Bengali SerialHoop PlusHoop Video

Roosha Chatterjee: সাত পাকে বাঁধা পড়লেন টেলি অভিনেত্রী রুশা চট্টোপাধ্যায়, দেখুন ভিডিও

19 শে জানুয়ারি, বৃহস্পতিবার, গৃহলক্ষ্মীর রূপে সাতপাকে বাঁধা পড়লেন রুশা চট্টোপাধ্যায় (Roosha Chatterjee)। ইকো পার্কের একটি ব্যাঙ্কোয়েটে এদিন রুশার বিয়ের আসর বসেছিল। সাবেকি সাজে সেজেছিলেন তিনি। এদিন রুশার পরনে ছিল লাল রঙের কাঞ্জিভরম বেনারসী। সোনার টিকলি, টায়রা ও নথ পরেছিলেন রুশা। চন্দনে সেজে উঠেছিল তাঁর কপাল। মাথায় ছিল লাল রঙের ভেল ও টোপর। তাঁকে দেখে হঠাৎই মনে পড়ে গেল ‘তোমায় আমায় মিলে’-র উষসীকে। বিয়ের দিন রুশা ছিলেন যথেষ্ট উচ্ছ্বসিত।

রুশার স্বামী অনুরণন রায়চৌধুরী (Anuranan Roychowdhury) পেশায় সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার। এদিন অনুরণনের পরনে ছিল অফ হোয়াইট রঙের কারুকার্য করা শেরওয়ানি ও সাদা ধুতি। লাভ ম্যারেজ নয়, রুশার বিয়ে হয়েছে দেখাশোনা করেই। তবে পরিচয় হওয়ার পর একরকম রুশা ও অনুরণন একে অপরের প্রেমে পড়ে গিয়েছিলেন। দীর্ঘ আট মাস সম্পর্কে থাকার পর বিয়ে হল তাঁদের। অনুরণন অশোকনগরের বাসিন্দা হলেও কর্মসূত্রে থাকেন আমেরিকার সিয়াটলে। আগামী ফেব্রুয়ারি মাসে স্বামীর সাথে রুশাও পাড়ি দেবেন সিয়াটলে। রুশা জানালেন, অভিনয় জগৎ-কে সম্পূর্ণ রূপে বিদায় জানিয়ে বিদেশের মাটিতে নতুন করে জীবন শুরু করতে চান তিনি।

রুশার ইচ্ছা অনুযায়ী, ইকো পার্কের ব্যাঙ্কোয়েট সাজানো হয়েছিল ফুল দিয়ে। বিরিয়ানি, কবিরাজির মতো মোগলাই পদে সেজেছিল বিয়ের বুফে। সম্পূর্ণ বাঙালি মতেই সাতপাকে বাঁধা পড়লেন অনুরণন ও রুশা।

বিয়ের মাধ্যমে তের বছরের অভিনয় জীবনে ইতি টানলেন রুশা। ‘তোমায় আমায় মিলে’ ধারাবাহিকে ঊষসীর চরিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে নিজেকে প্রমাণ করেছিলেন রুশা। একের পর এক ধারাবাহিকে অভিনয় করেছেন তিনি। তবে বিদায়বেলায় অভিমানটা রয়ে গেলই। ইন্ডাস্ট্রি তাঁকে আর ভাবতে পারল না নায়িকা রূপে। আপাতত অশোকনগরের শ্বশুরবাড়িতে রয়েছেন তিনি। অপেক্ষা করছেন বিদেশে গিয়ে নতুন করে সংসার পাতার।