Hoop Life

VIDEO: শীতের শুরুতে খরচ বাঁচিয়ে বাড়িতেই বানিয়ে ফেলুন কোল্ড ক্রিম

কয়েকদিনের টানা বৃষ্টির পর বেশ ঠান্ডা পড়েছে, আর ঠান্ডা পড়া মানেই কিন্তু চামড়ায় টান ধরতে শুরু করা। এই টান ধরা যখনই শুরু হয়, তখনই কিন্তু আমরা সেই দোকানে গিয়ে বোতলে করে বডি লোশন কিনে আনি, কিন্তু আপনি কি জানেন বাড়িতে যদি কয়েকটা জিনিস ব্যবহার করতে পারেন, তাহলে আপনি বাড়িতে বানিয়ে ফেলতে পারেন অসাধারণ বডি লোশন কিংবা ময়েশ্চারাইজার।

এটি বানাতে আপনার প্রয়োজন গ্লিসারিন, গোলাপজল অ্যালোভেরা জেল এবং কমলালেবুর রস, ভিটামিন ই অয়েল। প্রত্যেকটি উপাদানই কিন্তু আপনার ত্বকের জন্য ভীষণ ভালো। গ্লিসারিন এবং অ্যালোভেরা জেল ত্বকে ময়েশ্চারাইস করতে সাহায্য করে, এছাড়াও কমলালেবুর রসের মধ্যে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি, যা ত্বকের রং পরিষ্কার করতে সাহায্য করে ত্বকের ওপরে হওয়া কালো দাগ সহজে দূর করতে সাহায্য করে।

বাজারে এখন অনেক পরিমানে কমলালেবু পাওয়া যাচ্ছে, তবে সব কমলালেবু কিন্তু মিষ্টি হচ্ছে না, যে কমলালেবুগুলো মিষ্টি নয়, একেবারে খেতে পারছেন না, সেই কমলালেবুর রস কিন্তু আপনার ত্বকের জন্য উপকারী। লেবু থেকে ভালো করে রস বার করে নিন এরপরে এই রসটি একটি আলাদা জায়গায় রেখে দিন।

আমরা অনেকেই জানি, গোলাপজল আমাদের ত্বকের জন্য ঠিক কতখানি উপকারি এবারে শীতে কিন্তু প্রচুর পরিমাণে গোলাপ ফুল ফুটবে, বাড়িতে যদি গোলাপের গাছ থাকে, তাহলে তো হয়ে গেল, না হলে দোকান থেকে দু একটা গোলাপ ফুল কিনে আনুন। এরপর গরম জলের মধ্যে এই পাপড়ি খুব ভালো করে ফুটিয়ে নিতে হবে, তারপরে জল ছেঁকে নিন, একেবারে তৈরি হয়ে যাবে বাড়িতে তৈরি করা গোলাপ জল।

গ্লিসারিন ত্বককে ময়েশ্চারাইজ করতে সাহায্য করে। শীতকাল মানেই কিন্তু গ্লিসারিনের ভীষণ প্রয়োজনীয়তা আপনি অনুভব করবেন। সেক্ষেত্রে কোন ওষুধের দোকান থেকে ভালো কোম্পানির গ্লিসারিন কিনে আনুন, গ্লিসারিন আমাদের ত্বক সুন্দর করতে, নরম করতে সাহায্য করে।

ভিটামিন ই অয়েল কিন্তু শরীরকে অনেক বেশি সুন্দর করতে সাহায্য করে এটিও কিন্তু আপনি ওষুধের দোকানে গেলে খুব সহজেই পেয়ে যাবেন, স্নান করার পরে আপনি যদি এই হাতে তৈরি বডি লোশন প্রতিদিন ব্যবহার করতে পারেন, তাহলে দেখবেন আপনার ত্বক একেবারে ফুলের মতন নরম হয়ে যাবে।

এছাড়াও যে উপাদানটি ছাড়া পুরো লোশনটা তৈরি হবে না, সেটি হলো অ্যালোভেরা জেল। বাড়িতে যদি গাছ থাকে, তাহলে তো হয়েই গেল, না হলে অ্যালোভেরা গাছের না হলে কোন ব্র্যান্ডেড কোম্পানির জেল ব্যবহার করতে পারেন। সব উপকরণ একসঙ্গে মিশে ফ্রিজে রেখে দিন। মোটামুটি তিন দিন ফ্রিজে রেখে কিন্তু আপনি ব্যবহার করতে পারবেন।

সতর্কীকরণ- উপরে উল্লেখিত কোনো উপাদানে অ্যালার্জি থাকলে ব্যবহারের আগে বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নেওয়া উচিত। এছাড়াও কোনোরকম সমস্যা এড়াতে আগে চিকিৎসকের সঙ্গে অবশ্যই কথা বলুন।