whatsapp channel

মধ্যবিত্তদের জন্য ধামাকা অফার, OPPO Reno 11 Pro 5G ফোনের দাম কমল হু হু করে

যারা ফোনের খোঁজ করছেন, তারা ভারতীয় বাজারে অসাধারণ একটা ফোন এসেছে তার খবর নিতে পারেন। জানুয়ারি মাসে ভারতীয় বাজারে OPPO Reno 11 সিরিজ করেছে। OPPO Reno 11 এবং OPPO Reno 11 Pro…

Avatar

Shreya Chatterjee

যারা ফোনের খোঁজ করছেন, তারা ভারতীয় বাজারে অসাধারণ একটা ফোন এসেছে তার খবর নিতে পারেন। জানুয়ারি মাসে ভারতীয় বাজারে OPPO Reno 11 সিরিজ করেছে। OPPO Reno 11 এবং OPPO Reno 11 Pro 5G স্মার্টফোন লঞ্চ করেছে। ২০০০ টাকা কমে এই ফোনটি অবশ্যই পাওয়া যাবে যারা চাইছেন খুব ভালো একটা স্মার্ট ফোন কিনতে তাদের কাছে দারুন একটা অপশন। ফোনটা কেমন এবং ফোনে নতুন দাম সম্পর্কে চলুন বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক।

Oppo Reno 11 Pro 5G ফোনটি ২০০০ টাকা কমে প্রায় ৩৭,৯৯৯ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে। এছাড়াও ব্র্যান্ডের পক্ষ থেকে 10 শতাংশ ক্যাশব্যাক এবং ৬ মাস no cost EMI এর সুবিধা পাওয়া যাচ্ছে। কেনাকাটার ভীষণ উপকারী একটা সাইট ফ্লিপকার্টে এসবিআই ক্রেডিট কার্ডের সাহায্যে ১০ শতাংশ ইনস্ট্যান্ট ডিসকাউন্ট পাওয়া যাচ্ছে। এই ফোনটি 39,999 টাকা দামে লঞ্চ করা হয়েছিল, তো ডিসকাউন্ট দেওয়ার পরে ফোনটি কিন্তু সাধারণের নাগালের মধ্যে চলে এসেছে, এই ফোনটির রং পার্ল হোয়াইট এবং রক গ্রে কালার অপশনে পেশ করা হয়েছিল।

ফোনটি সম্পর্কে চটপট জেনে ফেলুন –

1) ডিসপ্লে: এই ফোনে 2412 x 1080 পিক্সেল রেজোলিউশন সাপোর্টেড 6.7 ইঞ্চির ফুল এইচডি+ পাঞ্চ হোল ডিসপ্লে। এই স্ক্রিন কার্ভ এমোলেড প্যানেল দিয়ে বানানো। এতে 120 হার্টস রিফ্রেশরেট, 240 হার্টস টাচ স্যাম্পেলিং রেট, 950 নিটস ব্রাইটনেস এবং ইন ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর দেওয়া আছে।

২) প্রসেসর: এই ফোনটিতে 4 ন্যানোমিটার ফেব্রিকেশনে তৈরি এবং 3.1 গিগাহার্টস ক্লক স্পীডযুক্ত MediaTek Dimensity 8200 চিপসেট যোগ করা আছে। গ্রাফিক্সের জন্য এতে মালী-জি610 জিপিইউ দেওয়া হয়েছে।

৩) স্টোরেজ:  এই ফোনটি 12GB RAM সহ লঞ্চ করা হয়েছে। এছাড়াও এই ফোনে 12GB RAM expansion টেকনোলজি ব্যাবহার করা হয়েছে। ফিজিক্যাল এবং ভার্চুয়াল RAM মিলিয়ে মোট 24GB RAM। এই ফোনে UFS 3.1 256GB Storage আছে।

৪) রেয়ার ক্যামেরা: ফটো তোলার জন্য OPPO Reno 11 Pro ফোনের ব্যাক প্যানেলে f/1.8 অ্যাপার্চারযুক্ত 50MP ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স, f/2.0 অ্যাপার্চারের ক্ষমতাসম্পন্ন 32MP টেলিফটো লেন্স এবং f/2.2 অ্যাপার্চারযুক্ত 8MP আলট্রা ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স আছে। এই ফোনের HyperTone imaging engine শার্প এবং কালারফুল ফটোগ্রাফি করতে সক্ষম।

৫) ফ্রন্ট ক্যামেরা: সেলফি তোলার জন্য এই ফোনে f/2.4 অ্যাপার্চারের ক্ষমতাসম্পন্ন 32MP ফ্রন্ট ক্যামেরা দেওয়া হয়েছে। এতে Sony IMX709 সেন্সর ব্যাবহার করা হয়েছে এবং এটি ওপেন লুপ ফোকাস মোটর ও অটো ফোকাস সাপোর্ট করে। এতে 30FPS 4K ভিডিও রেকর্ডিং করা যায়।

৬) ব্যাটারি: OPPO Reno 11 Pro ফোনে 4,600mAh ব্যাটারি। এই ফোনটি খুব তাড়াতাড়ি চার্জ করার জন্য এতে 80W SUPERVOOC চার্জিং দেওয়া হয়েছে। কোম্পানির বক্তব্য অনুযায়ী এই ফোন মাত্র 5 মিনিটের মধ্যে 24 % চার্জ হয়ে যায় এবং 28 মিনিটে 0 থেকে ফুল চার্জ হয়।

Avatar

আমি শ্রেয়া চ্যাটার্জী। বর্তমানে Hoophaap-এর লেখিকা। লাইফস্টাইল এবং বিনোদনমূলক লেখা আপনাদের কাছে তুলে ধরি। অনলাইনের সুবাদে রান্নার রেসিপি, রূপচর্চা, কুকিং টিপস, বেড়ানোর জায়গার সন্ধান এগুলো যেমন জানা প্রয়োজন, ঠিক তেমনি মনোরঞ্জনের জন্য শর্টফিল্ম, সিরিজ এগুলোরও সমান গুরুত্ব। সমস্ত খবরকেই লেখার মাধ্যমে তুলে ধরার চেষ্টা করি। অনেক ধন্যবাদ সকলক