Hoop PlusBengali Serial

প্রকাশ্যে চমকপ্রদ রিসেপশনের কার্ড, কৌশাম্বীকে বিয়ে নিয়ে অবশেষে মুখ খুললেন আদৃত

Advertisements

ভরা গ্রীষ্মে বিয়ের সানাই টলিপাড়ায়। সাত পাকে বাঁধা পড়ছেন আদৃত রায় (Adrit Roy) এবং কৌশাম্বী চক্রবর্তী (Kaushambi Chakraborty)। অর্থাৎ দর্শকদের প্রিয় উচ্ছেবাবু আর দিদিয়া। অনস্ক্রিনে দিদির চরিত্রে অভিনয় করলেও বাস্তবে আদৃতের ঘরনী হচ্ছেন কৌশাম্বী। একসময় সবটা জল্পনার স্তরে থাকলেও এখন আর কিছুই গোপন নেই। আগামী ৯ মে সেই বিশেষ দিন। ইতিমধ্যেই পাত্রপাত্রীর বিয়ের কার্ডের ছবিও প্রকাশ্যে এসে গিয়েছে। এবার ভাইরাল হল রিসেপশন কার্ডের ছবি।

বিয়ের জন্য কৌশাম্বীর পরিবার বেছে নিয়েছে লাল সোনালি রঙা সাবেকি ঘরানার কার্ড। কিন্তু রিসেপশনের কার্ডে দেখা গেল চমক। সাদা খামের মধ্যে একটি স্বচ্ছ কার্ডে সোনালি অক্ষরে লেখা পাত্র পাত্রীর পরিচয়, রিসেপশনের দিন ক্ষণ। সুদৃশ্য কার্ডটির সঙ্গে থাকছে আরো এক চমক। নিমন্ত্রিতদের একটি রূপোর সিদ্ধিদাতা গণেশের ছোট্ট মূর্তিও দিয়েছেন আদৃত। রিসেপশনের আমন্ত্রণের এই চমকপ্রদ ভিডিও ইতিমধ্যে ভাইরাল হয়েছে আদৃতের ফ্যানপেজের তরফে।

প্রকাশ্যে চমকপ্রদ রিসেপশনের কার্ড, কৌশাম্বীকে বিয়ে নিয়ে অবশেষে মুখ খুললেন আদৃত

কিছুদিন আগেই মিঠাই এর প্রায় গোটা পরিবার একত্রিত হয়েছিল আদৃত কৌশাম্বীর আমন্ত্রণে। অনেকেই প্রশ্ন করেছিলেন, তবে কি হবু বর বউকে আইবুড়োভাত খাওয়াতেই মিঠাই পরিবারের এই পুনর্মিলন? তবে জানা গিয়েছে, নববর্ষের আড্ডা দিতে একসঙ্গে হয়েছিলেন তাঁরা। তবে অবশ্য সেখানে দেখা মেলেনি সৌমিতৃষা কুণ্ডুর। এদিন মিঠাই পরিবারের জ্যেষ্ঠ সদস্য দাদাইয়ের হাতে বিয়ের কার্ড তুলে দেন কৌশাম্বী। একটি ভাইরাল ভিডিওতে এক মহিলাকে বলতে শোনা যায়, ‘কৌশাম্বী যতই আমাদের নেমন্তন্ন করুক, আমরা আদৃতের গাড়ি করেই যাব’। মজা করে একজন প্রশ্ন করেন, আদৃত কি ঘোড়ার গাড়ি চেপে বিয়ে করতে যাবেন? হাসিমুখে উচ্ছেবাবু উত্তর দেন, ‘Thar-এ’।

বর কনে দুই তরফেই বিয়ের আমন্ত্রণ পেয়েছেন মিঠাই পরিবারের সদস্যরা। কৌশাম্বী হাওড়ার বাসিন্দা। রামরাজাতলার এক সুদৃশ্য ব্যাঙ্কোয়েটে বসছে বিয়ের আসর। অন্যদিকে ১১ ই মে দক্ষিণ কলকাতার এক ক্লাব হতে চলেছে আদৃত কৌশাম্বীর রিসেপশনের অনুষ্ঠান।

Nirajana Nag

আমি নীরাজনা নাগ। HoopHaap-এর একজন সাংবাদিক। বিগত চার বছর ধরে এই পেশার সঙ্গে যুক্ত রয়েছি। নিজের লেখার মাধ্যমে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাঠকদের কাছে পৌঁছে দিতে চাই