Advertisements

‘খারাপভাবে টাচ করছিল বারবার’, বাংলাদেশের নৃত্যশিল্পীর বিরুদ্ধে হেনস্থার অভিযোগ সায়ন্তিকার

Avatar

Nilanjana Pande

Follow
Advertisements

সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায় (Sayantika Banerjee) বর্তমানে যথেষ্ট কম ফিল্মে অভিনয় করেন। তবে রাজনীতির মঞ্চে তিনি নিয়মিত। সম্প্রতি টলিউডের গন্ডি পেরিয়ে সায়ন্তিকা পাড়ি দিয়েছিলেন বাংলাদেশ ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে যার পোশাকি নাম ঢালিউড। সেখানে গত অগস্ট মাস থেকে তাজু কামরুল (Taju Kamrul)-এর পরিচালনায় নির্মিত একটি ফিল্মের শুটিং করছিলেন তিনি। কিন্তু এর মধ্যেই দাবানলের মতো ছড়িয়ে পড়েছে বাংলাদেশের মাটিতে সায়ন্তিকার হেনস্থার খবর। এই কারণে শুটিং শেষ না করেই গত 7 ই সেপ্টেম্বর কলকাতায় ফিরে এসেছেন সায়ন্তিকা।

ঘনিষ্ঠ সূত্রে প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, শুটিংয়ের প্রথম দিন থেকে সবকিছুই ঠিকঠাক ছিল। কিন্তু এই ফিল্মের একটি গানের শুটিং করার পরেই ডান্স কোরিওগ্রাফার মাইকেল (Michael)-এর বিরুদ্ধে তাঁকে অশালীন ভাবে স্পর্শ করার অভিযোগ তুলেছেন সায়ন্তিকা। কিন্তু মাইকেলের কন্ঠে অন্য সুর। তিনি জানালেন, প্রথম গানের শুটিং শেষ করে তাঁরা দ্বিতীয় গানের শুটিং করছিলেন। নাচের স্টেপ দেখানোর জন্য হাত ধরার প্রয়োজন ছিল। কিন্তু সায়ন্তিকা মাইকেলকে বলেন তাঁর হাত না ধরে মুখেই স্টেপটি বুঝিয়ে দিতে। মাইকেল সায়ন্তিকার কথা অনুযায়ী কাজ করেন। সেই সময় নায়িকা তাঁকে কিছুই বলেননি। মাইকেলও সায়ন্তিকার কোনো অস্বস্তির আভাস পাননি। কিন্তু এরপরেই বিস্ফোরক হয়ে ওঠেন সায়ন্তিকা।

তিনি ফিল্মের পরিচালক ও প্রযোজকদের বলেন, মাইকেল এই ফিল্মের সাথে যুক্ত থাকলে কাজ করবেন না সায়ন্তিকা। এই বিষয়ে এখনও অবধি ফিল্মের প্রযোজক, পরিচালক ও সায়ন্তিকা নিজে মুখ খোলেননি। তবে অপর একটি সূত্র অনুযায়ী, সায়ন্তিকা জানিয়েছেন, তিনি পেশাদার অভিনেত্রী। সঠিক পদ্ধতিতে কাজ হলে তিনি তা নিয়ে সমস্যা তৈরি করেন না। ফলে এই ধরনের কোনো অশালীন ঘটনা ঘটেনি।

এই ফিল্মটি প্রযোজনা করছেন মনিরুল ইসলাম (Manirul Islam)। সায়ন্তিকা অভিযোগ করেছেন, বাংলাদেশ ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির প্রোডাকশনে বহু দুরবস্থা রয়েছে। এই কারণে নায়িকাকে বিভিন্ন সমস্যায় পড়তে হয়েছে। কিন্তু মনিরুল জানিয়েছেন, সায়ন্তিকা ডান্স কোরিওগ্রাফার মাইকেলকে নিয়ে অভিযোগ জানিয়েছিলেন। তিনি প্রযোজনা সংস্থার কাছে বলেছিলেন মাইকেলকে বাদ দিতে। কিন্তু খোঁজ নিয়ে জানা গিয়েছে, কাজের স্বার্থে মাইকেল নায়িকার হাত ধরেছিলেন। ফলে মাইকেলের কোনো দোষ নেই। এই কারণে প্রযোজনা সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, মাইকেলের সাথে সায়ন্তিকা কাজ না করলে তাঁর কাজ করার কোনো প্রয়োজন নেই।

ফলে পরদিন সকালে সায়ন্তিকা সেট ছেড়ে চলে গিয়েছেন। নিজের দেশের শিল্পীদের অসম্মান করে কাজ করতে চান না মনিরুল। তাঁর কাছে সম্মান বড়, আর্থিক ক্ষতি নয়।

Trending

Video

Shorts

whatsapp [#128] Created with Sketch.

Join

Follow