whatsapp channel

Viral Video: গান গেয়ে পথের কুকুরদের খাবার, জল দেওয়ার কাতর অনুরোধ এই যুবকের, দেখুন ভিডিও

বর্তমানে গোটা পশ্চিমবঙ্গ জুড়ে তীব্র দাবদাহের মধ্যে জীবন যাপন করেছেন আমজনতা। প্রচন্ড গরমে কলকাতার নগর জীবন রীতিমতন পাগল পাগল পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল তবে শুধুমাত্র কলকাতায় নয়, কলকাতার সংলগ্ন প্রত্যেকটা জায়গাতেই…

Avatar

Shreya Chatterjee

বর্তমানে গোটা পশ্চিমবঙ্গ জুড়ে তীব্র দাবদাহের মধ্যে জীবন যাপন করেছেন আমজনতা। প্রচন্ড গরমে কলকাতার নগর জীবন রীতিমতন পাগল পাগল পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল তবে শুধুমাত্র কলকাতায় নয়, কলকাতার সংলগ্ন প্রত্যেকটা জায়গাতেই কিন্তু তাপমাত্রা একেবারে রেকর্ড হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। আবহাওয়াবিদরা বলছেন, এল নিনোর প্রভাবেই নাকি এমনটা হচ্ছে। যেকোনো কারণেই হোক না কেন বিষয়টা কিন্তু সাধারণ মানুষের পক্ষে মেনে নেওয়া বা গ্রহণ করা সত্যিই খুব কষ্টকর হয়েছিল, বিশেষ করে যারা প্রতিদিন বাড়ির বাইরে বের হন এবং যাদের প্রতিদিন বাড়ির ভেতরে থেকে উনুন বা রান্নার গ্যাসের সামনে দাঁড়িয়ে রান্না করতে হয় তাদের অবস্থা একেবারে নাজেহাল হয়ে গিয়েছিল।

কিন্তু এ তো কেন মানুষের কথা, আমাদের জীবজগৎটা তো শুধুমাত্র মানুষকে কেন্দ্র করে নয়, গাছপালা পশু, পাখি অনেক কিছুই তাদের অবস্থাও কিন্তু সত্যি খুব বেদনাদায়ক হয়েছিল। মানুষ তবু রাস্তায় বেরোলে জল পাচ্ছিল। নানান রকম স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা দের পক্ষ থেকে এমন ব্যবস্থা করা হয়েছিল কিন্তু রাস্তায় যারা থাকে অর্থাৎ কুকুর বিড়াল তাদের অবস্থা কিন্তু সত্যিই শোচনীয় হয়েছিল। খাবারের অভাবে জলের অভাবে এত গরম থাকার জন্য কুকুর, বেড়ালদের সানস্ট্রোক হতে দেখা গেছে, তবে শুধু কুকুর, বেড়াল না পাখিদেরও সানস্ট্রোক ওই গাছ থেকে পড়ে যেতে দেখা গেছে ।

তাইতো বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া মারফত মানুষকে সচেতন করা হচ্ছিল। জানানো হচ্ছিল যে, এইরকম পরিস্থিতিতে এই অবলা পশুপাখি গুলোর পাশে থাকার জন্য ছাদে, উঠোনে, বাগানে পাখিদের জল খাওয়ার জন্য জায়গা রাখুন। দরকার হলে সেই জায়গার মধ্যে ওআরএস মিশিয়ে দিন। যাতে হিট স্ট্রোক বা ডিহাইড্রেশনের হাত থেকে পাখিরা বাঁচতে পারে। বড় জায়গার মধ্যে জল রাখার কথাও বলা হয়েছিল যাতে প্রয়োজনে তারা শরীরের অতিরিক্ত তাপ কমানোর জন্য একটু স্নান করে নিতে পারে

ফেসবুক খুললেই দেখা গিয়েছিল বিশেষ করে কুকুরেরা জলের মধ্যে নেমে রীতি মতন হাঁসফাঁস করছে। অনেক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা এই কুকুর বেড়াল পশু পাখিদের জন্য অনেক ব্যবস্থাও করেছেন, তেমনটাও আমরা দেখেছি গাছে গাছে পাত্রের মধ্যে জল দিয়ে বেঁধে দিয়েছেন। যাতে পাখিদের জল খেতে সুবিধা হয়, রাস্তার আশেপাশে পাত্রের মধ্যে ওআরএস দেওয়া জল দেওয়া হয়েছে। কুকুররা যাতে সেই জল খেয়ে সাময়িক স্বস্তি ফিরে পেতে পারে।

ফেসবুকে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে, যেখানে দেখতে পাওয়া যাচ্ছে একজন মানুষ এর হাতে তার বাজনা নিয়ে গান গাইছেন গলায় একটা লেখা ঝুলছে। সেই কাগজে লেখা আছে, কুকুর, বিড়ালদের জন্য এই গরমে রাস্তার আশেপাশে জল দেওয়ার কথা। আমির শেখ নামে এই ব্যক্তি তার নিজের ফেসবুক পেজ থেকে ভিডিওটি শেয়ার করেছেন। ইতিমধ্যেই হাজার হাজার মানুষের কাছে ভিডিওটি পৌঁছে গেছে। আশা করা যায়, তার এই কাতর আর্জি সকলের কাছে পৌঁছে যাবে।

Avatar

আমি শ্রেয়া চ্যাটার্জী। বর্তমানে Hoophaap-এর লেখিকা। লাইফস্টাইল এবং বিনোদনমূলক লেখা আপনাদের কাছে তুলে ধরি। অনলাইনের সুবাদে রান্নার রেসিপি, রূপচর্চা, কুকিং টিপস, বেড়ানোর জায়গার সন্ধান এগুলো যেমন জানা প্রয়োজন, ঠিক তেমনি মনোরঞ্জনের জন্য শর্টফিল্ম, সিরিজ এগুলোরও সমান গুরুত্ব। সমস্ত খবরকেই লেখার মাধ্যমে তুলে ধরার চেষ্টা করি। অনেক ধন্যবাদ সকলক