whatsapp channel

Vastu Tips: বাড়ির এই জায়গায় কখনোই রাখবেন না ঝাঁটা, আর্থিক দুর্গতি পিছু ছাড়বে না

ঘরদোর পরিষ্কার রাখতে ঝাঁটার (Mop Sticks) বিকল্প আর কিছু হয় না। প্রত্যেক বাড়িতে একাধিক প্রয়োজনে ঝাঁটা রাখা হয়ে থাকে। তবে আপাত সাধারণ এই ঝাঁটা থেকেই সংসারে কিন্তু শুরু হতে পারে…

Avatar

Nirajana Nag

ঘরদোর পরিষ্কার রাখতে ঝাঁটার (Mop Sticks) বিকল্প আর কিছু হয় না। প্রত্যেক বাড়িতে একাধিক প্রয়োজনে ঝাঁটা রাখা হয়ে থাকে। তবে আপাত সাধারণ এই ঝাঁটা থেকেই সংসারে কিন্তু শুরু হতে পারে অশান্তি। বাস্তু শাস্ত্রে (Vastu) বলা হয়, বাড়ির যে কোনো জিনিসপত্রেই রয়েছে ইতিবাচক এবং নেতিবাচক ক্ষমতা। যত্রতত্র ঝাঁটা রাখলে তেমনি নেমে আসতে পারে অশান্তির ছায়া। কোথায় কোথায় রাখা উচিত নয় ঝাঁটা? জেনে নিন এই প্রতিবেদন থেকে।

বাস্তুশাস্ত্র বলে, ঝাঁটা কোথায় রাখা হচ্ছে তার উপরে নির্ভর করে সৌভাগ্য এবং দুর্ভাগ্য দুটোই আসতে পারে। বাস্তুশাস্ত্র মতে, ঝাঁটা কোথায় কোন দিকে রাখা উচিত তা স্পষ্ট ভাবে বলে দেওয়া হয়েছে। তা না মানা হলে দুর্গতি আসতে পারে কপালে। বাস্তু এবং জ্যোতিষ শাস্ত্র মতে, দারিদ্র মোচন করে ঝাঁটা। দুঃখ কষ্ট দূর করে সুখ এবং সমৃদ্ধি নিয়ে আসে বাড়িতে। দোকানদারদের সূর্যাস্তের পর এবং সপ্তাহের রবিবার এবং মঙ্গলবার ঝাঁটা বিক্রি না করাই উচিত।

Vastu Tips: বাড়ির এই জায়গায় কখনোই রাখবেন না ঝাঁটা, আর্থিক দুর্গতি পিছু ছাড়বে না

জ্যোতিষীদের মতে, রান্নাঘরে, শোবার ঘরে এবং পুজোর ঘরে অর্থাৎ ঠাকুর ঘরে কখনোই ঝাঁটা রাখা উচিত নয়। বাড়ির উত্তর পশ্চিম বা পশ্চিম দিকে ঝাঁটা রাখতে পারেন। তবে উত্তর পূর্ব এবং দক্ষিণ দিকে কখনোই ঝাঁটা রাখা উচিত নয়। সেই সঙ্গে জ্যোতিষ শাস্ত্রে আরো বলা হয়েছে, ঝাঁটা কখনোই চোখের সামনে রাখা উচিত নয়। সবসময় লুকিয়ে রাখা উচিত অর্থাৎ চোখের আড়ালে রাখা উচিত। ঝাঁটা এমন জায়গায় রাখা উচিত যাতে ঘরে কেউ আসলে তার চোখে যেন না পড়ে।

ঝাঁটা কখনো উলটো করে বা উল্লম্ব ভাবে রাখা উচিত নয়। ঝাঁটা সব সময় শুইয়ে রাখা উচিত। নয়তো আর্থিক সমস্যার সম্মুখীন হতে হবে। এই কয়েকটি বিষয় সবসময় মাথায় রাখা উচিত।

Disclaimer: বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ এবং মতামতের ভিত্তিতে লেখা হয়েছে প্রতিবেদনটি। ব্যক্তিবিশেষে এর ফল হতে পারে ভিন্ন।

Avatar

আমি নীরাজনা নাগ। HoopHaap-এর একজন সাংবাদিক। বিগত চার বছর ধরে এই পেশার সঙ্গে যুক্ত রয়েছি। নিজের লেখার মাধ্যমে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাঠকদের কাছে পৌঁছে দিতে চাই