whatsapp channel

অন্তরঙ্গ দৃশ্যে পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেন রণবীর-দীপিকা, ক্যামেরার সামনেই তুমুল রোম্যান্স

রণবীর সিং (Ranveer Singh) ও দীপিকা পাড়ুকোন (Deepika Padukone) -এর দাম্পত্য নিয়ে বারবার গুঞ্জন তৈরি হয়েছে। রটেছে বিবাহ বিচ্ছেদের রটনা। এমনকি রণবীরের নগ্ন ছবি ‘পেপার’ ম্যাগাজিনে ছাপার কারণে দীপিকার প‍্যানিক…

Avatar

Nilanjana Pande

রণবীর সিং (Ranveer Singh) ও দীপিকা পাড়ুকোন (Deepika Padukone) -এর দাম্পত্য নিয়ে বারবার গুঞ্জন তৈরি হয়েছে। রটেছে বিবাহ বিচ্ছেদের রটনা। এমনকি রণবীরের নগ্ন ছবি ‘পেপার’ ম্যাগাজিনে ছাপার কারণে দীপিকার প‍্যানিক অ্যাটাকের কথাও শোনা গিয়েছে। পাঁচ বছরের দাম্পত্য সম্পর্কে বরাবর কিন্তু এই দম্পতি ক্যামেরার সামনে হাসিমুখেই ধরা দিয়েছেন। সঞ্জয় লীলা ভনশালী (Sanjay Leela Bhansali) নির্মিত ফিল্ম ‘রাম-লীলা’-র সেট থেকে শুরু হয়েছিল দীপিকা ও রণবীরের সম্পর্ক। কিন্তু এই ফিল্মের সেটেই দীপিকার সাথে রণবীরের সফল রসায়নের আঁচ পাওয়া গিয়েছিল একটি ঘটনার মাধ্যমে।

বিয়ের পাঁচ বছর পর করণ জোহর (Karan Johar)-এর টক শো ‘কফি উইথ করণ’-এর নতুন সিজনে সেই ঘটনার বর্ণনা করলেন দীপিকা ও রণবীর। বিয়ের পাঁচ বছর আগে দীর্ঘ ছয় বছর সম্পর্কে ছিলেন তাঁরা। ঘটনাটি ঘটে সেই সময়। ‘রাম-লীলা’-র শুটিং শুরু হয়েছিল। রণবীরের সবে ব্রেক-আপ হয়েছে। দীপিকাও নতুন সম্পর্কে জড়াতে রাজি ছিলেন না। ‘রাম-লীলা’-র সেটে খুব অদ্ভুত ভাবে ধীরে ধীরে তাঁরা একে অপরের কাছাকাছি চলে এসেছিলেন। দীপিকা জানিয়েছেন, সেই সময় তাঁরা একে অপরের সাথে সময় কাটাতে পছন্দ করতেন। একসাথে শুটিংয়ে যাওয়া ও বাড়ি ফেরা তো বটেই, ভ্যানিটিতেও একসাথে খাওয়া-দাওয়া করতেন। অনেকেই অনুমান করেছিলেন, নতুন সম্পর্কের সূত্রপাত হতে চলেছে। কিন্তু তাঁদের অনুমান দৃঢ় করে দিয়েছিল ‘রাম-লীলা’-র একটি বিশেষ দৃশ্য।

দৃশ্যটি ছিল একটি চুম্বন দৃশ্য। ‘রাম-লীলা’-র ওই দৃশ্যের শুটিংয়ের সময় ক্যামেরা রোল হতেই রণবীর ও দীপিকা ঠোঁটে ঠোঁট রেখে ঘনিষ্ঠ চুম্বন শুরু করেন। কিন্তু পরিচালক ‘কাট’ বলার পরেও তাঁদের সেই চুম্বন থামেনি। শেষ অবধি ইট ছুড়ে দীপিকা ও রণবীরের সম্বিৎ ফেরাতে হয়েছিল। তবে তারপরেও ঘোর কাটেনি ফলে জানালেন দীপিকা ও রণবীর।

এই ঘটনার দীর্ঘ ছয় বছর পর সাতপাকে বাঁধা পড়েছিলেন তাঁরা। তবে এখনও অবধি সেই ঘটনার কথা মনে পড়লে হেসে ফেলেন দীপিকা ও রণবীর। ঘটনাটির কথা শুনে হাসি সামলাতে পারেননি করণও।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Karan Johar (@karanjohar)