whatsapp channel

দুবাইয়ের আকর্ষণ এবার খাস কলকাতায়, এবার শীতে ঘুরে আসুন ‘আন্ডারওয়াটার টানেল অ্যাকোরিয়াম’ থেকে

ঘুরতে (Vacation) যেতে ভালোবাসে সকলেই। হাতে কিছুদিনের ছুটি পেলেই কেউ পাহাড়, কেউ সমুদ্র কেউ বা ছোটেন অন্য কোথাও। অনেকে টাকা জমিয়ে পাড়ি দেন বিদেশে। কিন্তু সকলের সেই সামর্থ্যটা হয় না।…

Avatar

Nirajana Nag

ঘুরতে (Vacation) যেতে ভালোবাসে সকলেই। হাতে কিছুদিনের ছুটি পেলেই কেউ পাহাড়, কেউ সমুদ্র কেউ বা ছোটেন অন্য কোথাও। অনেকে টাকা জমিয়ে পাড়ি দেন বিদেশে। কিন্তু সকলের সেই সামর্থ্যটা হয় না। বিদেশ ঘোরার মতো অর্থ বা সময় কিংবা সুযোগ সবসময় সকলের হয়ে ওঠে না। তাই তাদের জন্য বিদেশকেই নিয়ে আসা হচ্ছে কলকাতায়। খাস তিলোত্তমার বুকেই এমন একটি জায়গা তৈরি হচ্ছে যা বিদেশকেও হার মানাবে।

এমনিতে কলকাতায় ঘোরার জায়গার অভাব নেই। ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল, জাদুঘর থেকে শুরু করে বিড়লা প্ল্যানেটরিয়াম, আলিপুর চিড়িয়াখানা, শীতকাল আসলেই মিঠে রোদ গায়ে মেখে পিকনিকের ঝুড়ি নিয়ে এই সমস্ত জায়গায় ভিড় জমান মানুষ। তবে এবারে কলকাতার গুরুত্ব আরো একটু বাড়তে চলেছে। শহরে দর্শনীয় স্থানগুলির তালিকায় জুড়তে চলেছে আরো একটি নতুন জায়গা। তার জন্য যেতে হবে পার্ক সার্কাসে।

এতদিন কলকাতা শহরে বিরিয়ানির জন্য অন্যতম জনপ্রিয় স্থান ছিল পার্ক সার্কাস। এবার সেখানেই তৈরি হয়েছে আরো এক দারুণ আকর্ষণ। পার্ক সার্কাস ময়দানে তৈরি হয়েছে নতুন টানেল অ্যাকোরিয়াম। এই অ্যাকোয়ারিয়ামের সবথেকে বড় বৈশিষ্ট্য হল, এটি দুবাইয়ের খ্যাতনামা আন্ডারওয়াটার অ্যাকোরিয়ামের আদলে তৈরি করা হয়েছে। একটি বড় ট্যাংকে অসংখ্য রঙিন মাছ ছেড়ে দিয়ে সেগুলি দেখার দারুণ এক বন্দোবস্ত করা হয়েছে এই অ্যাকোরিয়ামে। পার্ক সার্কাস ময়দানের একটি বড় অংশ জুড়ে এই অ্যাকোরিয়াম তৈরি করা হয়েছে।

জানা যাচ্ছে, পার্ক সার্কাসের উদ্দীপনী ক্লাবের তরফে এই অ্যাকোরিয়াম তৈরি করা হয়েছে। ক্লাবের সভাপতির তরফে এ বিষয়ে বলা হয়, সিঙ্গাপুর বা দুবাইয়ে এই ধরণের আন্ডারওয়াটার অ্যাকোরিয়াম দেখেই কলকাতার বুকে এমন ধরণের অ্যাকোরিয়াম বানানোর পরিকল্পনার কথা প্রথম মনে হয়। এরপরেই কেরলের নীল এন্টারটেনমেন্ট এই ধরণের শো করার কথা জানতে পেরে উদ্যোগ নেওয়া হয়। তিন মাসের পরিশ্রম আর বড় অঙ্কের টাকা ব্যয় করার পর তৈরি হয়েছে এই অ্যাকোরিয়াম। আগামী ২৬ নভেম্বর পর্যন্ত অ্যাকোরিয়ামটি দেখা যাবে বলে জানা যাচ্ছে। তাই সময় থাকতে চট করে একবার ঘুরে আসতেই পারেন বিদেশের স্বাদ নিতে।

Avatar

আমি নীরাজনা নাগ। HoopHaap-এর একজন সাংবাদিক। বিগত চার বছর ধরে এই পেশার সঙ্গে যুক্ত রয়েছি। নিজের লেখার মাধ্যমে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাঠকদের কাছে পৌঁছে দিতে চাই