Hoop Plus

একাধিক পুরুষের প্রেমে পড়তে ভালোবাসি: রাধিকা আপ্তে

Advertisements

তাঁকে নিয়ে চলা কোনোরকম বিতর্ককেই যে তিনি কেয়ার করেন না তা বহুবার জানিয়েছেন বলি অভিনেত্রী রাধিকা আপ্তে। একাধিক বার ন্যুড ছবি পোস্ট করে বিতর্কে জড়ালেও সব সময়েই ক্রস ব্যাটে ছক্কা হাঁকাতে পছন্দ করেন অভিনেত্রী।

প্রেম ভালোবাসা নিয়েও তাঁর অভিমত অত্যন্ত খোলামেলা। একটি সাক্ষাৎকারে রাধিকা জানান এক মানুষের জীবনে একাধিক প্রেম আসাটা বিস্ময়কর নয়। ঠিক যেমন ভাবে একজনের একই সঙ্গে নাচ-গান দুটোই ভালো লাগে, তেমনই একাধিক মানুষের প্রতিও একই সঙ্গে প্রেমে পড়া যায়।

ব্যক্তিগত ভাবেও তিনি সময়ে সময়ে একাধিক পুরুষের প্রেমে পড়েন বলেও খোলাখুলি স্বীকার করেন অহল্যা। কারোর সান্নিধ্যে, আবার কারোর শারীরিক আকর্ষণেও তাঁর প্রতি প্রেমের অনুভব জাগে। তুষার কাপুর, বিবেক ওবেরয় বা নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকীর মত একাধিক তারকার সঙ্গেও রাধিকার নাম জড়িয়েছে বহুবার।

ব্রিটিশ সুরকার বেনেডিক্টের সঙ্গে বৈবাহিক সম্পর্ক গোপন রেখেছিলেন বহুদিন যাবৎ। ২০১১ সাল নাগাদ নাচ শেখার উদ্দেশ্যে ব্রিটেনে পাড়ি দেন অভিনেত্রী। সেখানেই আলাপ হয় বেনেডিক্ট টেলরের সঙ্গে। শুরু হয় প্রেম। ২০১২ তে লন্ডনে রেজিস্ট্রি ম্যারেজ করে নেন উভয়ে।

রেজিস্ট্রির মাধ্যমে বিয়ে হলেও একসঙ্গে পাকাপাকি থাকতে উভয়েই পছন্দ করেন না বলেও জানান রাধিকা। রাধিকা কর্মসূত্রে মুম্বইয়ে ব্যস্ত, অন্যদিকে বেনেডিক্ট লন্ডনে। একসঙ্গে না থাকলেও রাধিকা-বেনেডিক্ট উভয়ে মাঝে মধ্যেই যাতায়াত করেন একে অপরের কাছে।

রাধিকার চিন্তা ভাবনা নিয়ে কখনোই কোনো বিরোধ করেন নি স্বামী বেনেডিক্ট, এও জানান তিনি। বিয়ের পরও রাধিকার অন্য পুরুষের সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে গুঞ্জন শোনা যায় ইন্ডাস্ট্রিতে, যদিও সে বিষয়ে কোনোরকম মুখ খোলেন নি রাধিকা। বর্তমান কোভিড পরিস্থিতিতে লন্ডনের বাড়িতে স্বামীর সঙ্গেই রয়েছেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

প্রসঙ্গত, ২০০৫ সালে পড়ুয়া থাকাকালীনই ‘বাহ! লাইফ হো তো এইসি’ ছবিতে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে ফিল্ম কেরিয়ার শুরু করেন রাধিকা। ৭টি ভাষায় পারদর্শী এই অভিনেত্রী হিন্দি ছবি ছাড়াও বাংলা, তেলুগু, মালায়লাম ও ইংরেজি ছবিতেও অভিনয় করেছেন।

‘শোর ইন দ্য সিটি’, ‘কাবালি’, ‘বদলাপুর’, ‘প্যাডম্যান’ ‘অন্তহীন'(বাংলা) ইত্যাদি উল্লেখযোগ্য ছবির পাশাপাশি ‘অহল্যা’ নামে একটি জনপ্রিয় শর্ট ফিল্মেও কাজ করেছেন রাধিকা।