whatsapp channel

Kangana Ranaut: এটা কি ধরণের শয়তানি: কঙ্গনা রাণাওয়াত

সাম্প্রতিক কালে কঙ্গনা রাণাওয়াত (Kangana Ranaut)-এর কাছে সবচেয়ে বড় পাওনা হল তাঁর টুইটার অ্যাকাউন্ট যা আবারও সক্রিয় হয়েছে। কঙ্গনা আবারও বুঝিয়ে দিচ্ছেন , তিনি কাউকে ছেড়ে কথা বলেন না। কিন্তু…

Avatar

Nilanjana Pande

সাম্প্রতিক কালে কঙ্গনা রাণাওয়াত (Kangana Ranaut)-এর কাছে সবচেয়ে বড় পাওনা হল তাঁর টুইটার অ্যাকাউন্ট যা আবারও সক্রিয় হয়েছে। কঙ্গনা আবারও বুঝিয়ে দিচ্ছেন , তিনি কাউকে ছেড়ে কথা বলেন না। কিন্তু এবার অদ্ভুত কান্ড ঘটালেন তিনি। নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকী (Nawazuddin Siddiqi)-র সমর্থনে কথা বললেন কঙ্গনা। নওয়াজের সাথে তাঁর স্ত্রী আলিয়া (Alia Siddiqi) -র দাম্পত্য সমস্যা এই মুহূর্তে চরমে উঠেছে। এই সমস্যার জন্য আলিয়াকেই দায়ী করলেন কঙ্গনা।

কয়েকদিন আগে আলিয়া সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও শেয়ার করেছিলেন যাতে তিনি বলেছিলেন, নওয়াজ তাঁর ঔরসজাত সন্তানকে অস্বীকার করেছেন। এই সন্তান নওয়াজ ও আলিয়ার দ্বিতীয় সন্তান। এমনকি নওয়াজ ও তাঁর পরিবার আলিয়াকে খেতে দিতেন না। ব্যবহার করতে দিতেন না শৌচাগারও। আদালতে ডোমেস্টিক ভায়োলেন্স কথা জানিয়ে নওয়াজের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন আলিয়া। কিন্তু কঙ্গনা আলিয়ার ভিডিওটি রিপোস্ট করে লিখেছেন, নওয়াজকে তাঁর বাড়ি থেকে বার করে দেওয়া হয়েছে দেখে যথেষ্ট খারাপ লাগছে কঙ্গনার। কঙ্গনা জানিয়েছেন, নওয়াজ এত দিন ধরে যা উপার্জন করেছেন, তা নিজের ভাইদের জন্য ব্যয় করেছেন তিনি।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Kangana Ranaut (@kanganaranaut)

আলিয়া দুবাইয়ে থাকতেন। তাঁকেও মুম্বইয়ে ফ্ল্যাট কিনে দিয়েছিলেন নওয়াজ। তবে এই বাংলোটি নওয়াজ নিজের মায়ের জন্য কিনেছিলেন বলে জানিয়েছেন কঙ্গনা। এমনকি তাঁরা একসাথে এই বাংলোটি সাজানো নিয়ে অনেক কথাও বলেছেন। কিন্তু বর্তমানে আলিয়া নওয়াজকে বাংলো থেকে বার করে নিজে বাংলোটির দখল নিয়েছেন। আলিয়ার পোস্ট করা ভিডিওয় বাংলোর বাইরে দাঁড়িয়ে তাঁর সাথে নওয়াজকে কথা বলতে দেখে কষ্ট পেয়েছেন কঙ্গনা। ভিডিওটি রিপোস্ট করে কঙ্গনা লিখেছেন, নওয়াজের মতো এত বড় একজন তারকা রাস্তায় দাঁড়িয়ে রয়েছেন, এটা কি ধরনের বদমায়েশি হচ্ছে!

কঙ্গনা দাবি করেছেন, এটা সম্পূর্ণ শয়তানি বুদ্ধির কাজ। আলিয়ার ভয়েই নাকি নিজের বাড়ি ছেড়ে হোটেলে থাকছেন নওয়াজ। নিজের ইন্সটাগ্রাম স্টোরিতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে কঙ্গনার অনুরোধ, নওয়াজকে যেন এভারেস্ট অ্যাপার্টমেন্টে তাঁর প্রাক্তন স্ত্রীকে কিনে দেওয়া ফ্ল্যাটে পাঠিয়ে দেওয়া হয় এবং নওয়াজ যেন আইনের দ্বারস্থ হয়ে নিজের দাবি পেশ করেন। কঙ্গনা জানিয়েছেন, নওয়াজ ও আলিয়ার অনেক দিন আগেই বিবাহ বিচ্ছেদ হয়ে গিয়েছে। ফলে নওয়াজের সম্পত্তিতে আলিয়ার অধিকার নেই।