whatsapp channel

সত্যিই লন্ডন হবে কলকাতা, নতুন বছরেই একগুচ্ছ উপহার পাচ্ছে শহরবাসী

নতুন বছর (New Year) মানেই নতুন সুযোগ, নতুন আশা, নতুন স্বপ্ন। এতদিন ধরে যে স্বপ্ন দেখে এসেছে কলকাতাবাসী (Kolkata) সেগুলি এবার পূরণ হওয়ার পালা। ২০২৪ এ একগুচ্ছ উপহার পেতে চলেছে…

Avatar

Nirajana Nag

নতুন বছর (New Year) মানেই নতুন সুযোগ, নতুন আশা, নতুন স্বপ্ন। এতদিন ধরে যে স্বপ্ন দেখে এসেছে কলকাতাবাসী (Kolkata) সেগুলি এবার পূরণ হওয়ার পালা। ২০২৪ এ একগুচ্ছ উপহার পেতে চলেছে শহর কলকাতা। সেগুলি কী কী? প্রথমেই আসা যাক মেট্রোর (Kolkata Metro) প্রসঙ্গে। ২০২৪ সালের ফেব্রুয়ারি মাসেই গ্রিন লাইন বা ইস্ট ওয়েস্ট মেট্রোর কাজ শেষ হওয়ার কথা রয়েছে। এসপ্ল্যানেড থেকে হাওড়া ময়দান পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে এই লাইন। গঙ্গার নীচ দিয়ে বিস্তৃত এই মেট্রোর কাজের পরিস্থিতি দফায় দফায় পরিদর্শন করেছেন মেট্রো কর্তারা। কবে নাগাদ কোন লাইনের কাজ শেষ হচ্ছে?

অরেঞ্জ লাইন ফেজ ১, নিউ গড়িয়া থেকে রুবি পর্যন্ত ৫.৪ কিমি বিস্তৃত লাইনের কাজ শেষ হচ্ছে নতুন বছরের জানুয়ারি মাসেই। অরেঞ্জ লাইন ফেজ ২, নিউ গড়িয়া থেকে মেট্রোপলিটান অংশের কাজ শেষ হবে মার্চ মাস নাগাদ। পার্পল লাইন, তারাতলা মাঝেরহাট অংশের কাজও শেষ হতে পারে জানুয়ারি মাসেই। এছাড়া ধারা ওয়াটার ট্রিটমেণ্ট প্লান্ট এবং গড়িয়া ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্লান্টও শুরু হতে চলেছে ২০২৪ সালেই।

এই বছরই কলকাতা বিমানবন্দরের সম্প্রসারণ হওয়ার কথা রয়েছে। সম্প্রসারণ হতে পারে টার্মিনাল বিল্ডিং এর। প্রায় ১৩০ কোটি টাকা খরচ হতে পারে এই খাতে। ২০১৯ সালে কালীঘাট স্কাইওয়াক তৈরির কাজ শুরু হয়েছিল, যেটা ২০২৪ এর মে মাসেই শেষ হওয়ার কথা রয়েছে। প্রায় ১০০ কোটি টাকা খরচ হতে পারে এই প্রকল্পে। এছাড়াও একাধিক বেসরকারি হাসপাতালে পরিকাঠামোগত উন্নয়নের কথাও রয়েছে এই বছরেই।

বদল আসতে চলেছে কলকাতার রাস্তায়। গণপরিবনে বড়সড় পরিবর্তন আসতে চলেছে। পুরনো বাসের বদলে শহরের রাস্তায় নামবে নতুন বাস। পাশাপাশি ইলেকট্রিক বাসের সংখ্যাও বাড়ানো হবে বলে খবর। এছাড়াও আসছে নতুন উপহার। দুটি সম্পূর্ণ নতুন ডপলার ওয়েদার রাডার নিয়ে আসা হচ্ছে ডায়মন্ড হারবার এবং মালদায়। এতে আবহাওয়া সংক্রান্ত পূর্বাভাসও পাওয়া যাবে আরও স্পষ্ট ভাবে।

Avatar

আমি নীরাজনা নাগ। HoopHaap-এর একজন সাংবাদিক। বিগত চার বছর ধরে এই পেশার সঙ্গে যুক্ত রয়েছি। নিজের লেখার মাধ্যমে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাঠকদের কাছে পৌঁছে দিতে চাই