Hoop News

Weather Forecast: বৃষ্টি হলেও গুমোট গরম থেকে রেহাই নেই, কোন কোন জেলায় বাড়বে অস্বস্তি!

Advertisements

ঘূর্ণিঝড় রেমাল রবিবার মাঝরাতে আছড়ে পড়েছিল স্থলভাগের উপর। বাংলাদেশের খেপুপাড়া ও সাগর দ্বীপের মাঝামাঝি মোংলা বন্দরের দক্ষিণ পশ্চিমে ল্যান্ডফল করে এই ঘূর্ণিঝড়। তারপর থেকেই দাপট দেখিয়েছে এই ঘূর্ণিঝড়। তবে ঘূর্ণিঝড় রেমালের প্রভাব রীতিমতো ফিকে হয়েছে দক্ষিণবঙ্গে। যদিও এর ছাপ রয়ে গেছে রাজ্যের উপকূলবর্তী এলাকায়। তবুও ঘূর্ণিঝড় বা বৃষ্টি, দুটোই বন্ধ হয়ে গেছে মঙ্গলবার সকাল থেকে।

ঘূর্ণিঝড়ের জেরে দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে তাপমাত্রা কমলেও গুমোট গরমে অস্বস্তি বাড়ছে গতকাল থেকেই। অর্দ্রতাজনিত অস্বস্তি এখন দক্ষিণবঙ্গের সব জেলাতেই অনুভূত হচ্ছে। কিন্তু এমনটা কেন? এই বিষয়ে আলিপুর আবহাওয়া দফতরের পূর্বাঞ্চলীয় অধিকর্তা সোমনাথ দত্ত জানান, “সাইক্লোন রিমেলের প্রভাবে তাপমাত্রা কমেছে। কিন্তু, তা সত্ত্বেও অস্বস্তিকর ভাব থেকে গিয়েছে। যা বৃষ্টি হয়েছে তার কিছুটা মাটির তলায় গিয়েছে, আকাশও পরিষ্কার। এই অবস্থায় অস্বস্তিকর একটি আবহাওয়া। আগামী দু’তিন দিন এই পরিস্থিতি চলতে থাকলে বজ্রবিদ্যুৎ দেখা দেওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হতে পারে।” তাহলে আজ কেমন থাকবে সামগ্রিক রাজ্যের আবহাওয়া? সর্বশেষ আপডেট জেনে নিন এই নিবন্ধ থেকে।

● কলকাতার আবহাওয়া: হাওয়া অফিস জানিয়েছে যে আজ কলকাতার বুকের বৃষ্টির পূর্বাভাস নেই। তবে গত ২ দিনের ঝড়বৃষ্টির কারণে কলকাতা শহরের পারদ স্বাভাবিকের নেমে গিয়েছে। আজ কলকাতায় গরম কম থাকবে। আজ শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকবে ৩৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকবে ২৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি। তবে আর্দ্রতার কারণে দিনভর অস্বস্তি বজায় থাকবে শহরে।

● দক্ষিণবঙ্গের আবহাওয়া: আজও দক্ষিণবঙ্গের কোনো জেলাতেই বৃষ্টির তেমন পূর্বাভাস দেওয়া হয়নি। তবে আজ থেকে গরম বাড়বে জেলায় জেলায়। বিশেষ করে গাঙ্গেয় সমভূমিতে অর্দ্রতাজনিত অস্বস্তি আজ আরো বাড়বে। ফলস্বরূপ হাঁসফাঁস আবহাওয়া থাকবে আজ দক্ষিণের সমভূমি এলাকায়। এদিকে পশ্চিমের জেলাগুলিতেও আজ পারদ সেভাবে বৃদ্ধি পাবে না। তবে অস্বস্তি থাকবে শিওরে।

● উত্তরবঙ্গের আবহাওয়া: ঘূর্ণিঝড় রেমাল দুর্বল হয়ে ক্রমে উত্তর পূর্ব দিকে অগ্রসর হয়েছে। এই কারণেই আজ ঝড়বৃষ্টির দাপট দেখা যাবে উত্তরবঙ্গের জেলায় জেলায়। আজ দুর্যোগের পূর্বাভাস রয়েছে জলপাইগুড়ি, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার, দার্জিলিং, কালিম্পং, উত্তর ও দক্ষিণ দিনাজপুর জেলায়।

Debaprasad Mukherjee

Hoophaap-এর সম্পাদক দেবপ্রসাদ বিগত কয়েক বছর যাবৎ সাংবাদিকতার সঙ্গে যুক্ত। ডিজিটাল মিডিয়ার হাত ধরেই সাংবাদিকতায় হাতেখড়ি। রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা, লাইফস্টাইল, প্রযুক্তি প্রভৃতি সব ধরণের খবরের উপস্থাপনার কাজে যথেষ্ট সাবলীল। নিউজ ডেস্ক ছাড়াও রয়েছে ভিডিও এডিটিং এবং ক্যামেরার পিছনে বিচিত্র অভিজ্ঞতা