Bengali SerialHoop Plus

Annwesha Hazra: ভোর ৪টে পর্যন্ত জাগা, কেরিয়ারের দুশ্চিন্তায় রাতের ঘুম উড়ল ‘সন্ধ্যা’র

‘সন্ধ্যা’ হয়ে সবার মন জয় করেছেন তিনি। স্টার জলসায় তাঁর ধারাবাহিক ‘সন্ধ্যাতারা’ বাংলার বহু দর্শকদের প্রিয় হয়ে উঠেছে। হ্যাঁ, কথা হচ্ছে অভিনেত্রী অন্বেষা হাজরার (Annwesha Hazra) ব্যাপারে। টেলিভিশন নায়িকাদের মধ্যে তাঁর স্থান প্রথম দিকেই থাকবে জনপ্রিয়তার ক্ষেত্রে। যে চ্যানেলে যে ধারাবাহিক আর যেমনি চরিত্র হোক না কেন, তাঁর অভিনয় প্রতিভা লাইমলাইট কেড়ে নেয় প্রতিবারই। কিন্তু সম্প্রতি এমন এক কাণ্ড ঘটে যায় অন্বেষার জীবনে, যে রাতের ঘুম উড়ে যাওয়ার জোগাড় হয়েছিল তাঁর।

ঠিক কী হয়েছে? আসলে সম্প্রতি হ্যাকারদের কবলে চলে গিয়েছিল অন্বেষার ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট। রাতের ঘুম কার্যত উবে গিয়েছিল তাঁর। সোশ্যাল মিডিয়া এখন যেভাবে সকলের কাছে গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে, তেমন ভাবেই এর বিপদও কিন্তু কম নয়। নেট দুনিয়ায় নানান ধরণের ফাঁদ ছড়িয়ে রেখেছে সাইবার প্রতারকরা। কেউ ফাঁদে ভুল করে পা দিয়ে ফেললেই তার অ্যাকাউন্ট চলে যায় প্রতারকদের কবলে। বিশেষ করে অভিনেতা অভিনেত্রীরা বহুবার হ্যাকারদের ফাঁদে পড়েছেন। এই তালিকায় সম্প্রতি নাম লেখালেন অন্বেষা।

শুক্রবার মধ্যরাতে হঠাৎ করেই অভিনেত্রী জানতে পারেন, তাঁর ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টটি হ্যাক হয়ে গিয়েছে। সন্ধ্যাতারার শুটিং সেরে ফিরে বাড়িতে সবে মাত্র বিশ্রাম নিচ্ছিলেন অন্বেষা। তখনই দেখেন তাঁর অ্যাকাউন্ট হ্যাকের চেষ্টা করা হচ্ছে। ফেসবুক অ্যাকাউন্টে এক লাইনের একটি পোস্টও শেয়ার করেন অভিনেত্রী। লেখেন, ‘আমার ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইল হ্যাক হয়ে গিয়েছে’।

সংবাদ মাধ্যমকে অন্বেষা বলেন, তাঁর ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইল মূলত তাঁর সহকারীর দায়িত্বে রয়েছে। শুক্রবার বাড়ি ফিরে ইনস্টাগ্রাম খুলে তিনি দেখেন, অন্য একটি মোবাইল থেকে লগ ইন করা হয়েছে। তিনি প্রথমে ভেবেছিলেন, তাঁর সহকারীই হয়তো কিছু করেছেন। কিন্তু তারপরেই ভুল ভাঙে তাঁর। অন্বেষা দেখেন, শহরের এবং বাইরের বিভিন্ন জায়গা থেকে লগ ইন করার চেষ্টা করা হচ্ছে। তাড়াতাড়ি লগ আউট হয়ে যান তিনি প্রোফাইল থেকে। তাঁর সহকারীও পরে একই কথা বলেন। অন্বেষা জানান, তাঁর ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলটি আর দেখা যাচ্ছে না। শুক্রবার ভোর ৪ টে পর্যন্ত তিনি জেগে ছিলেন দুশ্চিন্তায়। আসলে বেশ কিছু সংস্থার বিজ্ঞাপন এবং অন্যান্য প্রোজেক্টের জন্য কথা হয়েছিল তাঁর। সেসবের এখন কী হবে তা জানেন না অভিনেত্রী। তবে সাইবার ক্রাইম বিভাগে যোগাযোগ করেছেন বলে জানান অন্বেষা।