Advertisements

গোল্ড মেডেল বেচে চালাতে হয়েছে সংসার, অতীতের কষ্ট নিয়ে মুখ খুললেন ছন্দা চট্টোপাধ্যায়

Nirajana Nag

Nirajana Nag

Follow

বড়পর্দা থেকে ছোটপর্দা, অভিনেত্রী ছন্দা চট্টোপাধ্যায়ের (Chhanda Chatterjee) প্রতিভা দুই মাধ্যমেই মুগ্ধ করেছে দর্শকদের। দীর্ঘদিন ধরে বাংলা বিনোদন জগতে রয়েছেন তিনি। বিভিন্ন ছবিতে বিভিন্ন চরিত্রে তাঁর অভিনয় দক্ষতা মন জিতেছে সকলের। বর্তমানে ৮০ ছুঁয়েও ছোটপর্দায় এক নাগাড়ে কাজ করে চলেছেন তিনি। বয়স শুধুই একটি সংখ্যা মাত্র, এটাই বারংবার প্রমাণ করে চলেছেন বর্ষীয়ান অভিনেত্রী।

বাংলা অভিনয় জগতের বহুদিনের সদস্য ছন্দা চট্টোপাধ্যায়। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে নিজের ব্যক্তিগত জীবনের কথা বলতে গিয়ে অতীতের দিকে ফিরে তাকান তিনি। বর্ষীয়ান অভিনেত্রী বলেন, ছোট থেকেই তিনি কারোর কাছে কিছু চাওয়া পছন্দ করেন না। সেটা বাবা মায়ের থেকেই হোক বা অন্য কারোর কাছ থেকে। এর জন্য কোনোদিন খেতেন, কোনোদিন খেতেন না। অভিনেত্রী জানান, ‘টিনের তলোয়ার’ ছবির জন্য পুরস্কার নিতে গিয়েছিলেন তিনি খালি পেটে। বিস্কুট খেয়ে ফিরতেন, বাড়ি ফেরার সময় চপ মুড়ি কিনে খেতেন। এমন নয় যে তাঁদের অবস্থা খারাপ ছিল। কিন্তু কারোর কাছ থেকে চাওয়া পছন্দ করতেন না।

ছন্দা চট্টোপাধ্যায় জানান, হরেন মুখার্জীর কাছ থেকে গোল্ড মেডেল পেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু পরিস্থিতির কারণে বিক্রি করে দিতে হয়েছে তাও। কারোর থেকে টাকা চাইবেন না, তাই টালিগঞ্জ থেকে হেঁটে যাওয়া আসা করতেন। তখন তাঁর ছিল মোটে ৮ বছর। আর এখন এই ৮০ বছরে এসে অভিনেত্রী ভাবেন, তখন কী করে পেরেছিলেন। তখন একবেলা খাওয়া হলে আরেক বেলা খেতেন না। আর এখন সবকিছু নিয়ে চলতে হয়।

দীর্ঘ অভিনয় জীবনে কোনো আক্ষেপ থেকে গিয়েছে? এই প্রশ্নের উত্তরে বর্ষীয়ান অভিনেত্রী বলেন, তিনি কোনো কিছু নিয়েই আক্ষেপ করেন না। সবসময় সামনের দিকেই এগিয়ে চলেন। ৮০ বছরেও কাজ করে চলেছেন তিনি। এ বিষয়ে অভিনেত্রী বলেন, এনার্জি চাইলেই পাওয়া যায়। কেউ যদি মানসিক ভাবে বলে যে এটা করতে চান তাহলে ঠিকই হয়ে যাবে।

Nirajana Nag

আমি নীরাজনা নাগ। HoopHaap-এর একজন সাংবাদিক। বিগত চার বছর ধরে এই পেশার সঙ্গে যুক্ত রয়েছি। নিজের লেখা...

Trending

Video

Shorts

whatsapp [#128] Created with Sketch.

Join

Follow