Hoop LifeHoop Fitness

Banana Benefits: বাড়ায় হজমশক্তি, ত্বক করবে চকচক, পুষ্টিগুণে ভরপুর কলায় কী কী উপকার জানেন!

Advertisements

প্রিয় ফল হিসেবে খানিক উপেক্ষিত হলেও অনেকেই ব্রেকফাস্টে কলা (Ripe Banana) খেতে পছন্দ করেন। শরীরে এনার্জির অন্যতম উৎস কলা। কলা খেলে যেমন পেট ভরা থাকে, তেমনি বিপাক ক্রিয়ার ক্ষেত্রেও কলা খুবই কার্যকর। পুষ্টিগুণে ভরপুর এই ফল খেলে কী কী উপকার হতে পারে তা জানলে অবাক হয়ে যাবেন। কলা খেলে কী উপকার হয় স্বাস্থ্যের, বিস্তারিত জানতে এই প্রতিবেদনটি পুরোটা পড়ুন।

কলায় রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন বি ৬, যা শরীরে লোহিত রক্তকণিকা তৈরিতে সাহায্য করে। পাশাপাশি এই ফলে রয়েছে ম্যাঙ্গানিজ, পটাসিয়াম এর মতো খনিজ। শরীরে পটাসিয়ামের মাত্রা ঠিক রাখে কলা। এছাড়াও রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে থাকে কলা খেলে। কলায় থাকা ম্যাঙ্গানিজ ত্বকের স্বাস্থ্য রক্ষা করে যারা ডায়েট করেন, তাদের জন্য কাঁচকলা খাওয়া ভালো। কারণ কাঁচকলা ওজন কমাতে সাহায্য করে।

Banana Benefits: বাড়ায় হজমশক্তি, ত্বক করবে চকচক, পুষ্টিগুণে ভরপুর কলায় কী কী উপকার জানেন!

কলা হার্ট ভালো রাখতে সাহায্য করে। কোলন ক্যানসার, টাইপ ২ ডায়াবেটিসের মতো রোগ দূরে থাকে কলা খেলে। কলায় রয়েছে পেকটিন নামক ফাইবার যা বিপাক ক্রিয়ায় সহায়তা করে। কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা দূর হয় কলা খেলে। কাঁচকলাতেও অতিরিক্ত ফাইবার থাকে যা খারাপ কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণে রাখে। এর ফলে হার্টের স্বাস্থ্য বজায় থাকে।

কলায় রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ইলেকট্রোলাইটস যা শরীরের ভিটামিন এবং মিনারেলস এর মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখে। শরীরকে সুস্থ, সজীব রাখে। কলা খেলে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে। কারণ কলায় রয়েছে ভিটামিন সি এবং অ্যান্টি অক্সিডেন্ট। শরীরকে বহু সংক্রমণ থেকে রক্ষা করে কলা। ডায়াবেটিসের রোগীদের কাঁচকলা খাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়। কারণ কাঁচকলা রক্তে শর্করার পরিমাণ বাড়তে দেয় না। নিয়ন্ত্রণে রেখে ডায়াবেটিস প্রতিকারে সাহায্য করে। তাই ডায়াবেটিসে আক্রান্তদের কাঁচকলা খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকেন চিকিৎসকরা।  চিকিৎসকরা নিয়মিত একটি করে কলা খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকেন।

Disclaimer: বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ এবং মতামতের ভিত্তিতে লেখা হয়েছে প্রতিবেদনটি। ব্যক্তিবিশেষে এর ফল হতে পারে ভিন্ন।

Nirajana Nag

আমি নীরাজনা নাগ। HoopHaap-এর একজন সাংবাদিক। বিগত চার বছর ধরে এই পেশার সঙ্গে যুক্ত রয়েছি। নিজের লেখার মাধ্যমে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাঠকদের কাছে পৌঁছে দিতে চাই