whatsapp channel

বাড়বে যাত্রী সুরক্ষা, আমজনতার সুবিধার জন্য বড় সুখবর নিয়ে এল পূর্ব রেল

রেললাইনে লেভেল ক্রসিং গেটে (Level Crossing Gate) যানজটের সমস্যা নতুন নয়। বিশেষ করে জনবহুল এলাকাগুলিতে ট্রেন ঢোকার আগে রেল গেট গুলি বন্ধ করা যেন একটি চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়ায়। বাইক, টোটো,…

Avatar

Nirajana Nag

রেললাইনে লেভেল ক্রসিং গেটে (Level Crossing Gate) যানজটের সমস্যা নতুন নয়। বিশেষ করে জনবহুল এলাকাগুলিতে ট্রেন ঢোকার আগে রেল গেট গুলি বন্ধ করা যেন একটি চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়ায়। বাইক, টোটো, সাইকেল, অটো রিক্সা, স্কুটার, ছোট বড় গাড়ি এই রেলগেট গুলিতে যানজটের মতো সমস্যা তৈরি করে। রেলগেট বন্ধ হতে সময় লাগায় যাত্রীরাও বড়সড় সমস্যার মধ্যে । পাশাপাশি এই ভাবে রেলগেট পারাপার হওয়ায় ঝুঁকিও থেকে যায়। এমনকি কর্তব্যরত রেলকর্মীও অনেক সময় এই গেট বন্ধ করতে গিয়ে বিপাকে পড়েন। তবে এই সমস্যার সমাধান হতে চলেছে এবারে।

যাত্রী সাধারণ এবং আমজনতার সুবিধার কথা মাথায় রেখে এবার পূর্ব রেলের তরফে রোড আন্ডার ব্রিজ বা সীমিত উচ্চতার সাবওয়ে তৈরি করা হচ্ছে। জনবহুল এলাকাগুলিতে রেলওয়ের তরফে এই রোড আন্ডার ব্রিজ বা সীমিত উচ্চতার সাবওয়ে (Limited Height Subway) তৈরি করা হচ্ছে। রেলওয়ে লেভেল ক্রসিং গেট প্রতিস্থাপন করে রোড আন্ডার ব্রিজ বা সীমিত উচ্চতার সাবওয়ে তৈরি করা যায় অনেক দ্রুততার সঙ্গে।

রেল লাইনের এপার থেকে অন্য পারে পথযাত্রী এবং যানবাহনের পারাপারের জন্য খুব ভালো কাজ দেয়। উপরন্তু এতে লেভেল ক্রসিং গেটে রেল লাইন এবং সড়ক পথের সরাসরি সংযোগ না থাকার কারণে যাত্রী সুরক্ষাও অনেক বাড়ে। ২০২৩-২৪ আর্থিক বছরে পূর্ব রেল তার অধিক্ষেত্রে ১৭ টি রোড আন্ডার ব্রিজ বা সীমিত উচ্চতার সাবওয়ে তৈরি করেছে। এতে পড়ক পথে যান চলাচল এবং রেল চলাচলে গতি বৃদ্ধির পাশাপাশি রেল অধিকাঠামো গঠনে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতিও হয়েছে।

ইতিমধ্যেই হাওড়া ডিভিশনে ব্যান্ডেল-কাটোয়া শাখায় ধাত্রীগ্রাম এবং সমুদ্রগড় স্টেশনের মাঝখানে লেভেল ক্রসিং গেট নম্বর ১২/১/ই প্রতিস্থাপন করে সীমিত উচ্চতার সাবওয়ে নির্মাণের জন্য RCC (Reinforced Cement Concrete ) বক্স বসানো হয়েছে। অন্যদিকে মালদা ডিভিশনে দুমকা এবং বড়পলাশীর মাঝখানে লেভেল ক্রসিং গেট নম্বর ৪১ ও ৪২ এর প্রতিস্থাপনের জন্য সীমিত উচ্চতার সাবওয়ে এর জন্য RCC (Reinforced Cement Concrete ) বক্স বসানোর কাজ সম্পন্ন করা হয়েছে।

Avatar

আমি নীরাজনা নাগ। HoopHaap-এর একজন সাংবাদিক। বিগত চার বছর ধরে এই পেশার সঙ্গে যুক্ত রয়েছি। নিজের লেখার মাধ্যমে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাঠকদের কাছে পৌঁছে দিতে চাই