BollywoodHoop Plus

Sridevi: স্বামীর জন্য সকালে উঠে একঘন্টা ধরে এই কাজটি করতে হয়েছিল শ্রীদেবীকে

বলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী শ্রীদেবী (Sri Devi)। ভক্তদের দিয়েছেন অগণিত এবং অসাধারণ সব চলচিত্র। পাঁচ দশকের অভিনয় জীবনে তিনি সংগ্রামী নারী চরিত্রে অভিনয়ের জন্য পরিচিতি লাভ করেন। এছাড়াও হাস্যরস থেকে শুরু করে মহাকাব্যিক, নাট্যধর্মীসহ বিভিন্ন ধারার চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন এই অভিনেত্রী। শ্রীদেবী ছিলেন নব্বইয়ের দশকের ভারতের বিনোদন শিল্পের সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক প্রাপ্ত অভিনেত্রী। তাকে ভারতীয় চলচ্চিত্রের ইতিহাসে অন্যতম সেরা ও সবচেয়ে প্রভাবশালী অভিনেত্রী হিসেবে গণ্য করা হয়। জীবনে অসংখ্য ছবিতে কাজ করেছেন এই অভিনেত্রী। পদ্মশ্রী সহ একাধিক সম্মানে ভূষিতও হয়েছেন তিনি।

কর্মজীবনের পাশাপাশি ব্যক্তিগত জীবনেও বেশ যত্নশীল ছিলেন শ্রীদেবী। পরিবারের প্রতিটি সদস্যের যত্ন তিনি নিজের হাতে নিতেন। বাস্তবিক জীবনে ছেলে, মেয়ে এবং স্বামীর খুবই কাছাকাছি ছিলেন তিনি। তবে একদিন স্বামী বনি কাপুরের (Bonny Kapoor) মন রাখতে একটি কাজ করতে গিয়েই বেশ বিপাকে পড়েছিলেন অভিনেত্রী। সকাল সকাল তাকে রীতিমতো একঘন্টা ধরে স্বামীর জন্য করতে হয়েছিল একটি কাজ। আর এই কথা এক সাক্ষাৎকারে নিজে স্বীকার করেছেন শ্রীদেবী-কন্যা জাহ্নবী কাপুর (Janhvi Kapoor)।

এই সাক্ষাৎকারে জাহ্নবী বলেন যে তার মা শরীরচর্চা নিয়ে বেশ সচেতন ছিলেন। রোজ সকালে মর্নিংওয়াক এবং নিয়মিত ওয়ার্কআউট করতেন তিনি। অন্যদিকে স্বামী বনি শরীরস্বাস্থ্য নিয়ে বিশেষ মাথা ঘামাতেন না। তাই একাধিকবার শ্রীদেবীর পাশে অনেকটাই বয়স্ক মনে হয়েছে তার স্বামীকে। অন্যদিকে তার শরীরে মেদের আধিক্য উদ্বেগে ফেলেছিল অভিনেত্রীকে। তাই একদিন সকালবেলা স্বামীকে ঘুম থেকে তোলেন এবং তার সঙ্গে হাঁটতে যেতে বলেন। বনি নাকি তখন বাহানা শুরু করেন যে জুতোর লেস বাঁধতে তিনি অক্ষম। অন্যদিকে শ্রীদেবী নিজে জুতোর লেস বেঁধে দিলেও সেটি পছন্দ হচ্ছিল না তার। এই কাজ চলেছিল একঘন্টা ধরে। শেষমেষ রেগেমেগে অভিনেত্রী নিজেই বেরিয়ে পড়েন। জাহ্নবী জানান যে তার মা নাকি আর কোনোদিন তার বাবাকে হাঁটতে যেতে বলেনি সেদিনের পর থেকে।

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি দুবাইতে একটি পারিবারিক অনুষ্ঠান চলাকালীন মৃত্যু হয় কিংবদন্তি অভিনেত্রী শ্রীদেবীর৷ তাঁর মৃত্যুও ছিল বেশ রহস্যজনক৷ বাথরুম থেকে উদ্ধার হয় অভিনেত্রীর দেহ৷ তাঁর মৃত্যু স্বাভাবিক ছিল কি না, তা নিয়েও উঠেছিল প্রশ্ন৷

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Janhvi Kapoor (@janhvikapoor)