whatsapp channel

মুম্বইয়ে চারটি ফ্ল্যাট, বিলাসবহুল জীবন ছেড়ে পড়ে থাকেন জিয়াগঞ্জে, কত টাকার সম্পত্তির মালিক অরিজিৎ!

আজ তাঁর দিন। যাঁর সুরের মূর্ছনায় দোলা দিয়ে যায় প্রতিটি বয়সের শ্রোতাদের মনে, আনন্দ, দুঃখ কিংবা হইহুল্লোড়, মেজাজ যেমনই হোক না কেন, তাঁর গানেই ভরসা রাখেন সঙ্গীতপ্রেমীরা। তিনি অরিজিৎ সিং…

Avatar

Nirajana Nag

আজ তাঁর দিন। যাঁর সুরের মূর্ছনায় দোলা দিয়ে যায় প্রতিটি বয়সের শ্রোতাদের মনে, আনন্দ, দুঃখ কিংবা হইহুল্লোড়, মেজাজ যেমনই হোক না কেন, তাঁর গানেই ভরসা রাখেন সঙ্গীতপ্রেমীরা। তিনি অরিজিৎ সিং (Arijit Singh)। দেশের এক নম্বর গায়কদের মধ্যে একজন হয়েও তিনি মাটির কাছাকাছি রেখেছেন নিজেকে। সকলের প্রতি তাঁর এই আন্তরিক ব্যবহারই অরিজিৎকে সবার পছন্দের করে তুলেছেন।

তিনি যে বর্তমানে এত জনপ্রিয় একজন গায়ক তা যেন কাউকে বুঝতেই দেন না অরিজিৎ। সকলের সঙ্গেই আপন জনের মতো মিশে যান তিনি। বিশেষ করে জিয়াগঞ্জে অরিজিতের পৈতৃক বাড়ির প্রতিবেশীদের সঙ্গে আলাদাই আন্তরিক সম্পর্ক গায়কের। একেবারে পাশের বাড়ির ছেলের মতোই সবার সঙ্গে মেশেন অরিজিৎ। তাঁর এমন আন্তরিক ব্যবহার, নম্র আচরণে মুগ্ধ সকলেই। তারকাসুলভ হাবভাবের বিন্দুমাত্রও তাঁর মধ্যে নেই।

অথচ সঙ্গীত জগতে কিন্তু কম দিন হল না অরিজিতের। গোটা দেশে তাঁর জনপ্রিয়তা তুঙ্গে। বর্তমানে দেশের এক নম্বর গায়কদের মধ্যে তিনি একজন। স্বাভাবিক ভাবেই রোজগারও কম হয় না তাঁর। প্রায় প্রতিটি ছবিতে প্লেব্যাক সিঙ্গিং করে থাকেন তিনি। এছাড়াও রয়েছে নানান কনসার্ট। যদিও বিভিন্ন সমাজকল্যাণমূলক কাজে নিজের উপার্জনের একটি বড় অংশ দিয়ে থাকেন তিনি। তবুও তা বাদ দিয়েও কিন্তু সম্পত্তির পরিমাণ বড় কম নয় অরিজিতের।

সূত্রের খবর মানলে, অরিজিতের বার্ষিক আয় আনুমানিক ৬ কোটি টাকা। বেশিরভাগ সময়ে জিয়াগঞ্জের বাড়িতে তাঁকে দেখা গেলেও মুম্বইতে চারটি ফ্ল্যাট রয়েছে তাঁর। এই ফ্ল্যাট গুলির আনুমানিক মূল্য ৯ কোটি টাকা। বেশ কয়েকটি বিলাসবহুল গাড়িও তাঁর রয়েছে বলে জানা যায়। সূত্রের খবর, ছবিতে এক একটি গান গাওয়ার জন্য আনুমানিক ৮-১০ লক্ষ টাকা পারিশ্রমিক নেন অরিজিৎ। কনসার্টের জন্যও প্রায় কয়েক লক্ষ থেকে কোটি টাকা মতো নেন তিনি। জানা যায়, অরিজিতের মোট সম্পত্তির পরিমাণ প্রায় ৫৫ কোটি টাকা। তবে পাশাপাশি নিজস্ব কয়েকটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা রয়েছে তাঁর। নিজের উপার্জনের অনেক টাকাই তিনি সমাজসেবায় দেন। জিয়াগঞ্জে উন্নত মানের হাসপাতাল তৈরি করার পরিকল্পনা রয়েছে তাঁর। দুঃস্থ শিশুদের হার্টের চিকিৎসা থেকে গানের স্কুল, ইংরেজি শিক্ষার কোচিংয়েও টাকা দিয়েছেন অরিজিৎ।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Arijit Singh (@arijitsingh)

Avatar

আমি নীরাজনা নাগ। HoopHaap-এর একজন সাংবাদিক। বিগত চার বছর ধরে এই পেশার সঙ্গে যুক্ত রয়েছি। নিজের লেখার মাধ্যমে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাঠকদের কাছে পৌঁছে দিতে চাই