TollywoodHoop PlusHoop Viral

Subhashree Ganguly: তাড়াহুড়োয় প্যান্ট পরতেই ভুলে গেলেন! শুভশ্রীর কাণ্ডে ট্রোলের ঝড় নেটপাড়ায়

Advertisements

মাস দুয়েক আগেই দ্বিতীয় সন্তানের মা হয়েছেন শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায় (Subhashree Ganguly)। টলিউড ইন্ডাস্ট্রির প্রথম সারির অভিনেত্রী এখন একজন দায়িত্ববান মা-ও বটে। প্রথম সন্তান ইউভানের জন্ম দিয়েছিলেন তিনি বছর তিনেক আগে। তখন থেকেই ঘর এবং বার দুটোই সুন্দর ভাবে সামলে আসছেন শুভশ্রী। এবার তাঁদের সুখের সংসারে এসেছে ইয়ালিনী। দায়িত্বও বেড়েছে অনেকটা। তবুও নিজের কাজের প্রতি কিন্তু এতটুকু অমনোযোগী হননি শুভশ্রী।

সন্তান জন্মের কার্যত আগের মুহূর্ত পর্যন্ত কাজ করেছেন তিনি। রিয়েলিটি শোয়ের শুটিং, ফটোশুটে ব্যস্ত রেখেছিলেন নিজেকে। মা হওয়ার পরেও বিশ্রাম নিতে দেখা যায়নি অভিনেত্রীকে। কিছুদিন বাড়িতে থেকেই ফের বাইরে বেরিয়ে পড়েছিলেন তিনি। কখনো রাজের সঙ্গে মুভি ডেটে, কখনো ফ্যামিলি ভ্যাকেশনে যেতে দেখা গিয়েছে শুভশ্রীকে। এবার কাজেও ফিরেছেন তিনি। কিন্তু এত কিছু সত্ত্বেও ট্রোলিং থেকে রেহাই মিলছে না তাঁর।

Subhashree Ganguly: তাড়াহুড়োয় প্যান্ট পরতেই ভুলে গেলেন! শুভশ্রীর কাণ্ডে ট্রোলের ঝড় নেটপাড়ায়

সম্প্রতি শুভশ্রীর একটি ভিডিও ঘিরে হাসাহাসি শুরু হয়েছে নেট মাধ্যমে। আবির চট্টোপাধ্যায়, পরাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের নতুন ছবি ‘বাদামী হায়েনার কবলে’ মুক্তি পেয়েছে সম্প্রতি। সেই ছবির প্রিমিয়ারে হাজির হয়েছিলেন শুভশ্রী। তাঁর পরনের পোশাক নিয়েই যত কাণ্ড। এদিন একটি মনোক্রোম ধূসর রঙের পোশাকে দেখা গেল অভিনেত্রীকে। একটি শর্ট টপ, ততোধিক শর্ট স্কার্ট আর ব্লেজার পরেছিলেন তিনি। সঙ্গে পায়ে হাই হিল। কিন্তু তাঁর লুক দেখেই হেসে গড়াগড়ি খাওয়ার জোগাড় নেটিজেনদের।

একজন লিখেছেন, ‘দুই বাচ্চার মা, নিজেকে কচি খুকি মনে করে। একটুও লজ্জা করে না’। আরেকজনের প্রশ্ন, ঠাণ্ডা লাগে না পায়ে? আরেকজন লিখেছেন, ‘মনে হয় প্যান্ট পরতে ভুলে গিয়েছে। নয়তো এই শীতে কেউ এগুলো পরে’। শুধু তাই নয়, বডি শেমিং করতেও ছাড়েনি অনেকে। অবশ্য এমন ট্রোলিংয়ের শিকার শুভশ্রী আগেও হয়েছেন। কিন্তু এসবে পাত্তা দিতে রাজি নন তিনি। নিজের কাজ এবং পরিবার নিয়েই বেশ সুখে রয়েছেন এখন শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায়।

Nirajana Nag

আমি নীরাজনা নাগ। HoopHaap-এর একজন সাংবাদিক। বিগত চার বছর ধরে এই পেশার সঙ্গে যুক্ত রয়েছি। নিজের লেখার মাধ্যমে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাঠকদের কাছে পৌঁছে দিতে চাই