Hoop News

আধারের ঝামেলা শেষ, এই দিন থেকেই সব কাজে দরকার হবে এই গুরুত্বপূর্ণ নথি

বর্তমানে যেকোনো সরকারি বা গুরুত্বপূর্ণ কাজে পরিচয়পত্র হিসেবে বিশেষ গুরুত্ব বহন করে আধার কার্ড (Aadhaar Card)। দেশের প্রতিটি মানুষের আধার কার্ড তৈরি করার উপরে প্রথম থেকেই জোর দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। পরবর্তীকালে আধারের সঙ্গে প্যান কার্ড সংযুক্তিকরণ এর মতো বিষয় নিয়েও বিস্তর লেখালেখি হয়েছে। কিন্তু বিষয়টা শুরুতে যতটা সহজ ছিল, এখন ততটাই সমস্যার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। নিত্য নতুন নিয়মে নাকাল আমজনতা। উপরন্তু সরকারি কাজের জন্য শুধু আধার নয়, প্রয়োজন আরো একাধিক জরুরি কাগজপত্রের। কোনটা দরকার কোনটা দরকার নয়, এটা ভাবতে ভাবতেই নাজেহাল অবস্থা হয় অধিকাংশের।

তাই সাধারণ মানুষের কথা ভেবেই এক বড়সড় বদল নিয়ে আসতে চলেছে কেন্দ্রীয় সরকার। আগামী ১ লা অক্টোবরের মধ্যেই বিবিধ সরকারি কাজে আধার ছাড়াই একটি বিশেষ নথির সাহায্য লাগবে। এই বিশেষ নথি হল জন্ম শংসাপত্র। আগামী ১ লা অক্টোবর থেকে গোটা দেশে কার্যকর হবে জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন সংশোধন আইন। এদিন থেকে সব বিষয়ে জন্ম শংসাপত্র মুখ্য ভূমিকা পালন করবেন।

জানা যাচ্ছে, এবার থেকে যেকোনো পরীক্ষায় নথি জমা দেওয়ার জন্য, স্কুল কলেজে ভর্তির আবেদন, ড্রাইভিং লাইসেন্সের জন্য আবেদন থেকে শুরু করে আধার রেজিস্ট্রেশন এর আবেদনের নিয়মাবলীতেও ব্যবহার করা যাবে জন্ম শংসাপত্র। এই চলতি বছর ১ লা অগাস্ট লোকসভায় এবং ৭ অগাস্ট রাজ্যসভায় পাশ হয়েছিল জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন সংশোধনী বিল। অবশেষে সরকারের তরফে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানানো হয়েছে, আগামী ১ লা অক্টোবর থেকেই কার্যকরী হবে নয়া আইন এবং তার সঙ্গে যুক্ত হবে নতুন নিয়ম।

জন্ম শংসাপত্র দিয়েই করা যাবে আধারের রেজিস্ট্রেশন, তোলা যাবে ভোটার কার্ডে নাম। আধারের বদলে মুখ্য গুরুত্বপূর্ণ নথি হয়ে উঠবে জন্ম শংসাপত্র। এও জানা যাচ্ছে, কাগজের শংসাপত্রের বদলে আসবে ডিজিটাল সার্টিফিকেট যেখানে এটিএম কার্ড, ড্রাইভিং লাইসেন্সের মতো বিশেষ চিপ লাগানো থাকবে বলেও শোনা যাচ্ছে।