Finance News

Kishan Samman Nidhi: শীঘ্রই অ্যাকাউন্টে ঢুকবে লক্ষ্মীর ভান্ডারের থেকেও বেশি টাকা, বিরাট প্রকল্প মোদীর

Advertisements

এই নিয়ে তৃতীয় বার দেশের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi)। বিজেপি এবার সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করতে পারেনি ঠিকই, তবে জোট সঙ্গীদের নিয়ে সরকার গঠন করেছে এনডিএ। রবিবার, ৯ জুন রাষ্ট্রপতি ভবনে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন নরেন্দ্র মোদী। আর তারপরেই নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে প্রথম সিদ্ধান্তটি নিয়েছেন তিনি। কিষান সম্মান নিধি (PM Kishan Samman Nidhi) সংক্রান্ত ফাইলে স্বাক্ষর করেছেন মোদী।

প্রধানমন্ত্রী হিসেবে প্রথম সিদ্ধান্ত

কেন্দ্রীয় সরকারের যেকটি প্রকল্প চালু রয়েছে তার মধ্যে অন্যতম কিষান সম্মান নিধি প্রকল্প। এই সরকারি প্রকল্পের মাধ্যমে দেশের কৃষকরা আর্থিক ভাবে উপকৃত হয়ে থাকেন। প্রধানমন্ত্রী হিসেবে প্রথম সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মোদী। কিষান সম্মান নিধি ফাইলে স্বাক্ষর করে এই প্রকল্পের ১৭ তম কিস্তি পাশ করেছেন তিনি, যার জন্য এবার দেশের প্রায় ৯.৩ কোটি কৃষকের অ্যাকাউন্টে এই প্রকল্পের পরবর্তী কিস্তির টাকা ঢুকবে।

Kishan Samman Nidhi: শীঘ্রই অ্যাকাউন্টে ঢুকবে লক্ষ্মীর ভান্ডারের থেকেও বেশি টাকা, বিরাট প্রকল্প মোদীর

কী এই কিষান সম্মান নিধি

২০১৯ সালে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে শুরু করা হয়েছিল এই প্রধানমন্ত্রী কিষান নিধি প্রকল্প। এই প্রকল্পের আওতায় এখনও পর্যন্ত লক্ষ লক্ষ কৃষক নাম নথিভুক্ত করেছেন এবং আর্থিক সাহায্য পেয়ে লাভবান হচ্ছেন। এই প্রকল্পের অধীনে উপভোক্তারা প্রতি বছর ৬০০০ টাকা করে পেয়ে থাকেন যা সরাসরি দেওয়া হয় তাদের নামে রেজিস্টার্ড ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে। বছরে তিনটি কিস্তিতে ২ হাজার টাকা করে দেওয়া হয়ে থাকে। প্রথম কিস্তি ঢোকে এপ্রিল থেকে জুন মাসের মধ্যে। দ্বিতীয় কিস্তির টাকা ঢোকে অগাস্ট থেকে নভেম্বর মাসের মধ্যে আর তৃতীয় কিস্তির টাকা ঢোকে ডিসেম্বর থেকে পরের বছর মার্চ মাসের মধ্যে।

কৃষকদের জন্য উদ্যোগ মোদীর

এই প্রকল্পের শেষ কিস্তি অর্থাৎ ১৬ তম কিস্তি ঢুকেছিল চলতি বছর ফেব্রুয়ারি মাসে। কৃষি দেশের অর্থনীতির ভিত্তি। তাই দেশের কৃষকদের কল্যাণের কথা বহুবার শোনা গিয়েছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর মুখে। তবে কৃষক আন্দোলনের জেরে বেশ নাজেহালও হতে হয়েছিল কেন্দ্রীয় সরকারকে। এবার তাই প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ গ্রহণ করেই কৃষকদের কথাই প্রথম ভাবলেন মোদী।

Nirajana Nag

আমি নীরাজনা নাগ। HoopHaap-এর একজন সাংবাদিক। বিগত চার বছর ধরে এই পেশার সঙ্গে যুক্ত রয়েছি। নিজের লেখার মাধ্যমে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাঠকদের কাছে পৌঁছে দিতে চাই