Advertisements

রাত একটা-দুটো অবধি কি করতেন শোভন-বৈশাখী!

Avatar

Nilanjana Pande

Follow

বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় (Baishakhi Banerjee)-এর ফেসবুক প্রোফাইলে বর্তমানে লেখা ‘বৈশাখী শোভন বন্দ্যোপাধ্যায়’। বৈশাখীর তরফে এ যেন এক অভূতপূর্ব স্বীকৃতি। কয়েক বছর আগে বিজয়া দশমীর দিন মা দুর্গার সামনে শোভন চট্টোপাধ্যায় (Shobhan Chatterjee) সিঁদুরে রাঙিয়ে দিয়েছিলেন তাঁর সিঁথি। তবে দুইজনের আইনত বিয়ে হয়নি। শোভনের সাথে তাঁর স্ত্রী রত্না (Ratna)-র আইনত বিবাহ বিচ্ছেদ না হওয়ার কারণে তাঁদের দুইজনের বিয়ে হয়নি। তবে বৈশাখী বিবাহ বিচ্ছিন্না। তিনি ও তাঁর মেয়ে বর্তমানে শোভনের সাথেই থাকেন।

তবে প্রথমে প্রেমিক-প্রেমিকা নন, শোভন ও বৈশাখী ছিলেন খুব ভালো বন্ধু। একসময় বৈশাখী জানিয়েছিলেন, শোভনের থেকে বহু মানুষ উপকৃত হয়েছেন। কিন্তু বৈশাখী গিয়েছেন অনেক সমস্যার মধ্য দিয়ে। তবে কোনোদিনই অনুযোগ করেন না বৈশাখী। বৈশাখী অনেক কিছুই ভালোবাসতেন। কিন্তু শুধুমাত্র সেগুলি ছাড়তে হয়েছে শোভনের জন্য। বৈশাখীর মতে, বহু রাজনৈতিক নেতা তাঁদের প্রেমিকাকে বলেন, ও তো আমার বোন। কিন্তু শোভন ও বৈশাখী তাঁদের সম্পর্ককে বরাবরই স্পষ্ট করেছেন সকলের সামনে। প্রথমে তাঁদের মধ্যে বন্ধুত্বের সম্পর্ক থাকলেও পরবর্তীকালে তাঁরা প্রেমের সম্পর্কে আবদ্ধ হয়েছেন। কিন্তু বৈশাখীর বেস্ট ফ্রেন্ড এখনও তাঁর মেয়ে।

2008 সালে শোভন ও বৈশাখীর সম্পর্ক তৈরি হয়। সম্পর্কের সূত্রপাতের দিনগুলি তাঁরা রাত একটা-দুটো পর্যন্ত ফোনে গল্প করতেন। তবে রাজনীতি নয়, কবিতা ও গান নিয়ে চলত তাঁদের আলোচনা। একসময় শোভন ও বৈশাখী একসাথে থাকতে শুরু করেন। তাঁর স্বামী মনোজিৎ (Manojit)-এর সাথে বিবাহ বিচ্ছেদের পর শোভনের জন্য সিঁথিতে সিঁদুর পরেন বৈশাখী। গলায় পরেন মঙ্গলসূত্র।

বৈশাখীর মেয়েকেও শোভন নিজের মেয়ের মতোই ভালোবাসেন। শত সমালোচনা সত্ত্বেও একসাথে ভালো আছেন শোভন ও বৈশাখী।

Trending

Video

Shorts

whatsapp [#128] Created with Sketch.

Join

Follow