Hoop NewsHoop Trending

Dilip Ghosh: গিনেস বুকে নাম উঠবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের: দিলীপ ঘোষ

Advertisements

প্রায় প্রতিদিনই নিউটাউন ইকোপার্কে প্রাতঃভ্রমনে আসেন বিজেপির সর্বভারতীয় সহ সভাপতি তথা সাংসদ দিলীপ ঘোষ। পুজোর প্রাক্কালে এদিন দিলীপ বাবু তার চাঁচাছোলা ভাষায় আরেকবার বধ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে।

এদিন দিলীপ বাবু বলেন যে আফগানিস্তানে ওষুধ পাঠানো থেকে শুরু করে ইউক্রেনের যুদ্ধ বন্ধ করা, সারা দুনিয়ায় ওষুধ, ভ্যাকসিন দেওয়ার ব্যবস্থা করা সবই মোদী করেছেন। আর্থিক, রাজনৈতিক সবরকম সংকটের মাঝেই ভারত এগিয়েছে। ওদিকে মমতা বন্দোপাধ্যায় শুধু ঢাক বাজাচ্ছেন, অন্য কোনও ভাবে নাম উঠবে না ওনার। সারা পশ্চিমবাংলার পুজোকে উনি ৬০ হাজার টাকা করে দিয়েছেন। সবটাই ফিজিক্যালি অথবা ভার্চুয়ালি উদ্বোধন করবেন। ওটা করলেই ওনার গিনেস বুকে নাম উঠবে।

সম্প্রতি, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় একদিনে ৫০০ পুজো উদ্বোধন করেছেন! এমনকি সারা পশ্চিমবাংলার পুজোকে উনি ৬০ হাজার টাকা করে দিয়েছেন। এদিন মুখ্যমন্ত্রী সকলের উদ্দেশ্যে বলেন, “বিপদ কেটে গিয়েছে করোনার। সেইজন্য পুজো দেখতে আপত্তি নেই। উৎসাহে এবার পুজো হচ্ছে ধুমধাম করে। সবাই পুজো দেখুন। যাঁরা অধিকারের জন্য আন্দোলন করে যাচ্ছেন। তাদেরকে আমি অনুনয় করবো আপনারা আন্দোলন বন্ধ রেখে আসুন পুজোর আনন্দে মেতে উঠুন। পরিবারের লোকেদের সময় দিন। বন্ধু বান্ধবদের সময় দিন। লড়াই করতেই হবে। পশ্চিমবাংলার কপালে এটাই লেখা আছে স্ট্রাগল করা। আর এই সরকার যতদিন আছে অধিকার পূর্ণ হবে না লড়াই করতেই হবে।”

পার্থ অর্পিতার নাম না নিয়েও এদিন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “কিছু লোক তো জেলে থাকবে সেটা ঠিক হয়েই গেছে। আর চান্স নেই বেরোবার। বাকিরা নোটিশ পাচ্ছেন। পালিয়ে গিয়ে দিল্লিতে থাকছেন মানিক বাবু। অনেকেই চিঠি পেলে অন্য রাজ্যে পালিয়ে যাবেন। বাংলার বাইরে বা অন্য দেশে চলে যাবেন। এটা হবেই যারা এতদিন মানুষকে কষ্ট দিয়েছে তারা এই পুজোয় আনন্দ করতে পারবে না।”