Hoop PlusTollywood

Mithun Chakraborty: কলকাতার বুকে ব্রাত্য হলেও সাংহাই থেকে সম্মানিত হলেন মিঠুন চক্রবর্তী!

মিঠুন চক্রবর্তী (Mithun Chakraborty) হলেন এমন একজন অভিনেতা, যিনি বলিউড থেকে টলিউড, গোটা দেশ কাঁপিয়েছেন। কারো কাছে তিনি ‘মহাগুরু’, আবার কেউ তাকে ‘ডিস্কো ডান্সার’ বলেই চেনেন। সিলভার স্ক্রিনের জীবনে চরম সফল এই বাঙালি অভিনেতা। বাস্তব জীবনেও সফলতা তার পদচুম্বন করে। তবে বেশ কয়েকবছর আগে সক্রিয় রাজনীতিতে যোগ দিয়েছেন তিনি। আর সেই রাজনৈতিক রং থেকেই এবার প্রভাব পড়ল তার ফিল্মি কেরিয়ারে। কলকাতার নন্দনে জায়গা পেল না তার অভিনীত বাংলা ছবি ‘প্রজাপতি’, তিনি নিজে ডাক পেলেন না কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে। কিন্তু এই বিষয়ে তাঁর অনুভূতি কি? নিজের শহরে থেকে এই অবহেলা ‘মহাগুরু’র কেমন লাগে?

সম্প্রতি এক সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে অভিনেতা এইসব প্রসঙ্গে জোরগলায় তার মনের ক্ষোভ উগড়ে দেন। কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ডাক না পাওয়ার বিষয়ে অভিনেতা জানান যে এই বিষয়টি তার কাছে এতটা গুরুত্বপূর্ণ নয়। এছাড়াও তিনি জানান যে সেই সময় তিনি কলকাতায় আমন্ত্রণ না পেলেও সাংহাই-থেকে তার জন্য ডাক এসেছিল। তবে শুধু আমন্ত্রণ নয়, সাংহাই ইন্টারন্যাশনাল ফেস্টিভ্যাল নাকি তাকে ‘গেস্ট অফ অনার’ সম্মান দিতেও চেয়েছিল। তবে কাজের কারণে তিনি নাকি সেখানেও উপস্থিত হতে পারেননি। তাই এইসব বিষয় তার কাছে এতটাও গুরুত্বপূর্ণ নয় বলে জানান মহাগুরু।

এছাড়াও এই সাক্ষাৎকারে তাকে যখন বঙ্গসন্তান এবং তার আবেগের কথা মনে করিয়ে দেওয়া হয়, তখন তিনি এই অনুষ্ঠানের চিঠি দেখিয়ে বলেন যে ১৯৮৫ সালে তাকে ‘দ্য অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটি মজলিশ এশিয়া সোসাইটি’ থেকে সম্মানিত করা হয়। এছাড়াও তিনি জানান যে এর আরো একটি ভাগ আছে, যেটি ইউরোপিয়ান সোসাইটি মজলিশ। আর সেই বছরই সেখান থেকে ফুটবল তারকা মারাদোনাকে সম্মানিত করা হয়। মিঠুন এও বলেন যে এখানে টাকা দিয়ে কেউ সম্মান পায়না।

প্রসঙ্গত, নন্দনে জায়গা না পেলেও বক্স অফিসে বেশ সাড়া জাগিয়েছে তার অভিনীত ছবি ‘প্রজাপতি’। একের পর এক রেকর্ড ভেঙেছে ছবিটি। পেয়েছে একাধিক সম্মানও। তাই এটা স্পষ্ট যে রাজনৈতিক বিতর্কের পাঁচিল টপকে ‘প্রজাপতি’ এখন উড়ছে দর্শকদের দরবারে।