whatsapp channel

চীনকে গুঁড়িয়ে দেবে ভারত, সীমান্তে দাঁড়িয়ে হুঙ্কার মোদির, ভারতে আসছে বিপুল শক্তিশালী অস্ত্র

চীনের সাথে সীমান্ত নিয়ে বিবাদের মাঝেই নতুন শক্তি যোগ হচ্ছে ভারতীয় বায়ুসেনায়। বৃহস্পতিবার ভারতীয় বায়ুসেনাকে নতুন ৩৩ টি যুদ্ধবিমান কেনার অনুমতি দিলো কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রক। এই ৩৩ টি নতুন যুদ্ধবিমানের…

Avatar

HoopHaap Digital Media

চীনের সাথে সীমান্ত নিয়ে বিবাদের মাঝেই নতুন শক্তি যোগ হচ্ছে ভারতীয় বায়ুসেনায়। বৃহস্পতিবার ভারতীয় বায়ুসেনাকে নতুন ৩৩ টি যুদ্ধবিমান কেনার অনুমতি দিলো কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রক। এই ৩৩ টি নতুন যুদ্ধবিমানের মধ্যে ১২ টি Su-30 MKI এবং ২১টি MiG-29s যুদ্ধবিমান রয়েছে। এছাড়াও পুরনো ৫৯ টি MiG-29 যুদ্ধবিমান আপগ্রেড করার অনুমোদনও দিয়েছে প্রতিরক্ষা মন্ত্রক। এর জন্য মোট খরচ হবে ১৮,১৪৮ কোটি টাকা।

বৃহস্পতিবার ডিফেন্স অ্যাকুইজিশন কাউন্সিলের (ডিএসি) একটি বৈঠক হয়। সেখানে নেতৃত্ব দেন কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং। উপস্থিত ছিলেন তিন সেনা বাহিনীর প্রধানরা এবং চিফ ডিফেন্স স্টাফ বিপিন রাওয়াত। সেখানেই বায়ুসেনার এই প্ৰয়োজনীয়তাকে মান্যতা দেওয়া হয়। বৈঠকের পর ডিএসির তরফে একটি বিবৃতি দিয়ে বলা হয়, “ভারতীয় বায়ুসেনার দীর্ঘদিনের প্রয়োজনীয়তার কথা মাথায় রেখে এই অনুমোদন দেওয়া হলো। এর জন্য রাশিয়ার কাছ থেকে বায়ুসেনা MiG-29s কিনবে, যার জন্য খরচ হবে ৭৪১৮ কোটি টাকা। এর মধ্যে পুরনো Mig-29 ও আপগ্রেড করা হবে। এবং হ্যালের কাছ থেকে  Su-30 MKI কিনবে, যার জন্য খরচ হবে ১০,৭৩০ কোটি টাকা।”

বায়ুসেনা ছাড়া স্থলসেনার বিভিন্ন অস্ত্রশস্ত্র কেনার জন্যেও টাকা বরাদ্দ করা হয় ডিএসির তরফে। স্থলসেনার বিভিন্ন অস্ত্রশস্ত্র কেনার জন্য ৩৮,৯০০ কোটি টাকা অনুমোদন করেছে ডিএসি। এছাড়া ক্ষেপনাস্ত্রের শক্তি বাড়াতে ১০০০ কিলোমিটার রেঞ্জের ২৪৮ অস্ত্র ক্ষেপনাস্ত্র কেনারও অনুমতি দেওয়া হয়েছে ডিএসির তরফে। প্রতিরক্ষা দপ্তর সূত্রের খবর, অস্ত্রশস্ত্র কেনা ছাড়াও লাদাখে সীমান্ত বরাবর নজরদারিও বাড়িয়েছে ভারতীয় বায়ুসেনা।

Avatar