপট 2007 সালের কলকাতা। বছরের শেষ দিন অর্থাৎ 31 শে ডিসেম্বরের হিমেল সময়। শুরু হয়নি স্মার্টফোনের যুগ। সোশ্যাল মিডিয়ার রমরমাও নেই অন্তর্জাল জুড়ে। সেই সময়ে পৌঁছে ট্রেলারের শুরুতে দেখা যায়, একজন পুলিশ কর্মী তাঁর স্ত্রীকে নিয়ে বাইকে চড়ে একটি আধো অন্ধকার রাস্তা দিয়ে পৌঁছে যান মূল রাস্তায়। কিন্তু আধো অন্ধকার গলিতে এক কালো-হলুদ ট‍্যাক্সিতে তাঁর কিছু পুলিশ সহকর্মী ওই ব্যক্তির স্ত্রীকে কটুক্তি করতে থাকে।

একসময় বাইকটি অনুসরণ করে তারাও এসে পৌঁছে যায় মূল রাস্তায়। বাইক থেকে টেনে নামিয়ে মারধোর করে মহিলার পুলিশে চাকরি করা স্বামীকে। সকাল হতেই মিডিয়ায় ছড়িয়ে যায় এই খবর। ওই পুলিশ কর্মীর তরফে কেস লড়তে এগিয়ে আসে নব্য মহিলা অ্যাডভোকেট পৃথা। কিন্তু তার প্রতি সকলে একশো শতাংশ বিশ্বাস দেখাতে পারে না। এমনকি তার সহকর্মীরাও পৃথাকে বলে, তার বিপরীতে যিনি রয়েছেন তাঁর সাথে নাও পেরে উঠতে পারে পৃথা। ভদ্রলোকের নাম জয়রাজ সিনহা। তুখোড় আইনজীবী জয়রাজ নিজেকে মনে করেন তিনি ‘সিংহ’।

জয়রাজের অগাধ আত্মবিশ্বাস যেন পুরুষতন্ত্রের প্রতি সমাজের আস্থার প্রতীক। বিপরীতে নারী সৃষ্টিকর্ত্রী হলেও বারবার চিড় খেয়ে যাওয়া মাতৃতন্ত্রের প্রতীক পৃথা। সে নিজের আদর্শের জন্য লড়াই করতে পিছপা হয়না। টিজারের ট‍্যাগলাইন, দাবায় কোণঠাসা হয়ে গেলে রানি কি হাল ছেড়ে দেয়? প্রশ্নের উত্তর মিলবে আগামী বছরের জানুয়ারি মাসে। হইচই-এ স্ট্রিম হবে ‘যাহা বলিব সত্য বলিব’। তবে উত্তর তো চিরন্তন। না, রানি হাল ছাড়ে না। মোড় ঘুরিয়ে দেয়।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Hoichoi (@hoichoi.tv)