Advertisements

Sayan Bose: মোটেই সিঙ্গেল নয়, মনের মানুষের সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে অকপট ‘ঋকদেব’

Nirajana Nag

Nirajana Nag

Follow

জি বাংলার পর্দায় যেকটি নতুন সিরিয়াল শুরু হয়েছে তার মধ্যে অন্যতম ‘কে প্রথম কাছে এসেছি’। মাত্র কয়েক সপ্তাহ হল সন্ধ্যা সাড়ে ছটার স্লটে শুরু হয়েছে নতুন ধারাবাহিকটি। আর এই কদিনেই দর্শকদের মন জয় করে নিয়েছেন নায়ক ঋকদেব ওরফে অভিনেতা সায়ন বসু (Sayan Bose)। জি এর ঘরের মেয়ে ‘গৌরী’ ওরফে মোহনা মাইতির সঙ্গে দারুণ মানিয়েছে তাঁর জুটি। কিন্তু সায়নের অভিনয়ে আসা কীভাবে জানেন?

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে সায়ন জানান, তাঁর নাকি অভিনয়ে আসার কোনো পরিকল্পনাই ছিল না। দীর্ঘ ছয় বছর তিনি কর্পোরেট জীবন কাটিয়েছেন। বিভিন্ন রাজ্যে ঘুরে ঘুরে ছিল তাঁর কর্মজীবন। শুধু তাই নয়, তার আগে তাঁর ধ্যানজ্ঞান ছিল ক্রিকেট। ১৬-১৭ বছর ক্রিকেট খেলেছেন তিনি। কিন্তু বাড়িতে ছিল পড়াশোনা নিয়ে কড়াকড়ি। তাই বাবা মায়ের মন রাখতে পড়াশোনাতেই মন দেন তিনি।

সায়ন জানান, তাঁর প্রথম থিয়েটার যোগ মুম্বইতে। সেখানেই প্রথম অভিনয়ের প্রতি ভালোবাসাটা বুঝতে পারেন তিনি। ২০২০ তে কলকাতায় আসার পর ২০২১ এ অভিনয় শিখতে শুরু করেন তিনি। ওই বছরই প্রথম বার ‘লস্ট’ ছবির অডিশন দিয়ে একটি ছোট চরিত্রের জন্য সুযোগ পান সায়ন। সিরিয়ালে তাঁর প্রথম ডেবিউ কালার্স বাংলার ‘টুম্পা অটোওয়ালি’ দিয়ে। তারপরেই সোজা জি তে সুযোগ।

সিরিয়ালে জমতে শুরু করেছে ঋকদেব এবং মধুবনীর প্রেম। একটু একটু করে কাছে আসছে তারা। ইতিমধ্যেই মধুবনীকে মনের কথা জানিয়েওছে ঋকদেব। বাস্তবে কি সায়নের জীবনে আছেন এমন কোনো মধুবনী? অভিনেতা জানান, বাস্তবেও তাঁর এক মনের মানুষ রয়েছেন। আর তিনিই নাকি তাঁর সবথেকে বড় ফ্যান। সন্ধ্যা সাড়ে ছটায় নতুন শুরু হয়েছে কে প্রথম কাছে এসেছি। সিঙ্গেল মাদার মধুবনীর সঙ্গে ঋকদেবের গল্প কেমন ভাবে এগোয় সেটাই এখন দেখার।

Nirajana Nag

আমি নীরাজনা নাগ। HoopHaap-এর একজন সাংবাদিক। বিগত চার বছর ধরে এই পেশার সঙ্গে যুক্ত রয়েছি। নিজের লেখা...

Trending

Video

Shorts

whatsapp [#128] Created with Sketch.

Join

Follow