whatsapp channel

Sourav Ganguly: এই কারণেই বিরাটের থেকে অধিনায়কত্ব কেড়ে নিয়েছিল BCCI, গোপন কথা ফাঁস করলেন সৌরভ

ভারতে ক্রিকেটের জনপ্রিয়তা সর্বাধিক, একথা একবাক্যে স্বীকার করে সব দেশ। সবথেকে বেশি বার ক্রিকেট বিশ্বকাপের খেতাব জয় করেও অস্ট্রেলিয়া দেশে ক্রিকেটের এতটা জনপ্রিয়তা নেই, যতটা রয়েছে আমাদের এই দেড়শো কোটির…

Avatar

Debaprasad Mukherjee

ভারতে ক্রিকেটের জনপ্রিয়তা সর্বাধিক, একথা একবাক্যে স্বীকার করে সব দেশ। সবথেকে বেশি বার ক্রিকেট বিশ্বকাপের খেতাব জয় করেও অস্ট্রেলিয়া দেশে ক্রিকেটের এতটা জনপ্রিয়তা নেই, যতটা রয়েছে আমাদের এই দেড়শো কোটির দেশে। তাই ক্রিকেটের যেকোনো বিষয় নিয়েই সারা দেশে শুরু হয় চর্চা। সেটা কোনো ক্রিকেটারের উত্থান হোক কিংবা কোনো বিতর্ক- সব নিয়েই তৈরি হয় আলোচনা ও সমালোচনার মেঘ। আর তেমনই একটি বিতর্কিত বিষয় হল ভারতীয় দলের অধিনায়কত্ব থেকে বিরাট কোহলির (Virat Kohli) সরে দাঁড়ানো। অনেক বিরাট ভক্ত এই বিষয়টিকে মেনেই নিতে পারেননি। তাই বিতর্ক উঠেছিল চরমে।

অনেকেই বলেন যে ভারতীয় ক্রিকেটে সাফল্যের বীজ বপন করে গিয়েছেন ভারতের প্রথম বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক কপিল দেব (Kapil Dev)। তারপর সেই চারাগাছকে বেড়ে উঠতে সাহায্য করেছেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের প্রাক্তন অধিনায়ক সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় (Sourav Ganguly)। মহেন্দ্র সিং ধোনি (Mahendra Singh Dhoni) সেই সফলতার সিঁড়ি তৈরি করে তাতে আরোহণ করে দেখিয়ে দিয়েছেন। এর পর রোহিত শর্মার (Rohit Sharma) ক্যাপ্টেন্সি সবাই দেখেছে এই বিশ্বকাপে। কিন্তু এইসব ক্যাপ্টেনের মাঝে বিরাট কোহলি যেন একটি না বলা অধ্যায় হয়ে থেকে গেছে।

বিরাটের ক্যাপ্টেন্সিতে ভারতীয় ক্রিকেট দল একের পর এক শিখর ছুঁয়েছে। দিন দিন কোহলির ক্যাপ্টেন্সিতে ভারতীয় ক্রিকেট দল অপ্রতিরোধ্য হয়ে উঠেছিল। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনকভাবে বিরাটের ঝুলিতে আসেনি কোনো আইসিসি ট্রফি। সেই কারণেই অধিনায়কত্ব থেকে সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন ভারতের এই স্টার ক্রিকেটার। কিন্তু তাকে ক্যাপ্টেন্সি থেকে সরানোর পিছনে বিসিসিআই-এর চক্রান্তের একটি খবর সামনে এসেছিল। পাশাপাশি এর পিছনে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের হাত ছিল বলেও দাবি করেন বিরাট ভক্তরা। কিন্তু আদতে যে সেটি নয়, তা এবার জানিয়ে দিলেন সৌরভ নিজেই।

সম্প্রতি, জি-বাংলার জনপ্রিয় রিয়েলিটি শো ‘দাদাগিরি’-র মঞ্চেই এই পুরানো বিষয়ে অকপটে জবাব দেন মহারাজ। এই বিষয়ে সৌরভ বলেন, “আমি বিরাটকে ভারতের নেতৃত্ব থেকে সরাইনি। এটা নিয়ে কিন্তু এর আগেও আমি অনেকবার বলেছি। বিরাট টি-টোয়েন্টিতে ভারতীয় টিমের নেতৃত্ব দিতে রাজি ছিল না। ও যখন নেতৃত্ব ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে নিয়েছিল, তখন ওকে আমি বলি, যদি তুমি টি-টোয়েন্টিতে নেতৃত্ব দিতে আগ্রহী না হও, তা হলে পুরো সাদা বলের ক্রিকেটেই আর ক্যাপ্টেন্সি করো না। লাল ও সাদা বলের ক্রিকেটে দু’জন ক্যাপ্টেন হোক।”

Avatar

Hoophaap-এর সম্পাদক দেবপ্রসাদ বিগত কয়েক বছর যাবৎ সাংবাদিকতার সঙ্গে যুক্ত। ডিজিটাল মিডিয়ার হাত ধরেই সাংবাদিকতায় হাতেখড়ি। রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা, লাইফস্টাইল, প্রযুক্তি প্রভৃতি সব ধরণের খবরের উপস্থাপনার কাজে যথেষ্ট সাবলীল। নিউজ ডেস্ক ছাড়াও রয়েছে ভিডিও এডিটিং এবং ক্যামেরার পিছনে বিচিত্র অভিজ্ঞতা